সদ্য সংবাদ

 কালকিনিতে ১৩১ বাড়িতে লাল নিশানা লাগিয়ে দিলো প্রশাসন  করোনার বিরুদ্ধে সাইফুল ইসলাম শান্তির অভিযান শুরু  রংপুরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  নরসিংদীতে হোম কোয়ারেন্টিনে ২০৫ প্রবাসী  কালকিনির বিভিন্ন হাট-বাজারে হাতধোয়ার জন্য বেসিন স্থাপন  পঞ্চগড়ে সাড়ে ৭শ’ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ  রংপুরে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  পার্বতীপুরে শুধুমাত্র পূজার মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী ‘বাহা পরব’ উদযাপিত  রংপুরে এরশাদের জন্মদিন পালিত  বিএফআরআইতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস পালিত  করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পঞ্চগড়ে জরুরি বৈঠক  আতঙ্কিত না হয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে : সাদ এরশাদ এমপি  কালকিনিতে দুই প্রবাসীকে আর্থিক জরিমানা  পঞ্চগড়ে সীমিত পরিসরে মুজিববর্ষ পালিত  রংপুরে ৮টি রাস্তা পাকাকরণ ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু  কালকিনিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে মুজিব উতসব পালিত  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  রংপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে কীটনাশক মুক্ত সবজির চাষ!

অস্কার-সন্ধ্যায় নায়িকা ৮০০ ক্ষুধার্ত মানুষের পেট ভরল

 Sun, Mar 5, 2017 12:18 PM
অস্কার-সন্ধ্যায় নায়িকা ৮০০ ক্ষুধার্ত মানুষের পেট ভরল

ডেস্ক রিপোর্ট:: অস্কার-সন্ধ্যায় অনেক নামিদামি অভিনেতা রেড কার্পেটে হেঁটেছেন। সেই তালিকায় ছিলেন স্লামডগ মিলিয়নিয়ার- এর নায়িকা ‘লতিকা’ ওরফে ফ্রিডা পিন্টোও।

তবে অন্যরা যখন শুধুই ঝাঁ চকচকে সেলিব্রেশনে ব্যস্ত, ফ্রিডা তখন প্রান্তিক মানুষদের পাশে দাঁড়িয়ে তাঁদের মুখে খাবার তুলে দিয়েছেন।

অস্কার-সন্ধ্যায় বেশির ভাগ হলি-বলি স্টাররা তখন ক্যামেরার সামনে পোজ দি”িছলেন। সেই সময়ে ফ্রিডাকে দেখা যায় এক্কেবারে অন্য ভূমিকায়। অস্কার উৎসবে বেঁচে যাওয়া অতিরিক্ত খাবার তিনি তখন লস অ্যাঞ্জেলসের গরিবদের প্লেটে সাজা”িছলেন। সান ফ্রান্সিসকোর একটি সং¯’ার উদ্যোগেই ফ্রিডা এই কাজ করেছেন। লক্ষ্য, খাবারের অপচয় বন্ধ করা। তাঁদের এই উদ্যোগে প্রায় ৮০০ ক্ষুধার্ত মানুষের পেট ভরল।

ভৎরফড় (১)গত ২৩ বছর ধরে অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডসের পর সেলেব শেফ ‘উলফগ্যাং প্যাক’-এর তত্ত্বাবধানে এই মহাভোজের আয়োজন করা হয়। গলদা চিংড়ি থেকে অ্যাভোকাডো— সবই থাকে তাতে। এর আগে প্রতিবারই বিপুল খাবার বেঁচে যেত। এবং তা ফেলেও দেওয়া হত। সেই খাবার যাতে নষ্ট না হয়, তারই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল এ বার। সেই উদ্যোগে অংশ নিয়ে ইনস্টাগ্রামে ছবিও পোস্ট করেন ফ্রিডা। ক্যাপশনে লেখেন, ‘অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডসে অতিথিদের জন্য আয়োজিত অতিরিক্ত খাবার অপচয় হয়নি। এলজিবিটি সেন্টারে তা ভাগ করে দেওয়া হয়েছে ক্ষুধার্ত মানুষের মধ্যে। অপচয় করাটা কোনও মতেই গ্ল্যামারাস নয়। মানুষের পেট ভরানোটাই গ্ল্যামারাস।’

এর পরে তিনি দ্বিতীয় পোস্টটি করেন। সেখানে নায়িকা লেখেন, ‘বাড়তি খাবার এই মানুষগুলোর সঙ্গে শেয়ার করে নিতে, মস্তিষ্কের খুব একটা প্রয়োজন পড়ে না।’ আনন্দবাজার

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন