সদ্য সংবাদ

  রোববার থেকে হিফজ মাদ্রাসা খোলার অনুমতি   সাংবাদিক রাশীদ উন নবী বাবু আর নেই   ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনা ৫০ হাজার টাকায় আপোষ রফা   এশিয়া কাপ বাতিল, বিশ্বকাপ না হলে আইপিএলের সম্ভাবনা : গাঙ্গুলী   ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনায় সংসদে বিল পাস   ১২৫ বাংলাদেশিকে বিমান থেকে নামতে দিচ্ছে না ইতালি   দেশে করোনা শনাক্তে ফি আরোপ অমানবিক, আত্মঘাতী: টিআইবি  যুক্তরাষ্ট্রের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি চীন: এফবিআই  রূপকথাকেও হার মানায় রিজেন্টের সাহেদের উত্থান  জনকল্যাণকর কর্মসূচি দিয়ে মানুষের পাশে থাকবো : আমু  সংসদে দাঁড়িয়ে কাঁদলেন প্রধানমন্ত্রী  সাঘাটায় বাঙ্গালী নদীর পানি কমার সাথে ভয়াবহ ভাঙন  পঞ্চগড়ে প্রণোদনার দাবিতে কিন্ডারগার্টেন শিক্ষককদের কর্মসূচি  গাইবান্ধায় প্রথম আলো ট্রাষ্টের ত্রাণ বিতরণ   মুজিবনগর স্মৃতিসৌধে পুষ্পার্ঘ অর্পন করলে দুই ডিসি   সাঘাটায় টাকা নিয়ে দলিল করে না দিয়ে উল্টো গাছ কর্তন  অস্ট্রেলিয়া থেকে সঙ্গা ও সপ্তক ফেরার পরই সমাহিত হবেন এন্ড্রু কিশোর  ঝিনাইদহে পথচারীদের মাঝে ট্রাফিক সার্জেন্ট মোস্তাফিজুর রহমানের মাস্ক বিতরণ  ঝিনাইদহে গাঁজাসহ আদালতে কর্মরত পুলিশ সদস্য আটক  ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বলসোনারো করোনায় আক্রান্ত

স্বামীর জামিনের বিরোধিতায় কান্নায় ভেঙে পড়েন মিলা

 Wed, Nov 15, 2017 3:48 AM
স্বামীর জামিনের বিরোধিতায় কান্নায় ভেঙে পড়েন মিলা

ডেস্ক রিপোর্ট : : স্বামী পারভেজ সানজারির জামিন আবেদনের শুনানিতে এজলাসে দাঁড়িয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন কণ্ঠশিল্পী মিলা ইসলাম।

ঢাকা মহানগর দায়রা জজ মো. কামরুল হোসেন মোল্লার আদালতে সানজারির জামিনের আবেদনের ওপর শুনানি হয়।


যৌতুকের দাবিতে মারধরের মামলায় সোমবার জামিনের বিরোধিতায় এজলাসে উঠে স্বামীর নির্যাতনের বর্ণনা দেয়ার সময় কেঁদে ফেলেন মিলা।  


মিলা দাবি করেন, বিয়ের চারদিন পর জোর করে আমাকে তালাক দিতে বলে সানজারি। আমি রাজি না হওয়ায় আমার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে। বিয়ের আগে তার সঙ্গে আমার ১১ বছরের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ১১ বছরে কোনো সমস্যা হয়নি। কিন্তু বিয়ের চারদিনের মধ্যে তার আচরণ পরিবর্তন হয়ে যায়। আমি তার জামিন নামঞ্জুরের জন্য আদালতের কাছে অনুরোধ করছি।


এ কথা বলেই মিলা কান্নায় ভেঙে পড়েন। পরে আসামিপক্ষের আইনজীবীকে বাদীর সঙ্গে মীমাংসা করতে বলে আগামী ২৭ নভেম্বর পর্যন্ত সানজারির জামিনের মেয়াদ বাড়িয়ে দেন বিচারক।


এর আগে গত ২৫ অক্টোবর সানজারিকে অন্তর্বতী জামিন দিয়েছিলেন একই বিচারক। সোমবার মেয়াদ শেষ হলে আইনজীবী কাজী নজিবুল্যাহ হীরুর মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে ফের জামিনের আবেদন করেন সানজারি।


গত ৫ অক্টোবর রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় মারধর ও যৌতুকের অভিযোগে মিলা বাদী হয়ে মামলাটি করেন। মামলা দায়েরের পরই সানজারিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।


মামলার অভিযোগে বলা হয়, বিয়ের পর পর্যায়ক্রমে কয়েকবার মারধরের ঘটনা ঘটেছে। সর্বশেষ চলতি মাসের ৩ অক্টোবর মিলাকে মারধর করেন তার স্বামী। এর আগে স্বামী ৫ লাখ টাকা যৌতুক নিয়েছেন। আরও ১০ লাখ টাকা দাবি করলে তা না পেয়ে মিলাকে মারধর করা হয়।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন