সদ্য সংবাদ

  প্রাথমিকে উপবৃত্তির টাকা বিতরণ করা হবে ‘নগদে’  নবীনগর-শিবপুর-রাধিকা সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন   পঞ্চগড় পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে লড়াই হবে তৌহিদুল -জাকিয়া  কৃষকদের পরিশ্রমে আজ বাংলাদেশ উন্নত -ডেপুটি স্পীকার  দায়িত্ব নিয়েই ১০০ দিন জনগণকে মাস্ক পরাবেন বাইডেন   রোহিঙ্গাদের জন্য দেশের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে: ওবায়দুল কাদের   পুলিশের লাঠিপেটায় ছত্রভঙ্গ ভাস্কর্য বিরোধী মিছিল  ফতুল্লায় নৃত্য শিল্পি ধর্ষণ: গ্রেফতার ১  দেশের সাত জেলায় সড়কে ঝরল ২১ প্রাণ  গাঁজা বিপজ্জনক মাদক নয় : জাতিসঙ্ঘ   ‘দেশে আলেমদের মাঠে নামিয়েছে সরকার: ডা. জাফরুল্লাহ  দুদকে যেতেই হবে ডিএজি রুপাকে   জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১৯ বিজয়ীদের নাম ঘোষণা  সিদ্ধিরগঞ্জে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা  ঘুষ নেওয়ার ভিডিও ভাইরাল, এএসআই প্রত্যাহার   পাকিস্তানের ১৯৭১ সালের নৃশংসতা অমার্জনীয় : প্রধানমন্ত্রী  ‘আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশের মানুষকে হতাশ করেছে’   ২৫ ব্যাংকে খেলাপি ঋণ ৮০ হাজার কোটি টাকা  ঢাকার যাত্রীদের জন্য গুগল ম্যাপে নতুন ফিচার  নবীনগরে অজ্ঞাতনামা মহিলার লাশ উদ্ধার

মৃত নারী ভক্তের উপহার ফিরিয়ে দিলেন সঞ্জয়

 Mon, Mar 19, 2018 1:09 PM
মৃত নারী  ভক্তের উপহার ফিরিয়ে দিলেন সঞ্জয়

ডেস্ক রিপোর্ট : : ভারতীয় অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত শতাধিক সিনেমায় অভিনয় করেছেন। সঙ্গত কারণেই ভারতজুড়ে তার রয়েছে অসংখ্য

 ভক্ত যাদের মধ্যেই একটি বড় অংশই নারী। ভক্তরা অনেক সময় প্রিয় তারকাকে উপহার স্বরূপ অনেক কিছু পাঠিয়ে থাকেন। কিন্তু সম্প্রতি এক নারী ভক্তের দেয়া উপহার বিস্মিত করেছে সঞ্জয় দত্তকে। মিস্টার দত্ত শেষ পর্যন্ত উপহারটি গ্রহণ করেননি।


নিশি হরিশচন্দ্র ত্রিপাঠি বাস করতেন মুম্বাইতেই। গত জানুয়ারিতে তিনি মারা যান। তার মৃত্যুর পর একটি ব্যাংক থেকে ফোন পান সঞ্জয় দত্ত। সেখানে তাকে জানানো হয় যে, নিশি হরিশচন্দ্র ত্রিপাঠি তার অর্থ ও সম্পদের প্রাপক হিসেবে তাকে অর্থাৎ সঞ্জয় দত্তকে মনোনীত করে গেছেন।


সঞ্জয় দত্ত ব্যাংককে জানান যে ভক্তের এ ধরণের আচরণে তিনি আপ্লুত কিন্তু তার অর্থ সম্পদের ওপর থেকে তার অধিকার তিনি তুলে নিচ্ছেন।


তার আইনজীবী সুভাষ যাদব বলেন, মিজ ত্রিপাঠি তার সেভিংস অ্যাকাউন্ট ও লকারের নমিনি তাকে করেছেন ব্যাংকের কাছ থেকে এ খবর পেয়ে সঞ্জয় দত্ত রীতিমত বিস্মিত হয়েছেন। তবে সেখানে কি পরিমাণ অর্থ সম্পদ ছিলো তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।


সঞ্জয় দত্ত বলেছেন যেহেতু ওই ভক্তকে তিনি ব্যক্তিগতভাবে চিনেন না এবং দুজনের কখনো দেখাও হয়নি তাই তার সম্পদের ওপর থেকে অধিকার তিনি তুলে নিয়েছেন।


বরং ত্রিপাঠির পরিবারকে আইনগত প্রক্রিয়া শেষ করে কিভাবে অর্থ ও লকারে থাকা মূল্যবান সামগ্রী ফিরিয়ে দেয়া যায় সেটিই এখন দেখছেন মি. দত্তের আইনজীবীরা। জানা গেছে, ত্রিপাঠির ৮০ বছর বয়সী মা ও তিন সহোদর আছে পরিবারে।


সূত্র: বিবিসি

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন