সদ্য সংবাদ

 কালকিনিতে ১৩১ বাড়িতে লাল নিশানা লাগিয়ে দিলো প্রশাসন  করোনার বিরুদ্ধে সাইফুল ইসলাম শান্তির অভিযান শুরু  রংপুরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  নরসিংদীতে হোম কোয়ারেন্টিনে ২০৫ প্রবাসী  কালকিনির বিভিন্ন হাট-বাজারে হাতধোয়ার জন্য বেসিন স্থাপন  পঞ্চগড়ে সাড়ে ৭শ’ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ  রংপুরে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  পার্বতীপুরে শুধুমাত্র পূজার মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী ‘বাহা পরব’ উদযাপিত  রংপুরে এরশাদের জন্মদিন পালিত  বিএফআরআইতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস পালিত  করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পঞ্চগড়ে জরুরি বৈঠক  আতঙ্কিত না হয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে : সাদ এরশাদ এমপি  কালকিনিতে দুই প্রবাসীকে আর্থিক জরিমানা  পঞ্চগড়ে সীমিত পরিসরে মুজিববর্ষ পালিত  রংপুরে ৮টি রাস্তা পাকাকরণ ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু  কালকিনিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে মুজিব উতসব পালিত  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  রংপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে কীটনাশক মুক্ত সবজির চাষ!

বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়ার টানা কান অভিযান ১৭ বার

 Tue, May 15, 2018 1:44 PM
বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়ার টানা কান অভিযান ১৭ বার

ডেস্ক রিপোর্ট : : ভারতীয় অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন গত এক দশকের বেশি সময় ধরে নিয়মিত কান চলচ্চিত্র উৎসবে অংশ নিচ্ছেন৷

এখন পর্যন্ত ১৭ বার তিনি এই উৎসবে উপস্থিত হয়েছেন৷

এই বিশ্বসুন্দরীর টানা কান অভিযান নিয়ে ১৭ বছরের ছবিগুলো নিচে পাঠকদের জন্য দেয়া হলো।

২০১৮

এ বছর কান চলচ্চিত্র উৎসবের লাল গালিচায় সাদা গাউনে বরাবরের মতই অপূর্ব লাগছিলো এই বলিউড সুন্দরীকে৷

২০১৭

এ বছর কান চলচ্চিত্র উৎসবের লাল গালিচায় লাল গাউনে ঠিক গোলাপ ফুলের মতই সুন্দর লাগছিলো এই বলিউড সুন্দরীকে৷

২০১৬

এ বছর কান চলচ্চিত্র উৎসবে নিজের নামের যেন সার্থকতা তুলে ধরেছিলেন তিনি৷

২০১৫

গত কয়েক বছর ধরেই কানে নিয়মিত অংশ নিচ্ছেন ঐশ্বরিয়া৷ প্রতিবছরই তাঁর পোশাকে থাকে ভিন্নতা৷

২০১৪

ঐ বছর সোনালী রংয়ের পোশাকে কানের লাল গালিচায় হাঁটেন এই বিশ্বসুন্দরী, যা জয় করেছিল অনেকের হৃদয়৷

২০১৩

কানের ৬৬তম আয়োজনে ঐশ্বরিয়া৷ ‘বিহাইন্ড দ্য ক্যান্ডেলাবরা’ ছবির প্রদর্শনী উপলক্ষ্যে গত বছর বিশ্বের অন্যতম বড় চলচ্চিত্র উৎসবে হাজির হন তিনি৷

২০১২

‘কসমোপোলিস’ ছবির প্রদর্শনীকে কেন্দ্র করে সেবছর কানে উপস্থিত ছিলেন ঐশ্বরিয়া৷ ছবিতে কি তাঁকে একটু মোটা দেখাচ্ছে? আসলে বিশ্বসুন্দরী তখন মা হয়েছেন৷

২০১১

সাদা এবং কালোর সংমিশ্রণে তৈরি পোশাকে ঐশ্বরিয়া৷ এই বলিউড অভিনেত্রীর জন্য যেসব পোশাক তৈরি করে ফ্যাশন ডিজাইনাররা খ্যাতি কুড়িয়েছেন তার মধ্যে এটি একটি৷ সময়ের সাথে সাথে পশ্চিমা পোশাকের সঙ্গে মানানসই ব্যক্তিত্বও গড়ে তুলেছেন অ্যাশ৷

২০১০

সেবছর স্বামী অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে কানে হাজির হন ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন৷ শাড়িতে অসাধারণ লাগছিল তাঁকে৷

২০০৯

কাঁধ খোলা সাদা গাউনে ঐশ্বরিয়া৷ ২০০৯ সালের এই ছবিটি এখন পর্যন্ত কানে ঐশ্বরিয়ার সেরা ছবি হিসেবে অনেকে বিবেচনা করেন৷

২০০৮

বচ্চন পরিবারের বউয়ের ভক্ত এবং সমালোচকরা মনে করেন, ঐশ্বরিয়ার চেহারায় এক ধরনের সরলতা আছে৷ আর এই সরলতা তাঁকে করে তুলেছে আরো বেশি আকর্ষণীয়৷ সবুজ আর সোনালী রংয়ের মিশ্রণে তৈরি এই পোশাকে অবশ্য বিশ্ব সুন্দরীর দৈহিক সৌন্দর্য্যও ফুটে উঠেছিল৷

২০০৭

সেবছর অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন ঐশ্বরিয়া৷ কানেও তিনি হাজির হন স্বামীসহ৷

২০০৬

ঘন নীল পোশাক, সোজা চুল আর গলায় সাপের আদলে তৈরি নেকলেস – ঐশ্বরিয়ার এই লেবাস সমালোচকদের মুখও বন্ধ করে দিয়েছিল৷ বিয়ের আগের বছর তাঁকে দেখতে কিন্তু বেশ আকর্ষণীয় লাগছিল৷

২০০৫

কালো ঐশ্বরিয়ার প্রিয় রং৷ ২০০৫ সালে কানে বিদেশি ডিজাইনারের তৈরি তাঁর কালো পোশাক সাড়া জাগিয়েছিল৷ বিশেষ করে ফটোগ্রাফাররা ঐশ্বরিয়ার ছবি তুলেছেন অনেক আগ্রহ নিয়ে৷

২০০৪

ভারতীয় ডিজাইনার নিতা লাললার তৈরি এই পোশাক পরে ২০০৪ সালে কানের লাল গালিচায় হেঁটেছেন ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন৷ এই পোশাকের সমালোচনা করেছেন অনেকে৷ তাসত্ত্বেও ঐশ্বরিয়ার প্রিয় ডিজাইনারের তালিকা থেকে বাদ পড়েননি নিতা৷ তবে পরবর্তীতে অ্যাশের জন্য পোশাক ডিজাইনের ক্ষেত্রে সতর্ক হন তিনি৷

২০০৩

২০০৩ সালে কানে ‘জুরি’ হিসেবে অংশ নেন ঐশ্বরিয়া৷ তবে তিনি ব্যক্তিগতভাবে সেবছর কান সফর নিয়ে বিশেষ সন্তুষ্ট ছিলেন না৷ যদিও প্রথম কোন ভারতীয় অভিনেত্রীর জুরিমণ্ডলীতে সুযোগ পাওয়ার খবর সাড়া জাগিয়েছিল৷ অনেকের নজর ছিল ঐশ্বরিয়ার দিকে৷

২০০২

কান চলচ্চিত্র উৎসবে ঐশ্বরিয়ার অভিষেক৷ ‘দেবদাস’ ছবির প্রদর্শনী উপলক্ষ্যে তখন কানে এসেছিলেন তিনি, পড়েছিলেন শাড়ি৷

সূত্র : ডন

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন