সদ্য সংবাদ

 সরকার ইভিএমের ওপর ভর করেছে: মির্জা ফখরুল  নায়িকা দেখতে পাঁচ রাত ফুটপাতে কাটালেন এক ভক্ত   রোহিঙ্গাদের সঙ্গে যা করা হয়েছে তা গণহত্যার শামিল: আইসিজে   দেশকে সন্ত্রাস-দুর্নীতিমুক্ত করতে চাই: প্রধানমন্ত্রী  বাসাবাড়ির চুলায় নয়, শিল্পে গ্যাস দেব: সংসদে প্রতিমন্ত্রী  মেহেরপুরে ফেনসিডিল রাখার দায়ে যুবকের জেল  মেহেরপুর শ্মশানঘাট মন্দিরে ৩ দিনব্যাপী কালী পূজা  ডুমুরিয়ায় এমপি পুত্রের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন  কালিয়াকৈরে তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারীদের কর্মবিরতি  রংপুরে নিবন্ধনকৃত শিশুদের মাঝে স্কুল ব্যাগ বিতরণ  পলাশে শিক্ষার্থীদের মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিতকরণে অভিভাবকদের ভূমিকা শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত  পঞ্চগড়ে কালেক্টরেট সহকারী সমিতি’র উদ্যোগে কর্মবিরতি ও সমাবেশ  কালিয়াকৈরে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত  পার্বতীপুরে পল্লীশ্রী’র অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত  রংপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে  বাংলাদেশের নতুন বোলিং কোচ ওয়েস্ট ইন্ডিজের গিবসন  সিদ্ধিরগঞ্জে হত্যা মামলার পলাতক আসামি শরীফ গ্রেফতার  বিমানে লাগেজ হারালে বা নষ্ট হলে কেজি প্রতি লক্ষাধিক টাকা ক্ষতিপূরণ  ৯ লাখ নারী কর্মী বিদেশে গেছেন: প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী  ফতুল্লায় ধর্ষককে ছেড়ে দেওয়া যুবলীগ নেতা শ্যামল গ্রেফতার

রোহিঙ্গাদের নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করছেন ডায়মন্ড

 Mon, Oct 2, 2017 6:47 AM
রোহিঙ্গাদের নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করছেন ডায়মন্ড

ডেস্ক রিপোর্ট : : প্রথমবারের মতো রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করছেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র নির্মাতা সৈয়দ অহিদুজ্জামান ডায়মন্ড।

ছবিটি নির্মাণের জন্য ২০১২ সালে পরিকল্পনা করেছিলেন। এরপর থেকে প্রস্তুতি নিতে থাকেন নির্মাতা। দীর্ঘ সময় ধরে সিনেমার কাহিনী ও চিত্রনাট্য রচনা শেষে ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে তিনি শুটিং শুরু করেছেন।


শুটিং করছেন নাফ নদী, শাহপরী দ্বীপ, উখিয়া ও টেকনাফে। রোহিঙ্গাদের আগমনের ঢলের মধ্যেই পরিচালককে বেশ কষ্ট করে শুটিং করতে হচ্ছে বলে  জানিয়েছেন তিনি।


মূলত গত মাস থেকে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কী ঘটেছে, সেটি চলচ্চিত্র আকারে সংরক্ষণ করে ভবিষ্যতের ইতিহাস নির্মাণ করতে চাইছেন এ পরিচালক।


এ প্রসঙ্গে নির্মাতা বলেন, ‘ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চলে টানা তিনদিন শুটিং করলাম। সিনেমার জন্য যে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের দেখানোর কথা ছিল তা এখন বাস্তবেই বিদ্যমান। আমরা তাই শরণার্থীদের ভেতরে ঢুকে পড়েছি। বিষয়টি আমাদের জন্য বেশ কষ্টসাধ্য একটি বিষয়। তবে হাল ছাড়ছে না আমাদের টিম।’


চলচ্চিত্রটির ঐতিহাসিক দিকটি তুলে ধরে ডায়মন্ড বলেন, ‘২০১২ সালে যখন বাংলাদেশে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের অনুপ্রবেশ ঘটে তখনই বিষয়টি আমার মনে দাগ কাটে। অপেক্ষা করছিলাম ঘটনাটা কোনদিকে মোড় নেয় তা দেখার। এরপর বাংলাদেশে শরণার্থীরা এসে যখন ভিড়ল তখন আমার মনে হয়েছে এটাই আসলে চূড়ান্ত পর্যায়। এরপর রোহিঙ্গারা হয় থেকে যাবে নইলে আবার ফিরে যাবে। দেশের এ আন্তর্জাতিক প্রেক্ষাপট শুরু করেছি।’ ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছেন আরশি।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন