সদ্য সংবাদ

 সিদ্ধিরগঞ্জে কোনো মাদক,ভূমি দস্যু ও সন্ত্রাসীদের স্থান হবে না- এসপি  এমপি কামরুল ইসলামের ফোন রেকর্ড প্রকাশ: ডিশ ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার  করোনার টিকা বন্টনে ১৫৬ দেশের ‘ঐতিহাসিক চুক্তি’  নুরের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  মিথ্যা মামলা রাজপথেই মোকাবিলা করব: ভিপি নুর   কম্বোডিয়ায় নারীর খোলামেলা পোশাক পরার ওপর নিষেধাজ্ঞা   রিমান্ড শেষে তিতাসের ৮ কর্মকর্তা-কর্মচারী জামিনে মুক্ত  স্বাস্থ্যের ২০ জনের সম্পদের হিসাব তলব   ট্রাম্পকে বিষ মেশানো চিঠি : এক নারী গ্রেফতার  বিক্ষোভ মিছিল থেকে ভিপি নুর আটক  আড়াইহাজারে ডাকাতদের অস্ত্রের আঘাতে মহিলাসহ আহত ৪  ডিপিডিসির প্রকৌশলী মাহাবুব ক্ষমতার দাপটে তিনটি পদ দখলে!  স্বাস্থ্য অধিদফতরের ড্রাইভারের ঢাকায় দুটি ৭ তলা বিলাসবহুল ভবন!  শীতে করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে, প্রস্তুতি নিন: প্রধানমন্ত্রী  ওসি প্রদীপ ও স্ত্রী চুমকির সম্পত্তি জব্দের নির্দেশ  থাই রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে তরুণদের বিক্ষোভ   কে হচ্ছেন আহমদ শফীর উত্তরসূরি?  সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্ঠনী তৈরী করা হবে- রেল মন্ত্রী   নৌ প্রতিমন্ত্রীর সুস্থতা কামনায় বিআইডব্লিউটিএ দোয়া   করোনায় পুলিশের ‘বীরত্বগাঁথা’ নিয়ে বই

প্যারিসে হোটেলে ধর্ষণের শিকার হতে পারতেন কিম কারদেশিয়ান

 Tue, Mar 21, 2017 10:37 AM
প্যারিসে হোটেলে ধর্ষণের শিকার হতে পারতেন কিম কারদেশিয়ান

ডেস্ক রিপোর্ট :: গত বছর ৩ অক্টোবর ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের একটি হোটেলে ছিনতাইকারীদের

হাতে বন্দি হয়েছিলেন রিয়েলিটি শো’র তারকা কিম কারদেশিয়ান। ওই রাতে ছিনতাইকারীরা তার কয়েক মিলিয়ন মূল্যের অলঙ্কার ও ইউরো ছিনিয়ে নেয়।

রোববার রাতে ‘কিপিং আপ উইথ কারদেশিয়ান’ অনুষ্ঠানে তিনি প্রথমবারের মতো বললেন, ওই রাতে তিনি ছিনতাইকারীদের হাতে ধর্ষণেরও শিকার হতে পারতেন। এমন কি খুনও হয়ে যেতে পারতেন।

অনুষ্ঠানে কারদেশিয়ান বললেন, ‘বন্দুকদারী দুজন প্রথমে টেপ দিয়ে আমার মুখ বন্ধ করে ফেলে। তারপর আমাকে বিছানায় ফেলে দেয়। আমার গাঁয়ে নিচের কোনো পোশাক ছিল না। তাদের একজন আমার উপরে চড়ে বলে, হ্যাঁ, এই হ”েছ সময় ৃ.’ কারদেশিয়ান কাঁদতে কাঁদতে বলেন, ‘আমি ধর্ষণের শিকার হওয়ার জন্য মানসিকভাবে একেবারে প্র¯‘তি নিয়ে ফেলেছিলাম। লোকটি আমার দুপা টেনে ধরেছিল। ’

কিš‘, তাদের একজন হঠাৎ আমার মাথায় বন্দুক চেপে ধরে। আমি ভাবছিলাম তারা আমাকে এক্ষুণি মেরে ফেলবে। আমি মনে মনে প্রার্থনা করছিলাম আমার মৃত্যুর পর যেন আমার মেয়েটার জীবন স্বাভাবিক থাকে।’

শেষ পর্যন্ত তারা আমাকে মারেনি, ধর্ষণও করেনি। হাত পা বেঁধে রেখে বাথরুমে নিয়ে ফেলে রাখে আর আমার বহুমূল্যের গয়না ও অর্থকড়ি নিয়ে পালিয়ে যায়।

তারপর অবশ্য এই ঘটনার জন্য ১৭ সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়। তাদের ১০ জনের বিরুদ্ধে এখনো মামলা চলছে। সিএনএন,

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন