সদ্য সংবাদ

 সুদে কারবারীর অত্যাচারে হরিণাকুন্ডুর পান ব্যবসায়ী দিশেহারা!   শ্যামনগর গ্রামে আসামীদের হুমকীতে মামলার বাদী গ্রাম ছাড়া!   পঞ্চগড় সীমান্তে ভারতীয় ২৮ টি গরু আট করেছে পুলিশ  সাঘাটায় সতীতলা গ্রামে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত ব্যাক্তির মৃত্যু  সাঘাটায় বজ্রপাতে এক ব্যক্তির মৃত্যু  আড়াইহাজারে পানিতে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু   প্রেম নিয়ে যা বললেন জয়া আহসান  যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়বেন র‌্যাপার কানি ওয়েস্ট   ফতুল্লা কাশিপুরে বাল্য বিবাহ বন্ধ  ৬২ হাজার গ্রাহক অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিলের শিকার, জড়িত ২৯০ কর্মকর্তা-কর্মচারী  সংসদ চললে আদালতও চলতে পারে   করোনা ভাইরাসে দুই হাজার ছাড়ালো মৃত্যু, আক্রান্ত এক লাখ ৬২ হাজার   সীমান্ত হত্যায় সরকার টু পর্যন্ত করে না: রিজভী  বিদেশফেরত সাজাপ্রাপ্ত ২১৯ জনকে কারাগারে প্রেরণ   নারায়ণগঞ্জে বেড়েছে হত্যাকান্ড, প্রশ্ন উঠেছে নিরাপত্তা নিয়ে   কণ্ঠশিল্পী আসিফের বিরুদ্ধে গায়িকা মুন্নির মামলা   বদলিতে তদবির কালচার চিরতরে বিদায় করতে চান আই‌জি‌পি   জমি ও ফ্লাটের নিবন্ধন ফি কমলো  আকাশ ডিটিএইচ সংযোগে এক হাজার টাকা মূল্যছাড়  তাপসীর পান্নুর বিরুদ্ধে দলবাজির অভিযোগ করলেন কঙ্গনা

' সোনাক্ষী সিনহা অল্পেই খুশি'

 Fri, Aug 10, 2018 10:17 AM
' সোনাক্ষী সিনহা অল্পেই খুশি'

ডেস্ক রিপোর্ট : : অল্পতে খুশি হওয়াকেই সুখী হওয়ার মন্ত্র বলে ব্যাখ্যা করেছেন বলিউড তারকা সোনাক্ষী সিনহা।

ভারতীয় দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তার সুখী থাকার কারণ নিয়ে নায়িকা একথা বলেন।  


সোনাক্ষী বলেন, আমি অল্পেই খুশি। পরিবার আর বন্ধুদের সঙ্গে সময় কাটাতে পারলেই খুশি থাকি। তবে কোনও দিন সমস্যা থেকে পালাই না। সমস্যা মিটিয়ে তবে নিশ্চিন্ত হই।


নিজের সাজগোজ প্রসঙ্গে এই তারকা বলেন, কানে দুল পরতেও আমার আলস্য লাগে। মা তো খুব চিৎকার করে। আমি স্কুললাইফ থেকেই টমবয়। স্কুল শুরু হওয়ার আগেই স্কুলের মাঠে পৌঁছে যেতাম আর ফুটবল খেলতাম। আর ইউনিফর্মের বারোটা বাজাতাম। 


তিনি বলেন, বসে বসে খেলা দেখতে ভাল লাগে না আমার। খেলতে বেশি ভাল লাগে। আমার পছন্দের খেলা বাস্কেটবল আর ফুটবল। যাই হোক, আমি জানতাম অভিনয়ে আসার পরে ভাল দেখতে লাগাটা খুব জরুরি। তাই ব্যালান্স রাখি। ক্যামেরা অফ হয়ে গেলেই সাধারণ মেয়ের মতো থাকি।


দৈনন্দিন জীবনের চাপ থেকে নিজেকে দূরে রাখার প্রশ্নে সোনাক্ষী বলেন, স্কেচিং অ্যান্ড পেন্টিং করতে ভালো লাগে। কোনও কিছু গড়তে খুব পছন্দ করি। ক্লান্ত হয়ে বাড়ি ফিরলেও মনে হয় না ঘুমাই। সোজা পেন্টিং রুমে চলে যাই। ল্যান্ডস্কেপ, পোর্ট্রেট, অ্যাবস্ট্রাক্ট... সবই আঁকি। বড় কালেকশন বাড়িতে আছে। সুযোগ করে এগজ়িবিশন নিশ্চয়ই করব।


আগামী কাজের পরিকল্পনা সম্পর্কে তিনি বলেন, সামনের বছর ‘কলঙ্ক’মুক্তি পাবে। ‘কলঙ্ক’-এর পরে ‘দবং থ্রি’র শুটিং শুরু হবে। অনেক দিন ধরে অপেক্ষা করছিলাম ছবিটার জন্য। 

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন