সদ্য সংবাদ

 এসপি জানতেন ওসি প্রদীপের ‘জলসা ঘরে’ চলত ভ’য়ংকর সব অপরাধ!  এবার রাজশাহী রেঞ্জ এসপির বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীর চাঁদাবাজির মামলা  আড়াইহাজারে মার্কেটের ছাদে যুবকের গলাকাটা লাশ  সুশাসনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় টিআইবির নয় দফা  নির্বাচনে দলীয় টিকেট নিশ্চিত করেছেন ইলহান ওমর   ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায়, পাঁচ পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা   ওসি শিশিরের অপকর্ম তদন্তে পুলিশ হেডকোয়াটার্সের টিম বরিশালে   বাড়ার পর এবার স্বর্ণের দাম কমল   সিফাতের ভাষ্য: বাংলাদেশ কাম ডাউন, কাম ডাউন, এরপর গুলি..   মেজর সিনহা হত্যা মামলা: ১৬ আগস্ট গণশুনানি করবে তদন্ত কমিটি   মেজর সিনহার হত্যাকাণ্ড নিয়ে যা বললেন এমপি হারুন  বর্ধিত বাসভাড়া বাতিলের দাবিতে সীতাকুণ্ডে যাত্রী কল্যাণ সমিতির সমাবেশ  শৈলকুপায় প্রেমের ফাঁদে ফেলে ৬ মামলার আসামী গ্রেফতার   ঝিনাইদহে মোট আক্রান্ত ১২১৩ ও মৃত্যু ৪০ জন  পঞ্চগড়ে শিক্ষক নিয়োগে হাতিয়ে নিয়েছে ৩০ লাখ টাকা   মেজর সিনহার খুনী পুলিশ পরিদর্শক লিয়াকতের বিরুদ্ধে যত অভিযোগ  নিজের জন্ম শহরে ৫০টি ভেন্টিলেটর দিলেন মেসি   পুলিশের সংস্কার প্রয়োজন- এসপি মোহাম্মদ জায়েদুল আলম   নায়িকার শরীর নিয়ে মন্তব্য করে বিপাকে পরিচালক  সরকার পদত্যাগের পরও যে কারণে বিক্ষোভে উত্তাল বৈরুত

পুলিশের সাথে সংঘর্ষ- ১৪৪ ধারা জারি,দুই মামলার আসামি ৫ শতাধিক

 Tue, Nov 29, 2016 1:04 PM
পুলিশের সাথে সংঘর্ষ- ১৪৪ ধারা জারি,দুই মামলার আসামি ৫ শতাধিক

ডেস্ক রিপোর্ট:: ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া কলেজ জাতীয়করণের দাবিতে রোববার পুলিশের সাথে দফায় দফায় সংঘর্ষ চলাকালে ২জন নিহত হওয়ার ঘটনায় গতকাল সোমবারও উপজেলা সদরে থমথমে পরি¯ি’তি বিরাজমান ছিল।

উপজেলা সদরে ১৪৪ জারি করে প্রশাসন। পৃথক ২টি মামলা ও জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন করে। উপজেলা সদর থেকে ৪ কিলোমিটার দূরে জোরবাড়ীয়া ডি কাচারীতে গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার আইন শৃঙ্খলা পরি¯ি’তি নিয়ন্ত্রণ ও জনগণের জানমালের নিরাপত্তায় উপজেলা সদরে ১৪৪ জারি করে প্রশাসন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কলেজের মূল ফটক সারাদিন ঘিরে রাখে। কলেজে কাউকে প্রবেশ করতে দেয়নি।

এদিকে পুলিশের কাজে বাধা ও সরকারি গাড়ি ভাংচুরের অভিযোগ এনে পুলিশের এসআই রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে অজ্ঞাত ৫শতাধিক আসামি এবং পথচারী নিহতের ঘটনায় নিহতের ভাই হযরত আলী বাদী  হয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

পুলিশ নিহত অধ্যাপক মো. আবুল কালাম আজাদের লাশ তার দীর্ঘদিনের কর্ম¯’ল ফুলবাড়ীয়া কলেজে নিতে বাধা দিয়েছে বলে তার সহকর্মীরা জানিয়েছেন। এ নিয়ে নিহতের সহকর্মী ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। প্রিয় শিক্ষককে শেষ বারের মতো দেখতে না পেরে অনেকে কান্নায় ভেঙে পড়ে।

সোমবার সকালে ১০টার দিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করে বলা হয়, আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত উপজেলা সদরের জোববাড়িয়া থেকে ভালুকজান পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। ওই ¯’ানে যে কোন ধরনের সভা, সমাবেশ, মিছিল ও জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

নিহত কলেজ শিক্ষক আবুল কালাম আজাদের জানাজার জন্য তার লাশ সোমবার সকালে ফুলবাড়ীয়া কলেজ ক্যাম্পাসে আনতে চাইলে পুলিশের পক্ষ থেকে নিষেধ করা হয় বলে অভিযোগ করেন ফুলবাড়িয়া কলেজ জাতীয়করণ দাবি আদায় কমিটির আহ্বায়ক এস এম আবুল হাশেম। তিনি বলেন, গত রোববার রাতে পুলিশ পাহারায় আবুল কালাম আজাদের লাশ ময়মনসিংহ শহরের সানকিপাড়া এলাকার তার বাসায় রাখা হয়। গতকাল সোমবার সকালে পুলিশের পাহারায় লাশ নিহতের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার কাদেরপুর গ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়। পুলিশি প্রহরায় সোমবার সকাল ১১টায় নান্দাইল উপজেলার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের কাদিরপুর পশ্চিমপাড়া গ্রামে পারিবারিক কবর¯’ানে লাশ দাফন করা হয়েছে।

এদিকে, কলেজে সোমবার সকাল ১০টা হতে উ”চ মাধ্যমিক নির্বাচনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও পুলিশ কাউকে ভেতরে ঢুকতে  দেয়নি বলে অভিযোগ করেছেন কর্মচারী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হক।

ফুলবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিফাত খান রাজিব বলেন, নিহত কলেজ শিক্ষকের লাশ ফুলবাড়িয়া আনার বিষয়টি নিয়ে আমাদের সঙ্গে কোনো কথা বলেনি কলেজ কর্তৃপক্ষ।

ফুলবাড়িয়া কলেজের শিক্ষক ও ¯’ানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রায় দেড়মাস আগে সরকার ২৩ টি কলেজকে জাতীয়করণের জন্য তালিকাভুক্ত করার জন্য নাম প্রকাশ করে। এতে ফুলবাড়িয়া কলেজের নাম না থাকায় তখন থেকেই বিভিন্ন আন্দোলন কর্মসূচি পালন করে আসছিল শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও ¯’ানীয়রা।

আন্দোলনকারীদের অভিযোগ ¯’ানীয় সাংসদ ও কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি আলহাজ্ব মোসলেম উদ্দিন এড. কলেজটি জাতীয়করণ না করে উপজেলা সদরের বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজ নামের অপর একটি কলেজ জাতীয়করণ করেন। এরপর থেকে ফুলবাড়িয়া কলেজ জাতীয়করণের দাবিতে আন্দোলন শুরু হয়।

এদিকে গতকাল বিকাল ৫টায় উপজেলা সদর থেকে ৪কিলোমিটার দূরে জোরবাড়ীয়া ডি কাচারী মাঠে গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বক্তব্য রাখেন- ময়মনসিংহ শহর আওয়ামীলীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, ¡ নুরুল ইসলাম, সহ-সভাপতি ও বীরমুক্তিযোদ্ধা এম এ জব্বার, আনোয়ারুল ইসলাম মুঞ্জু তালুকদার, এম এ কদ্দুস, সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক সরকার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার এ বি সিদ্দিক, উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি নাজমুল হক সরকার, পৌর বিএনপি’র সভাপতি একে এম শমসের আলী ও এটিএম মহসীন শামীম প্রমুখ।


Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন