সদ্য সংবাদ

  করোনা: প্রশান্ত মহাসাগরে ১০ মাস নৌকায় ভাসছে শিল্পী দল   রাজশাহী-৪: এমপি এনামুলের বিরুদ্ধে বিয়ে করে প্রতারণা ও ভ্রুণ হত্যার অভিযোগ   ইউনাইটেড হাসপাতালের বিরুদ্ধে ক্ষতিপূরণ চেয়ে রিট   স্পটে কাউকে পাওয়া না গেলে ধরে নেবেন তার চাকরি নেই: মেয়র তাপস   মতামত উপেক্ষা করে গণপরিবহন চালু কার স্বার্থে?  করোনায় তিন ভাগ হবে দেশ   মুন্সিগঞ্জে ইউএনওসহ নতুন করে ২৪ জন করোনা আক্রান্ত  লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি হত্যা: চার’শ মানুষকে লিবিয়ায় পাচারকারী হাজী কামাল গ্রেফতার  কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র, ৪০ শহরে কারফিউ   রাষ্ট্রপতির ক্ষমাপ্রাপ্ত আসামি ফের হত্যা মামলায় গ্রেফতার  নারায়ণগঞ্জ জেলার করোনাজয়ী ১০১ পুলিশ সদস্যকে সংবর্ধনা দেয়া হবে কাল  ভারতের তাজমহলে বজ্রপাত, ভেঙে গেল দরজাও  ক্ষতিগ্রস্ত সুন্দরবনের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানালেন পার্নো মিত্র  এবার ২০ লাখ পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রায় ১৭ লাখ পাস  গণপরিবহনের ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত ‘মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা’   দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ৪০ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ২৫৪৫  বর্ধিত বাসভাড়া প্রত্যাখ্যান, পুর্বের ভাড়া বহাল রাখার দাবী যাত্রী কল্যাণ সমিতির   নবীনগরে সেই আমিরুল গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে  যাত্রী নিয়ে পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ঢাকা গেলো  সাঘাটায় কৃষকের নিকট থেকে বোরো ধান ক্রয়ে উন্মুক্ত লটারী

ন্যাম ভবনে ওয়ার্কার্স পার্টির এমপিপুত্রের ‘আত্মহত্যা’

 Mon, Jan 22, 2018 6:14 AM
ন্যাম ভবনে ওয়ার্কার্স  পার্টির এমপিপুত্রের ‘আত্মহত্যা’

ডেস্ক রিপোর্ট : : রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউয়ে সংসদ সদস্য ভবনের একটি ফ্ল্যাট থেকে এমপি পুত্র অনিক আজিজ

 সাক্ষরের (২৬) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। অনিক সাতক্ষীরা-১ আসনের ওয়ার্কার্স  পার্টির এমপি অ্যাডভোকেট মুস্তফা লুৎফুল্লাহর ছেলে। গতকাল সকালে শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ গলায় ইন্টারনেটের তার দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলানো অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্তের পর অনিকের লাশ হেলিকপ্টারে করে সাতক্ষীরার পলাশপুরে নিজ বাড়িতে নেয়া হয়েছে। সেখানেই পারিবারিক কবরস্থানে দাদার কবরের পাশে লাশ দাফন করা হয়।

অনিক খুলনা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট থেকে ইলেকট্রিক্যালে ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ডিপ্লোমা শেষ করে উচ্চ শিক্ষার জন্য বিদেশে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। পাশাপাশি একটি প্রতিষ্ঠানে ফটোগ্রাফির কোর্স করছিলেন অনিক। শেরেবাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গণেশ গোপাল বিশ্বাস বলেন, সকালে খবর পেয়ে ন্যাম ভবনের ৫ নং ভবনের ৬ তলার ৬০৪ নম্বর কক্ষ থেকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলানো লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার শরীরে আর কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে এটি আত্মহত্যা। তবে কী কারণে এই আত্মহত্যা তা এখনো জানা যায়নি। আমরা তদন্ত চালিয়েছি, আশা করি আত্মহত্যার প্রকৃত কারণ আমরা জানতে পারবো। পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার রাতে ওই ফ্ল্যাটে নিহতের ছোট বোন অদিতি আদৃতা সৃষ্টি ও এক গাড়িচালক ছিলেন। মুস্তফা লুৎফুল্লাহ ও তার স্ত্রী নাসরিন খান লিপি সাতক্ষীরায় ছিলেন। বাসার কাজের লোকও ছুটিতে ছিলেন। রাতে খাওয়া- দাওয়া শেষ করে সবাই ঘুমিয়ে পড়েন। সকালে ঘুম থেকে উঠলেও অনিক ঘুম থেকে উঠেনি। পরিবারের লোকজন অনেক ডাকাডাকির পর না ওঠাতে বিকল্প চাবি দিয়ে দরজা খুলে তার মরদেহ দেখতে পান পরিবারের লোকজন। পরে থানায় খবর দেয়া হয়। মরদেহের ময়নাতদন্ত শেষে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের আ. ম. সেলিম রেজা সাংবাদিকদের বলেন, নিহত অনিক ইন্টারনেটের তার গলায় দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তার গলায় ইন্টারনেটের তারের আঘাত পাওয়া গেছে। এছাড়া তার শরীরে আর কোনো আঘাত পাওয়া যায়নি। 

মুস্তফা লুৎফুল্লাহর ব্যক্তিগত সহকারী মফিজুল হক জাহাঙ্গীর বলেন, ওই রাতে এমপি ও তার স্ত্রী ঢাকার বাইরে ছিলেন। বাসায় শুধু অনিকের ছোট বোন ও এক গাড়িচালক ছিল। প্রতিদিনের মতো রাতের খাবার খেয়ে সে তার রুমে চলে যায়। ভোর ছয়টার দিকে এমপি সাহেব এবং আমি ন্যাম ভবনে পৌঁছাই। পরে তিনি তার রুমে চলে যান। সকালে অনেক ডাকাডাকির পর তার কোনো সাড়া না পেয়ে আত্মহত্যার বিষয়ে জানা যায়। তবে রাত ৪টা ৫ মিনিটে অনিক তার ফেসবুকে এক লাইনের একটি স্ট্যাটাস দেন। এতে তিনি লেখেন, ‘তোর জন্য চিঠির দিন...’। 

অনিকের চাচা আলী আ.হ.ম মর্তুজা বলেন, অনিক অনেক ভালো ছেলে ছিল। কিভাবে কি হলো বুঝতে পারছি না। কারো সঙ্গে তার কোনো অভিমান ছিল কিনা তাও জানি না। মরদেহ গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে। পুলিশ তার ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপ নিয়ে গেছে।

এদিকে এমপি পুত্র অনিক আজিজ সাক্ষরের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার পর শোকের ছায়া নেমে আসে স্বজনদের মধ্যে। অনেকে পরিবারের সদস্যদের সান্ত্বনা জানাতে এমপি হোস্টেলে যান। হাসপাতালেও ভিড় করেন অনেকে। এদিকে সাতক্ষীরা জেলা শহরের বাড়িতেও ভিড় করেন এলাকার লোকজন। 

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন