সদ্য সংবাদ

 করোনা আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন অভিনেত্রী কবরী  আশা ও তামাশার লকডাউন  কত বছর করোনার সঙ্গে থাকতে হবে কেউ জানিনা- ডা ফাহিম  ডলারের লোভে দুই মেয়েই অপহরণ করেছিলেন ম্যারাডোনাকে!  জনবল নিয়োগে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে অবিশ্বাস্য দুর্নীতি, কঠোর শাস্তি চায় টিআইবি  অভিষেক 'উমরাও জান' ছবিতে ঐশ্বরিয়ার প্রেমে পড়েন।   ছাত্রলীগ নেতার জিন্স প্যান্ট চুরির ভিডিও ভাইরাল   লকডাউনে পুলিশের কাছ থেকে ‘মুভমেন্ট পাস’ নিতে হবে।   নরেন্দ্র মোদির পরিকল্পনায় ৪ মুসলমানকে গুলি করে হত্যা-মমতা   এক সপ্তাহ সব ধরনের অফিস ও পরিবহন চলাচল বন্ধ থাকবে  র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হেফাজতের ৪ নেতা  আহমদ শফীর মৃত্যু: বাবুনগরীসহ ৪৩ জনের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দিল পিবিআই  অপরিকল্পিত লকডাউন বিপজ্জনক পরিস্থিতির : রব  আড়াইহাজারে নবম শ্রেনীর ছাত্রীর ধর্ষক গ্রেফতার   নতুন নির্দেশনা, সাত দিন বন্ধ থাকবে ব্যাংক   অভিনেত্রী পায়েলের ওপর হামলা   বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের ডাক মির্জা ফখরুলের  নারায়ণগঞ্জ ডি‌বি পু‌লি‌শের সোর্স প‌রিচ‌য়ে বেপরোয়া সেই মোফাজ্জল ও মিশু চক্র   দেশে করোনায় ১৩ দিনে ৭৯২ জনের মৃত্যু   গুলিতে ৪ মুসলমানের মৃত্যুতে তীব্র ক্ষোভ মমতার

বিশ্বে লাখ লাখ মানুষ ক্ষুধার কারণে মুত্যু ঝুঁকিতে রয়েছে : জাতিসঙ্ঘ

 Fri, Mar 26, 2021 8:11 PM
বিশ্বে লাখ লাখ মানুষ ক্ষুধার কারণে মুত্যু ঝুঁকিতে রয়েছে : জাতিসঙ্ঘ

এশিয়া খবর ডেস্ক:: জাতিসঙ্ঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেস বলেছেন,

 কোভিড -১৯ মহামারী ও জলবায়ু পরিবর্তনের হুমকি বৃদ্ধি এবং ক্ষুধার কারণে বিশ্বব্যাপী লাখ লাখ মানুষ মৃত্যুর ঝুঁকিতে রয়েছে।

নিরাপত্তা পরিষদের খাদ্য ও নিরাপত্তা বিষয়ক এক বৈঠকে বৃহস্পতিবার মহাসচিব বলেন, ‘তাৎক্ষণিক পদক্ষেপ না নিলে লাখ লাখ মানুষ ক্ষুধা ও মৃত্যুর মুখে পড়বে।’


গুতেরেস বলেন, তিন ডজনের বেশি দেশের ৩০ মিলিয়ন লোক দুর্ভিক্ষ ঘোষণা থেকে ‘মাত্র এক পা দূরে রয়েছে।’


তিনি বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তন ও কোভিড- ১৯ মহামারী এই পরিস্থিতি আরো তীব্র করেছে। মহাসচিব বলেন, ‘আমার একটি সাধারণ বার্তা হচ্ছে যদি আপনারা লোকদের খাবার দিতে না পারেন, আপনাদের সংঘাতের মুখোমুখি হতে হবে।’


২০২০ সালের শেষের দিকে অস্থিরতায় ৮৮ মিলিয়নের বেশি মানুষ তীব্র ক্ষুধার মুখোমুখি হয়। এ বছর এই অস্থিরতা আরো ২০ শতাংশ বাড়ছে। ২০২১ সালে এই সঙ্কট আরো তীব্র হতে পারে।

সূত্র : বাসস

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন