সদ্য সংবাদ

  ভারতের মতো মানসম্পন্ন পেসার আমাদের নেই: নান্নু  নারায়ণগঞ্জ পেঁয়াজের বাজার জেলা প্রশাসনের অভিযান   এবার মিলারদের কারসাজিতে চালের বাজারও অস্থির  নতুন নাটকে মডেল সাবরিনা প্রমি   স্বেচ্ছা‌সেবক লী‌গের সভাপ‌তি নির্মল, সম্পাদক বাবু  ইউক্রেন কাণ্ড: সাক্ষীকে ‘ভয়’ দেখাচ্ছেন ট্রাম্প  পেঁয়াজ খাওয়া বন্ধ করে দিন, সিন্ডিকেট ভেঙে যাবে: গয়েশ্বর   নবীনগরে দুই সহযোগীসহ ইয়াবা সম্রাট গ্রেফতার   সাংবাদিক আব্দুস সাত্তারের মৃত্যু  পেঁয়াজ আমদানীতে সরকারকে কোন শুল্ক দিতে হয় না - অর্থমন্ত্রী   পেঁয়াজ বিমানে উঠে গেছে, কাজেই আর চিন্তা নাই: প্রধানমন্ত্রী  অস্ত্রবিরতি সত্ত্বেও গাজায় ইসরাইলি বিমান হামলা  সৌদি থেকে দেশে ফিরলেন নির্যাতিত সুমিসহ ৯১ নারী  সরকার নিজেই সিন্ডিকেট তৈরি করে পেঁয়াজের দাম বাড়াচ্ছে: ন্যাপ  জনবান্ধব পুলিশ সুপার মনিরুল ইসলামে আস্থা নারায়ণগঞ্জবাসীর  টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা যুবক নিহত, লক্ষাধিক ইয়াবাসহ অস্ত্র উদ্ধার  প্লাজমা ফাউন্ডেশনের ৩য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন  নবীনগরে এসএসসির ফরম পূরণে অনিয়মের অভিযোগ,  তুরস্কসহ চার দেশ থেকে বিমানে আসছে পেঁয়াজ  মহেশপুরে পুলিশের গুলিতে মাদক ব্যবসায়ী আহত

মৃত নারী ভক্তের উপহার ফিরিয়ে দিলেন সঞ্জয়

 Mon, Mar 19, 2018 1:09 PM
মৃত নারী  ভক্তের উপহার ফিরিয়ে দিলেন সঞ্জয়

ডেস্ক রিপোর্ট : : ভারতীয় অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত শতাধিক সিনেমায় অভিনয় করেছেন। সঙ্গত কারণেই ভারতজুড়ে তার রয়েছে অসংখ্য

 ভক্ত যাদের মধ্যেই একটি বড় অংশই নারী। ভক্তরা অনেক সময় প্রিয় তারকাকে উপহার স্বরূপ অনেক কিছু পাঠিয়ে থাকেন। কিন্তু সম্প্রতি এক নারী ভক্তের দেয়া উপহার বিস্মিত করেছে সঞ্জয় দত্তকে। মিস্টার দত্ত শেষ পর্যন্ত উপহারটি গ্রহণ করেননি।


নিশি হরিশচন্দ্র ত্রিপাঠি বাস করতেন মুম্বাইতেই। গত জানুয়ারিতে তিনি মারা যান। তার মৃত্যুর পর একটি ব্যাংক থেকে ফোন পান সঞ্জয় দত্ত। সেখানে তাকে জানানো হয় যে, নিশি হরিশচন্দ্র ত্রিপাঠি তার অর্থ ও সম্পদের প্রাপক হিসেবে তাকে অর্থাৎ সঞ্জয় দত্তকে মনোনীত করে গেছেন।


সঞ্জয় দত্ত ব্যাংককে জানান যে ভক্তের এ ধরণের আচরণে তিনি আপ্লুত কিন্তু তার অর্থ সম্পদের ওপর থেকে তার অধিকার তিনি তুলে নিচ্ছেন।


তার আইনজীবী সুভাষ যাদব বলেন, মিজ ত্রিপাঠি তার সেভিংস অ্যাকাউন্ট ও লকারের নমিনি তাকে করেছেন ব্যাংকের কাছ থেকে এ খবর পেয়ে সঞ্জয় দত্ত রীতিমত বিস্মিত হয়েছেন। তবে সেখানে কি পরিমাণ অর্থ সম্পদ ছিলো তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।


সঞ্জয় দত্ত বলেছেন যেহেতু ওই ভক্তকে তিনি ব্যক্তিগতভাবে চিনেন না এবং দুজনের কখনো দেখাও হয়নি তাই তার সম্পদের ওপর থেকে অধিকার তিনি তুলে নিয়েছেন।


বরং ত্রিপাঠির পরিবারকে আইনগত প্রক্রিয়া শেষ করে কিভাবে অর্থ ও লকারে থাকা মূল্যবান সামগ্রী ফিরিয়ে দেয়া যায় সেটিই এখন দেখছেন মি. দত্তের আইনজীবীরা। জানা গেছে, ত্রিপাঠির ৮০ বছর বয়সী মা ও তিন সহোদর আছে পরিবারে।


সূত্র: বিবিসি

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন