সদ্য সংবাদ

 কালকিনিতে ১৩১ বাড়িতে লাল নিশানা লাগিয়ে দিলো প্রশাসন  করোনার বিরুদ্ধে সাইফুল ইসলাম শান্তির অভিযান শুরু  রংপুরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  নরসিংদীতে হোম কোয়ারেন্টিনে ২০৫ প্রবাসী  কালকিনির বিভিন্ন হাট-বাজারে হাতধোয়ার জন্য বেসিন স্থাপন  পঞ্চগড়ে সাড়ে ৭শ’ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ  রংপুরে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  পার্বতীপুরে শুধুমাত্র পূজার মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী ‘বাহা পরব’ উদযাপিত  রংপুরে এরশাদের জন্মদিন পালিত  বিএফআরআইতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস পালিত  করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পঞ্চগড়ে জরুরি বৈঠক  আতঙ্কিত না হয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে : সাদ এরশাদ এমপি  কালকিনিতে দুই প্রবাসীকে আর্থিক জরিমানা  পঞ্চগড়ে সীমিত পরিসরে মুজিববর্ষ পালিত  রংপুরে ৮টি রাস্তা পাকাকরণ ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু  কালকিনিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে মুজিব উতসব পালিত  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  রংপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে কীটনাশক মুক্ত সবজির চাষ!

রিভিউ আবেদন করবেন মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মীর কাসেম

 Wed, Jun 8, 2016 8:30 AM
রিভিউ আবেদন করবেন মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মীর কাসেম

ডেস্ক রিপোর্ট ::: একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলী রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন (রিভিউ) করবেন বলে জানিয়েছে কাশিমপুর কারাগার কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার সকালে মীর কাসেমকে আদালতের মৃত্যু পরোয়ানা পড়ে শোনায় কারা কর্তৃপক্ষ। মৃত্যু পরোয়ানা শোনার পর রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করার কথা জানান মীর কাসেম।
কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২-এর সুপার প্রশান্ত কুমার বণিক জানান, মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে কনডেম সেলে মীর কাসেম আলীকে মৃত্যু পরোয়ানা পড়ে শোনানো হয়। ওই সময় তিনি বলেন, স্বজন ও আইনজীবীদের সঙ্গে কথা বলে আপিল বিভাগের রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করবেন।

যুদ্ধপরাধ মামলায় সর্বোচ্চ আদালতের রায়ের পর একমাত্র রিভিউ আবেদনই থাকছে বিচারিক প্রক্রিয়ার শেষ ধাপ।
নিয়ম অনুযায়ী, আসামিপক্ষ পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের ১৫ দিনের মধ্যে পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) জন্য আবেদন করার সুযোগ পাবে। রিভিউ নিষ্পত্তি হওয়ার আগে দণ্ড কার্যকর করা যাবে না।
মীর কাসেম আলীর ছেলে ব্যারিস্টার মীর আহমেদ বিন কাসেম জানিয়েছেন, রায়ের কপি হাতে পেলেই বাবার সঙ্গে আলোচনা করে রিভিউ করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। দু'একদিনের  মধ্যে তারা কাশিপুর কারাগারে যাবেন।
শীর্ষ যুদ্ধাপরাধী মীর কাসেমের মৃত্যুদণ্ড ব্হাল রেখে আপিলের পূর্ণাঙ্গ রায়ের অনুলিপি সোমবার দুপুরে প্রকাশ করা হয়। সন্ধ্যায় তা সুপ্রিমকোর্ট রেজিস্ট্রার জেনারেল কার্যালয় থেকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।
এরপর মীর কাসেমের মৃত্যু পরোয়ানা (ডেথ ওয়ারেন্ট) জারির পর রাতেই তা ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠিয়ে দেয় ট্রাইব্যুনাল কর্তৃপক্ষ।
কাশিমপুর কারাগার পার্ট-২ এর জেলার নাসির আহমেদ জানান, মীর কাসেম আলী ৪০ নম্বর কনডেম সেলে বন্দি রয়েছেন। তার মৃত্যু পরোয়ানা সোমবার রাতেই ট্রাইব্যুনাল থেকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। পরে ওই পরোয়ানার কপি রাত ১২টার দিকে বিশেষ ব্যবস্থায় কাশিমপুর কারাগারে পৌঁছায়।

তিনি জানান, রাত বেশি হয়ে যাওয়ার কারণে মঙ্গলবার সকালে মীর কাসেম আলীকে মৃত্যু পরোয়ানার আদেশ পড়ে শোনানো হয়। রায় পড়ে শোনানোর সময় তিনিসহ কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার পার্ট-২-এর জেল সুপার প্রশান্ত কুমার বণিক ও কারাগারে জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় একাত্তরের চট্টগ্রামের বদর কমান্ডার কুখ্যাত রাজাকার মীর কাসেমকে চিন্তিত দেখাচ্ছিল বলে জানা যায়। সমকাল

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন