সদ্য সংবাদ

 সবাইকে মাস্ক পরার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর  'প্রতারক' লিটন শিকদার গ্রেপ্তার  ফতুল্লার ভূইঘরে রক্সি ফোম কারখানায় আগুনের ঘটনায় মামলা ॥ গ্রেফতার ১   উৎকোচ নিয়ে ও প্রতিবন্ধির টাকা ও কার্ড কেড়ে নিলেন ইউপি সদস্যা  নবীনগরে ইলিশ মাছ ধরার দায়ে জরিমানা  মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে ভারতে প্রবেশকালে ১১ জন আটক  ঝিনাইদহে শিক্ষানবিশ আইনজীবিদের মানববন্ধন  শৈলকুপায় এলজিইডি’র কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন  দুর্নীতির দায়ে কারাগারে সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ  প্রাথমিকে ৩০ হাজার শিক্ষক নিয়োগে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ  রূপগঞ্জে বিএনপির মঞ্চে উঠে হামলা, মান্না-তৈমূর আহত  রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে না পাঠাতে আন্তর্জাতিক চাপ রয়েছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী   র‌্যাম্প মডেল তৈরির নামে ভয়ঙ্কর ফাঁদ   সাঘাটায় নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং র‌্যালী অনুষ্ঠিত   খুলনার কৃষি কর্মকর্তা মিজানের বিরুদ্ধে অভিযোগের পাহাড়  সিইসি মিথ্যা বলছেন, ঢাকা থেকেই ১৬২টি অভিযোগ দেয়া হয়েছে: ফখরুল  নারায়ণগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবকলীগ সম্পাদক সন্ত্রাসী মীরু আটক   কারাবাখে ৭ শতাধিক আর্মেনীয় যোদ্ধা নিহত   শিশুদের উন্নত ভবিষ্যত দিতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী  মিঠুন পুত্রের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

সুন্দরী অফিসারের হাতে গ্রেফতার হতে চান অপরাধীরা!

 Fri, Nov 24, 2017 3:51 AM
সুন্দরী অফিসারের হাতে গ্রেফতার হতে চান অপরাধীরা!

ডেস্ক রিপোর্ট : : সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সম্প্রতি এক সুন্দরী পুলিশ কর্মকর্তার ছবি নিয়ে বেশ সোরগোল চলছে ভারতে।

দেশটির অন্ধকার জগতের রথী-মহারথী ছাড়াও পুচকে অপরাধীরা নাকি এই পুলিশ কর্মকর্তার হাতে গ্রেফতার হওয়ার জন্য আকুল হয়ে উঠেছেন।


পাঞ্জাবের এই নারী পুলিশ কর্মকর্তার নাম ‘হরলীন মান’। মাঝারি উচ্চতার গৌরবর্ণ এই পুলিশ অফিসার সম্প্রতি চাকরিতে বহাল হয়েছেন বলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কথা চলছে।


তবে পাঞ্জাবের এই নারী পুলিশ কর্মকর্তা কিন্তু আসল পুলিশ নন। এই সুন্দরী পুলিশ অফিসার ‘গ্রেট গ্র্যান্ড মাস্তি’ ছবিতে চুটিয়ে অভিনয় করেছিলেন। সেই ছবিতে তার অ্যাপিয়ারেন্স সেবারও মাথা ঘুরিয়ে দিয়েছিল দর্শকদের।


এই সুন্দরী পুলিশ কর্মকর্তার নাম কাইনাত অরোরা। ‘জগ্গা জিউনদা ই’ নামে একটি পাঞ্জাবি ছবিতে ‘হরলীন মান’ নামে পুলিশ অফিসারের ভূমিকায় অভিনয় করছেন তিনি।


ছবিতে তার সঙ্গে অভিনয় করছেন জ্যাকি শ্রফ ও দলজিৎ কলসি। সম্প্রতি সেই ছবির শুটিংয়ের কয়েকটি ছবি নিজের ইনস্টাগ্রাম পেজে আপলোড করেছিলেন তিনি। আর মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে গেছে তার ছবি।


এর মধ্যে ছিল পুলিশি পোশাকের ছবি, যা ছড়িয়ে পড়ে হাতে হাতে। সবাই ভেবে ফেলেন- সত্যিই হরলীন নামে ওই রকম চোখ ধাঁধানো সুন্দরী পুলিশ অফিসার নিয়োগ হয়েছে পাঞ্জাবে।


এতে বেশ বিড়ম্বনায় পড়েছেন কাইনাতও।


দেশটির গণমাধ্যমকে কাইনাত বলেন, প্রথমবার যখন শুনেছিলাম আমার ছবি কেউ পাঞ্জাবি পুলিশ অফিসার পরিচয় দিয়ে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দিয়েছেন, তখন বেশ ঘাবড়েই গিয়েছিলাম। এর পর একের পর এক ফোন ও মেসেজ আসতে শুরু করে। প্রশংসায় ভরে গিয়েছিল মেসেজ বক্স।


সবাই তো চাইছেন আপনার হাতেই গ্রেফতার হতে, এমন প্রশ্নে কাইনাতের উত্তর- ‘আমি আপ্লুত।’

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন