সদ্য সংবাদ

 গাইবান্ধায় প্রথম আলো ট্রাষ্টের ত্রাণ বিতরণ   মুজিবনগর স্মৃতিসৌধে পুষ্পার্ঘ অর্পন করলে দুই ডিসি   সাঘাটায় টাকা নিয়ে দলিল করে না দিয়ে উল্টো গাছ কর্তন  অস্ট্রেলিয়া থেকে সঙ্গা ও সপ্তক ফেরার পরই সমাহিত হবেন এন্ড্রু কিশোর  ঝিনাইদহে পথচারীদের মাঝে ট্রাফিক সার্জেন্ট মোস্তাফিজুর রহমানের মাস্ক বিতরণ  ঝিনাইদহে গাঁজাসহ আদালতে কর্মরত পুলিশ সদস্য আটক  ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বলসোনারো করোনায় আক্রান্ত   উপনির্বাচনের ব্যালটে ধানের শীষ না রাখার দাবি বিএনপির  ১৬ বছরেই মিলবে জাতীয় পরিচয়পত্র  কেনিয়ায় স্কুল শিক্ষাবর্ষ থেকে ২০২০ সাল ‘হাওয়া’   অনলাইন প্রতারক চক্রের মূল হোতা আটক  বাংলাদেশ থেকে ইতালির সব ফ্লাইট বন্ধ   তদন্তের স্বার্থে প্রকাশ করা যাচ্ছে না লঞ্চ দুর্ঘটনার কারণ : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী   রিজেন্ট হাসপাতাল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।  নারায়ণগঞ্জ জেলা পিবিআই'র পুলিশ সুপার পদে মনিরুল ইসলামের যোগদান   কুড়িগ্রামের ডিসি সুলতানার বিরুদ্ধে আবারও তদন্ত হবে   রাজধানীর রিজেন্ট হাসপাতালে টেস্ট ছাড়াই করোনা পজিটিভ-নেগেটিভ সনদ  অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোশারফ হোসেন যোগ দিলেন নারায়ণগঞ্জে   রাত থেকেই আন্তর্জাতিক ফ্লাইটে আবারো নিষেধাজ্ঞা  এবার ভুটানের একটি অঞ্চল দাবি করছে চীন

সিনেমা হল কারো বাপের জমিদারি না

 Sun, Jul 16, 2017 10:07 AM
সিনেমা হল কারো বাপের জমিদারি না

ডেস্ক রিপোর্ট : : জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আব্দুল আজিজকে ইঙ্গিত করে প্রযোজক

 ও অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল আরো বলেছেন, সিনেমা হল কারো বাপের না। একশো সিনেমা হলে প্রজেকটর বসাইছে বলে সিনেমা হল উনার? উনার ইচ্ছা হইলে সিনেমা চলবে, না হইলে চলবে না, এটা বললে হবে না। প্রজেক্টর বসাইছে, যার ছবি যাবে তার ছবিই চালাতে হবে। এটা কারো বাপের জমিদারি না যে, আপনি না করে দিলেন অমুকের ছবি চলবে আর তমুকের ছবি চলবে না। আমিও দেখবো আপনার সিনেমা হলে ছবি চলে কিভাবে?


বৃহস্পতিবার টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রের বর্তমান সংকট কাটিয়ে উঠতে এফডিসিতে আয়োজিত এক মতবিণিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। এসময় ডিপজল আরো বলেন, সরকার বলছিলো যে ৫০টি সিনেমা প্রজেক্টর দিবে। আমি বলছি, আমি নিজেই একশো হলে প্রজেক্টর দিবো ইনশাল্লাহ্। আর আপনাদের যেকোনো সহায়তায় আমি পাশে আছি।


মনোয়ার হোসেন ডিপজল বলেন, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রের সবাইকে নিয়ে একটা ফেডারেশন করলে আমরা বাঁচতে পারবো। ফিল্মটা থাকবে। ইন্ডাস্ট্রিটা ধ্বংস হবে না। এই ইন্ডাস্ট্রি ধ্বংস করার জন্য ধুম পরিকল্পনা চলছে। এখানেও ইন্ডিয়ান দালাল ঢুকে গেছে।


মতবিনিময় সভায় উপস্থিত হন টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র নির্মাতাসহ অভিনয় শিল্পী সংঘের নেতারাও। এসময় সকলে টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রের মানুষদের নিয়ে একটি ফেডারেশন গঠনের আহ্বান জানান।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন