সদ্য সংবাদ

 দুবাইয়ের ব্যবসায়ীর সঙ্গে বাগদান সারলেন বেনজিরের মেয়ে   বর্তমান সরকারের পতনের অবস্থা চলছে: ডা. জাফরুল্লাহ   বঙ্গবন্ধু রেলসেতুর ব্যয় হবে ১৭ হাজার কোটি টাকা  পঞ্চগড়ে কৃষকদের মাঝে সার-বীজ বিতরণ   নারায়ণগঞ্জ সদর থানার নতুন ওসি ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত  ঝিনাইদহ আইনজীবী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত  মোবারকগঞ্জ চিনিকল শ্রমিকদের মানববন্ধন  ডেপুটি স্পিকার অ্যাড.ফজলে রাব্বীকে গণসংবর্ধনা  যুক্তরাজ্যে নারীদের 'কুমারীত্ব পরীক্ষার'   পার্বত্য চট্টগ্রামের বছরে ৪শ’কোটি টাকার চাঁদাবাজি   না’গঞ্জে অবৈধ যানবাহনের দাপটে ঘটছে দুর্ঘটনা।   বাল্যবিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর ক্ষোভ   ‘প্রিয় বন্ধু’র মৃত্যুর দিনেই বিদায় নিলেন ম্যারাডোনা   নারীদের ‘জানোয়ারের’ সঙ্গে তুলনা করলেন ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী   কৌশানী মুখার্জির `ফিগার সিক্রেট’  বনানী কবরস্থানে শায়িত হলেন আলী যাকের  বিশ্বকে নেতৃত্ব দিতে এসেছে আমেরিকা: বাইডেন   দ্রুত ভ্যাকসিন পেতে সব প্রস্তুতি নিয়েছে সরকার: কাদের   চাল-তেলসহ বেড়েছে ৮ নিত্যপণ্যের দাম   করোনার মধ্যেই ডেঙ্গুর হানা, ২৪ ঘণ্টায় ১৮ রোগী হাসপাতালে

হানিফ ফ্লাইওভারের নীচে আবর্জনার ভাগাড়

 Sat, Nov 5, 2016 2:41 PM
হানিফ ফ্লাইওভারের নীচে আবর্জনার ভাগাড়

ডেস্ক রিপোর্ট:: মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারের রাস্তা যতটা সুন্দর তার নিচের পরি¯ি’তি ঠিক ততটাই অসুন্দর। ফ্লাইওভারের নিচে ডিভাইডারের চওড়াখালি জায়গায় গাছ লাগানোর কথা থাকলেও তা হয়নি।

 বরং সে জায়গা এখন পরিণত হয়েছে ভাগাড়ে। ময়লা-আবর্জনার পাশাপাশি ধূলা, বালির উৎসও এই জায়গাগুলো। পরি¯ি’তি এমনই যে, ফ্লাইওভারের নিচ দিয়ে যাত্রাবাড়ী থেকে গুলিস্তান পর্যন্ত আসতে আসতেই যাত্রীদের চুলে সাদা আস্তরণ পড়ে যায় ধূলার।

সরেজমিনে দেখা গেছে, যাত্রাবাড়ী থেকে সায়েদাবাদ হয়ে গুলিস্তানের জয় কালীমন্দির পর্যন্ত ডিভাইডারের খালি জায়গাগুলো ডাস্টবিন হিসেবে ব্যবহার করা হ”েছ। স্তূপ করে রাখা হয়েছে ময়লা-আবর্জনা। আর যাত্রাবাড়ী টু ডেমরা র“ট এবং যাত্রাবাড়ী টু পোস্তগোলার রাস্তায় খানা খন্দ এতই বড় যেন এক একটি বিশাল পুকুর অর টিলার অব¯’ান রাস্তায়। দেখে বুঝার উপায় নেই এটি একটি দেশের প্রধান সড়কগুলোর মধ্যে অন্যতম। রাস্তাটি এতটা ঝুঁকিপূর্ণ যে, প্রাইভেট কারসহ ছোট ছোট গাড়িগুলো প্রায়ই ওই রাস্তায় আটকে যায়। প্রতিনিয়তই ঘটে দুর্ঘটনা।

বৃহস্পতিবার সকালে চাকরিজীবী তরিকুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, এ ফ্লাইওভারের নিচের রাস্তা পরিকল্পিতভাবেই ভাগাড় বানিয়ে রাখা হয়েছে। তাছাড়া ফ্লাইওভার নির্মাণের পর থেকেই নিচের রাস্তা খারাপ। কখনই ঠিকভাবে এ রাস্তা ব্যবহার উপযোগী করা হয় না। এটা হতে পারে গাড়িগুলো যেন বাধ্য হয়ে হলেও ফ্লাইওভার ব্যবহার করে সেজন্য। আরেক চাকরিজীবী মাহমুদুল হাসান শামস্ ক্ষুব্ধ কণ্ঠে বলেন, দেশের আর কোনো ফ্লাইওভারে উঠতে টাকা দেয়া লাগে না। হানিফ ফ্লাইওভারে উঠলেই টাকা গুণতে হয়। তাই ফ্লাইওভারের নিচের রাস্তা হয়তো ই”ছা করেই ব্যবহার অনুপযোগী রাখা হয়, অন্যথায় গাড়িগুলো নিচ দিয়ে চলাচল করতে পারে।

এলাকাবাসী বলছেন, ফ্লাইওভারের নিচে কাজলা থেকে গুলিস্তান ও পোস্তগোলা থেকে যাত্রাবাড়ীর রাস্তা দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না করায় প্রতিদিনই এখানে ছোটখাটো দুর্ঘটনা ঘটছে। আহত হ”েছন— রিকশা, বাইসাইকেল, মোটরসাইকেলসহ ছোট যানবাহনের আরোহীরা। ধূলার তীব্রতায় এ পথে হাঁটার সময় নিশ্বাস নেয়াই কষ্টকর। ¯’ানীয়রা বলছেন, ফ্লাইওভারের নিচে অনেকদিন ধরে জমে থাকা মাটি, ময়লা-আবর্জনা শুকিয়ে যাওয়ায় পুরো রাস্তা ধূলাবালিতে ভরে গেছে। তার উপর ডিভাইডারের খালি অংশে স্তূপ করে মাটি ফেলে রাখায় সেখান থেকে ধূলা উড়ছে। এতে সবচেয়ে বড় সমস্যায় পড়েছেন আশপাশের এলাকার বাসিন্দারা। সায়েদাবাদের বাসিন্দা কাওসার আলম বলেন, রাস্তার পাশে বাসা হওয়ায় প্রতিদিন বাসায় ধূলার আস্তরণ জমে যায়। আর শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা তো বড় সমস্যা হয়ে দেখা দিয়েছে। পরিবারের সবার মধ্যেই সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্ট লেগেই থাকে। রাস্তার পরিবেশ এমন হওয়ায় রাস্তের পাশের দোকানগুলোর ব্যবসা বাণিজ্যও ভালো নেই। দোকানিরা বলছেন, বর্ষার সময় কাদা আর শীতের সময় ধূলা-বালিতে পরি¯ি’তি এমন হয়েছে যে, এখানে মানুষ এক মিনিটও দাঁড়াতে চায় না। ফলে রাস্তার আশেপাশের দোকানগুলোতে কেউ কিছু কিনতে আসতে চান না। ইত্তেফাক


Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন