সদ্য সংবাদ

 কালকিনিতে ১৩১ বাড়িতে লাল নিশানা লাগিয়ে দিলো প্রশাসন  করোনার বিরুদ্ধে সাইফুল ইসলাম শান্তির অভিযান শুরু  রংপুরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  নরসিংদীতে হোম কোয়ারেন্টিনে ২০৫ প্রবাসী  কালকিনির বিভিন্ন হাট-বাজারে হাতধোয়ার জন্য বেসিন স্থাপন  পঞ্চগড়ে সাড়ে ৭শ’ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ  রংপুরে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  পার্বতীপুরে শুধুমাত্র পূজার মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী ‘বাহা পরব’ উদযাপিত  রংপুরে এরশাদের জন্মদিন পালিত  বিএফআরআইতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস পালিত  করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পঞ্চগড়ে জরুরি বৈঠক  আতঙ্কিত না হয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে : সাদ এরশাদ এমপি  কালকিনিতে দুই প্রবাসীকে আর্থিক জরিমানা  পঞ্চগড়ে সীমিত পরিসরে মুজিববর্ষ পালিত  রংপুরে ৮টি রাস্তা পাকাকরণ ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু  কালকিনিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে মুজিব উতসব পালিত  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  রংপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে কীটনাশক মুক্ত সবজির চাষ!

নায়িকাদের মা হওয়া সুখকর নয়। হেনস্তার শিকার প্রিয়াঙ্কা!

 Tue, Oct 25, 2016 12:18 PM
নায়িকাদের মা হওয়া সুখকর নয়। হেনস্তার শিকার প্রিয়াঙ্কা!

বিনোদন ডেস্ক :: নায়িকাদের মা হওয়ার খবর এলেই তাঁদের নিয়ে একটা কৌতূহল উপচে পড়ে! তাঁদের কেন্দ্র করে ভিড় তখন বেড়ে যায় আরও বেশি! বলাই বাহুল্য, ভিড় কখনই গর্ভিণীর জন্য সুখকর নয়। বরং, রীতিমতো পীড়াপ্রদ! সেই সব দিক থেকেই কি গর্ভাবস্থা নিয়ে হেনস্তার শিকার হলেন প্রিয়াঙ্কা?

উঁহু! এখনও পর্যন্ত প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মা হওয়ার খবর এসে পৌঁছয়নি। এই গল্প যদিও তাঁর প্রেগন্যান্সি নিয়েই! বছর দুয়েক আগে যার জন্য তর্কাতর্কিতে জড়িয়ে পড়েছিলেন নায়িকা।
নিজেই এক সাক্ষাৎকারে সম্প্রতি জানিয়েছেন নায়িকা এই পীড়াদায়ক অভিজ্ঞতার কথা। সেই সময় তিনি যুক্ত হয়েছিলেন এক কর্পোরেট প্রোজেক্টের কাজে। কিন্তু চুক্তিপত্রে সই করতে গিয়েই চমকে ওঠেন প্রিয়াঙ্কা। “দেখলাম সেখানে লেখা আছে, কাজ করতে করতে আমি যদি প্রেগন্যান্ট হয়ে যাই, তাহলে সংস্থা আমার গর্ভপাত করাবে”, বলছেন নায়িকা!
বলাই বাহুল্য, এই শর্ত অত্যন্ত অপমানজনক মনে হয় তাঁর কাছে। তিনি সংস্থার কাছে এরকম শর্তের জন্য কৈফিয়ত দাবি করেন। জানতে চান, কাজের সঙ্গে তাঁর প্রেগন্যান্সির সম্পর্ক কী! উত্তর আসে, গর্ভাবস্থায় মহিলারা খুব একটা পরিশ্রম করতে পারেন না। ফলে কাজের ক্ষতি হয়। সংস্থাও আর্থিক লোকসানের মুখ দেখে। তাই এরকম শর্ত জারি করেছে সংস্থা!
“ওই শর্ত মেনে নেওয়ার কোনও কারণই ছিল না! গর্ভপাতের প্রশ্নই উঠছে না! আমি যদি গর্ভাবস্থাতেও ঠিকঠাক কাজ করতে পারি, তাহলে তো সমস্যা হওয়ার কথা নয়। আর গর্ভপাতের ব্যাপারটাও সম্পূর্ণ আমার ইচ্ছাধীন। আমি যদি দেখি, গর্ভাবস্থায় আমার কাজ করতে অসুবিধা হচ্ছে, তাহলে গর্ভপাত করাবো কি না, সেটাও আমিই ভাববো! এক সংস্থা কে এসব নিয়ে প্রশ্ন তোলার”, জানিয়েছেন রীতিমতো ক্ষুব্ধ নায়িকা!
শুধু এটা জানাননি তার পরে আর কাজটা করা হয়েছিল না কি তাঁর! এও জানাননি, কোন সংস্থা এমন প্রস্তাব দিয়েছিল তাঁকে!

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন