সদ্য সংবাদ

 কালকিনিতে ১৩১ বাড়িতে লাল নিশানা লাগিয়ে দিলো প্রশাসন  করোনার বিরুদ্ধে সাইফুল ইসলাম শান্তির অভিযান শুরু  রংপুরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  নরসিংদীতে হোম কোয়ারেন্টিনে ২০৫ প্রবাসী  কালকিনির বিভিন্ন হাট-বাজারে হাতধোয়ার জন্য বেসিন স্থাপন  পঞ্চগড়ে সাড়ে ৭শ’ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ  রংপুরে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  পার্বতীপুরে শুধুমাত্র পূজার মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী ‘বাহা পরব’ উদযাপিত  রংপুরে এরশাদের জন্মদিন পালিত  বিএফআরআইতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস পালিত  করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পঞ্চগড়ে জরুরি বৈঠক  আতঙ্কিত না হয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে : সাদ এরশাদ এমপি  কালকিনিতে দুই প্রবাসীকে আর্থিক জরিমানা  পঞ্চগড়ে সীমিত পরিসরে মুজিববর্ষ পালিত  রংপুরে ৮টি রাস্তা পাকাকরণ ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু  কালকিনিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে মুজিব উতসব পালিত  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  রংপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে কীটনাশক মুক্ত সবজির চাষ!

থার্টি ফার্স্ট নাইট ঘিরে প্রস্তুত ডিজে মেয়েরা

 Fri, Dec 29, 2017 6:25 AM
থার্টি ফার্স্ট নাইট ঘিরে প্রস্তুত ডিজে মেয়েরা

এশিয়া খবর২৪ ডেস্ক :: থার্টি ফার্স্ট নাইট। বরাবরের মতো এবারো এই রাতকে ঘিরে রয়েছে বর্ণিল আয়োজন। রাতব্যাপী চলবে নাচ,

গান ও ফ্যাশন শো। সেই সঙ্গে রয়েছে নানা চমক। তারকা হোটেলগুলোর বাইরেও হচ্ছে পার্টি। বাসা-বাড়ি, বিভিন্ন ক্লাব ছাড়াও পার্টি হবে লঞ্চে।

এসব পার্টির প্রচারণা চলছে মূলত পরিচিতদের মধ্যে। নিজেদের ফেসবুক পেজেও প্রচারণা চালানো হচ্ছে। ইংরেজি নতুন বছরকে বরণ করে নিতে প্রস্তুতির শেষ নেই ডিজে, মডেল ও শিল্পীদের মধ্যে। পার্টিকে আকর্ষণীয় করতে সুন্দরী পার্টি গার্লদের বুকিং করা হয়েছে ইতিমধ্যে। এমনকি চলচ্চিত্রের আইটেম গানের মেয়েরাও বিটের তালে নেচে-গেয়ে মাতাবেন পার্টিতে অংশগ্রহণকারীদের।

৩১শে ডিসেম্বর সন্ধ্যায় সদরঘাট থেকে একটি লঞ্চ যাত্রা করবে চাঁদপুরের দিকে। উদ্দেশ্য শুধুই আনন্দ-বিনোদন উপভোগ। সারা রাত লঞ্চে নাচে-গানে মাতিয়ে রাখা হবে। সেইসঙ্গে থাকবে ডিজেরা। পপ ও হিন্দি গানের বিটে কেঁপে উঠবে রাতের আকাশ। লঞ্চে থাকবে খাবার ও পানীয়। এখানেই শেষ না। লঞ্চে একান্তে সময় কাটাতে রয়েছে কেবিনের ব্যবস্থা। ইতিমধ্যে বুকিং প্রায় শেষ হয়েছে। আয়োজকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, কাপলদের কেবিনসহ সাত হাজার টাকা দিতে হবে। সারা রাত নদীতে ভাসবে লঞ্চ। সকালে আবার ফিরবে সদরঘাটে। এভাবেই নদীর বুকে উপভোগ করা হবে থার্টি ফার্স্ট নাইট। 

এবার রেডিসন ব্লু হোটেলের ব্লু ওয়াটার গার্ডেনের বল রুমে থাকবে ‘নিউ ইয়ার কাউন্টডাউন’ পার্টি। দেশের প্রথম সারির ডিজেদের অন্যতম মারিয়া থাকবেন পার্টিতে। থাকবেন হালের জনপ্রিয় ডিজে পরী। এ ছাড়াও থাকবেন ডিজে যুবায়ের, শাম, লিটন, রাজন ও তুর্য। সন্ধ্যা ৬টা থেকে শুরু হওয়া এই পার্টিতে থাকবে লাতিন ড্যান্স, ফ্যাশন শো। এই পার্টির টিকিট বিক্রি হচ্ছে চার হাজার টাকায়। কাপলের ক্ষেত্রে ছয় হাজার টাকা। পার্টি চলবে ভোর পর্যন্ত। ডিজে মারিয়া জানান, থার্টি ফার্স্ট নাইট উপলক্ষে আয়োজিত ক্যাডেট কলেজ ক্লাবের ৩১ নাইট, রেডিসন ব্লু হোটেলের ‘নিউ ইয়ার কাউন্টডাউন’ পার্টিসহ কয়েক পার্টিতে অংশগ্রহণ করবেন তিনি। মারিয়া বলেন, থার্টি ফার্স্ট নাইট এনজয় করতে সবাই যেভাবে প্রস্তুত ঠিক তেমনি ডিজে হিসেবে আমিও প্রস্তুত তাদের আনন্দের বন্যায় ভাসাতে। দর্শকদের মুগ্ধ করতে প্রস্তুতির কমতি নেই সুদর্শনা মারিয়ার। রাজনৈতিক অস্থিরতা মুক্ত থাকার কারণে এবার পার্টিতে অংশগ্রহণকারী বেশি হবে বলেই ধারণা এই ডিজের।

একইভাবে লা মেরিডিয়ানের স্কাই বলরুমে অনুষ্ঠিত হবে ‘গ্রান্ড নিউ ইয়ার পার্টি’। ডিজে, ড্যান্স ও গানের পাশপাশি এতে থাকবে র‌্যাম্প মডেলিং। ডিজে পরী, ফারজানা, মেরাজ, প্রিন্স ও তন্ময় অংশ নেবেন এই পার্টিতে। ঢাকা রিজেন্সি মাতাবেন ডিজে সনিকা, সামান্তা, ডন, ইয়ামিন, রাজি ও রেইন। বিগেস্ট নিউ ইয়ার নামের এই পার্টি আয়োজন করেছে ঢাকা রিজেন্সি কর্তৃপক্ষ। পার্টিতে থাকবে ননস্টপ মিউজিক, ডিজে ও ফায়ার ড্যান্স ইত্যাদি। এই পার্টির টিকিটির মূল্য তিন হাজার টাকা। কাপল পাঁচ হাজার টাকা।  

কমার্শিয়াল পার্টির বাইরে বিভিন্ন ক্লাব, সংগঠন আয়োজন করেছে নানা অনুষ্ঠানের। বেশ কয়েকটি তারকা হোটেলে অনুষ্ঠিত হবে গানের অনুষ্ঠান। মূলত হোটেলের গেস্টদের জন্য থাকবে এই আয়োজন।

ঢাকার অভিজাত এলাকার বিভিন্ন বাসা বাড়িতেও আয়োজন করা হয়েছে বর্ণিল পার্টির। এসব পার্টিতে থাকবেন নানা পর্যায়ের তারকা ব্যক্তিরা। ডিজে পরী জানান, সারা বছর জুড়েই দেশে-বিদেশে নানা পার্টিতে ডিজে হিসেবে বাজাই। কিন্তু থার্টি ফার্স্ট নাইটে দর্শকদের প্রত্যাশা থাকে বেশি। আমরা চেষ্টা করি ওই রাতে সবটুকু উজার করে দিতে। বাজাতে বাজাতে সমবেতদের আনন্দ দিতে অনেক সময় আমরা নিজেরাও ড্যান্স করি। এসবই হচ্ছে আনন্দ দেয়ার জন্য। ডিজে পার্টিতে কাউকে বিমর্ষ হতে দেন না পরী। এবারো থার্টি ফাস্ট নাইটে সবাইকে আনন্দ দিতে প্রস্তুত এই ডিজে। 

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন