সদ্য সংবাদ

 করোনার টিকার অনুমোদন চায় মডার্নাও  test news for news uploading   ‘কম খরচে যাতায়াতে দেশব্যাপী রেল নেটওয়ার্ক স্থাপন হবে  দুবাইয়ের ব্যবসায়ীর সঙ্গে বাগদান সারলেন বেনজিরের মেয়ে   বর্তমান সরকারের পতনের অবস্থা চলছে: ডা. জাফরুল্লাহ   বঙ্গবন্ধু রেলসেতুর ব্যয় হবে ১৭ হাজার কোটি টাকা  পঞ্চগড়ে কৃষকদের মাঝে সার-বীজ বিতরণ   নারায়ণগঞ্জ সদর থানার নতুন ওসি ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত  ঝিনাইদহ আইনজীবী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত  মোবারকগঞ্জ চিনিকল শ্রমিকদের মানববন্ধন  ডেপুটি স্পিকার অ্যাড.ফজলে রাব্বীকে গণসংবর্ধনা  যুক্তরাজ্যে নারীদের 'কুমারীত্ব পরীক্ষার'   পার্বত্য চট্টগ্রামের বছরে ৪শ’কোটি টাকার চাঁদাবাজি   না’গঞ্জে অবৈধ যানবাহনের দাপটে ঘটছে দুর্ঘটনা।   বাল্যবিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর ক্ষোভ   ‘প্রিয় বন্ধু’র মৃত্যুর দিনেই বিদায় নিলেন ম্যারাডোনা   নারীদের ‘জানোয়ারের’ সঙ্গে তুলনা করলেন ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী   কৌশানী মুখার্জির `ফিগার সিক্রেট’  বনানী কবরস্থানে শায়িত হলেন আলী যাকের  বিশ্বকে নেতৃত্ব দিতে এসেছে আমেরিকা: বাইডেন

অমিতাভ বচ্চনকে ‘নিষিদ্ধ’ করেছিল গণমাধ্যম

 Thu, Apr 12, 2018 1:08 PM
অমিতাভ বচ্চনকে ‘নিষিদ্ধ’ করেছিল গণমাধ্যম

ডেস্ক রিপোর্ট : : সংবাদ শিরোনামে যিনি সবসময় থাকেন। সেই অমিতাভ বচ্চনকেই নাকি একসময় বয়কট করেছিল গণমাধ্যম।

 বিগ বি জানিয়েছেন, একসময় গণমাধ্যমের সঙ্গে মুখ দেখাদেখি বন্ধ ছিল তাঁর। প্রথমে তাঁকে বয়কট করা হয়। পরে তিনিও গণমাধ্যমকে বয়কট করেন। আর তা চলতে থাকে প্রায় ১৫ বছর।


সময়টা সাতের দশক। জরুরি অবস্থার সময়। হঠাৎই গণমাধ্যমে নিষিদ্ধ হয়ে যান অমিতাভ বচ্চন। এ প্রসঙ্গে নিজের ব্লগে বিগ বি লিখেছিলেন, একটা সময়ের পর প্রেস আমার বিরুদ্ধে চলে যায়। কারণ, তাদের এক সোর্স বলেছিল যে, দেশে এমারজেন্সির আইডিয়াটা আমি দিয়েছিলাম!


প্রেসকে নিষিদ্ধ করার কথাও আমি বলেছিলাম। এর থেকে হাস্যকর কিছু ছিল না। তাই তারা আমাকে নিষিদ্ধ করে দিয়েছিল। কোনও সাক্ষাৎকার নয়, কোনও ছবি নয়, কোনও খবর পর্যন্ত কেউ ছাপেনি।


বিগ বি আরও বলেছিলেন, সেই সময় দিওয়ার, লাওয়ারিশ , মুকাদ্দার কা সিকান্দর, শারাবির মতো ছবি মুক্তি পেয়েছিল। একের পর এক সব ব্লকবাস্টার হিটও হয়েছিল। কিন্তু, সেই সব খবর ছাপা হয়নি। বিগ বিকে পুরোপুরিভাবে নিষিদ্ধ করে দিয়েছিল গণমাধ্যম।


সেই সময় অমিতাভের মনে হয়েছিল, যদি প্রেসের তাঁকে নিষিদ্ধ করার স্বাধীনতা থাকে তাহলে তাঁরও স্বাধীনতা আছে প্রেসকে ব্যান করার। আর তাই প্রায় ১৫ বছর বিগ বি গণমাধ্যমের সঙ্গে কোনওরকম যোগাযোগ রাখেননি।


এ প্রসঙ্গে  লিখেছিলেন, তারা (প্রেস) নিজেদের দৃষ্টিভঙ্গি দিয়ে আমাকে নিষিদ্ধ করেছিল। আমি নিজেকে চ্যালেঞ্জ করেছিলাম যে আমার জীবন থেকে তাদেরকে (প্রেস) ব্যান করে দেব। প্রায় ১০ থেকে ১৫ বছর তারা আমার অস্তিত্ব এড়িয়ে গেছে। তাদের এজেন্সি আমার খবর ছাপেনি।


এরপর কুলি ছবিতে বিগ বি’র গুরুতর আহত হওয়ার খবর সংবাদমাধ্যমে ছাপা হয়। এ প্রসঙ্গে বিগ বি লিখেছিলেন, কুলি ছবির সময় আমার শারীরিক অবস্থার খবর গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল। তারা আমার অসুস্থতা নিয়ে উদ্বেগপ্রকাশ করেছিল।


স্টারডাস্টের মালিক নারি হিরা আমাকে বলেছিলেন, তোমাকে আমরা ফিল করাতে চেয়েছিলাম। কিন্তু কখনও চাইনি তুমি মরে যাও।


২০১৩ সালে বিগ বি নিজের ব্লগে তাঁর এই অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছিলেন।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন