সদ্য সংবাদ

 কালকিনিতে ১৩১ বাড়িতে লাল নিশানা লাগিয়ে দিলো প্রশাসন  করোনার বিরুদ্ধে সাইফুল ইসলাম শান্তির অভিযান শুরু  রংপুরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  নরসিংদীতে হোম কোয়ারেন্টিনে ২০৫ প্রবাসী  কালকিনির বিভিন্ন হাট-বাজারে হাতধোয়ার জন্য বেসিন স্থাপন  পঞ্চগড়ে সাড়ে ৭শ’ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ  রংপুরে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  পার্বতীপুরে শুধুমাত্র পূজার মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী ‘বাহা পরব’ উদযাপিত  রংপুরে এরশাদের জন্মদিন পালিত  বিএফআরআইতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস পালিত  করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পঞ্চগড়ে জরুরি বৈঠক  আতঙ্কিত না হয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে : সাদ এরশাদ এমপি  কালকিনিতে দুই প্রবাসীকে আর্থিক জরিমানা  পঞ্চগড়ে সীমিত পরিসরে মুজিববর্ষ পালিত  রংপুরে ৮টি রাস্তা পাকাকরণ ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু  কালকিনিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে মুজিব উতসব পালিত  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  রংপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে কীটনাশক মুক্ত সবজির চাষ!

‘ছেলেকে মানুষ করছি, ডজনখানেক প্রেম করছি না’

 Mon, Jul 10, 2017 1:13 PM
‘ছেলেকে মানুষ করছি, ডজনখানেক প্রেম করছি না’

এশিয়া খবর২৪ ডেস্ক :: ঘর ভাঙার জন্য তানজিন তিশার দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে হইচই ফেলে দিয়েছেন সঙ্গীতশিল্পী হাবিবের সাবেক স্ত্রী রেহান।


 শনিবার দুপুর থেকে মিডিয়াপাড়ায় টক অব দ্য টপিকসে উঠে এসেছে এই ইস্যু। তবে রেহানের এসব অভিযোগে প্রত্যাখ্যান করেছেন তিশা। আর তাদের এই অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ নিয়ে শনিবার রাতে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দেন হাবিব। যেখানে তিনি তুলে ধরেন বেশ কিছু প্রসঙ্গ। এদিকে হাবিবের স্ট্যাটাসের অনেকটা প্রতিউত্তর আকারে ফেসবুকে জবাব দিয়েছেন রেহান। সেখানে তিনি লিখেছেন-


বাহ! বেশ লিখেছেন হাবিব ওয়াহিদ, আসলেই বিচ্ছেদের আগে কেন বলিনি। কারণ, আমি জানতাম শ্রদ্ধা কী জিনিস আপনি একটু হলেও বুঝেন! কিন্তু সেটা তো আরও প্রমাণ করলেন বিচ্ছেদের পরে। আপনি যেই পার্সোনাল পার্সোনাল করেন না তাকে দিয়ে। কেন ভাই আপনারা আমাকে অপমান করার কে?


ছেলেকে নিয়ে আমি তো ভালোই ছিলাম আর আছি। বলেন, আপনার গার্লফ্রেন্ডের সমস্যা কী আমাকে নিয়ে? আর এখন আবার স্ট্যাটাস দেন? আপনি আমার দেনমোহর পরিশোধ করেছেন ভালো। তাই বলে কি আমি আপনার গোলাম অথবা আপনাদের গোলাম? যে যা ইচ্ছে বলবেন? আপনার প্রিয়তমাকে আগে তার চিন্তা আর মুখের ভাষা ঠিক করতে বলেন। আর আমাকে টাকা দিয়ে অপমান করা কী আজও বন্ধ করতে পারলেন নাকি আদৌ পারবেন?


শুনুন, স্ট্যাটাস দিলেই হয় না। আর আমারও ইচ্ছে নেই আপনাদের নিয়ে কাদা মারার খেলা নিয়ে। সেলিব্রেটি হইছেন, কোন রাজা হয়েছেন? আগে নিজেদের ভাষা ও বিবেক ঠিক করলে ভালো হয়। আমি ভাই পাগলও না ছাগলও না, ওকে। এমন হলে পাঁচ বছর সংসার কেমনে করেছিলাম? সব কিছুর একটা কারণ থাকে। ঠিক তেমনি আমার অভিযোগও আছে। প্রেম করছেন ভালো কথা। কিন্তু অন্যদের শান্তি নষ্ট করেন কেন? আপনার ছেলেকে মানুষ করছি আমি। ডজনখানেক প্রেমও করছি না। বুঝলেন, এত কিছুর মধ্যেও বাচ্চাকে আদর-মমতা দিয়ে আগলে রেখেছি।


আর কিছু বলব না। আগে আপনারা আমাকে মানসিক নির্যাতন বন্ধ করেন। তারপর দেখবেন সব ঝামেলাও শেষ হবে। আর হ্যাঁ, আপনার স্ট্যাটাস মানে সব সত্য, তাও কিন্তু ভুল! মিস্টার হাবিব ওয়াহিদ! ভালো থাকুন আর আমাকে তৃতীয় ব্যক্তি দিয়ে নির্যাতন বন্ধ করুন।


(ওহ! এবং হ্যাঁ আপনার জন্য একটা ভালো উপদেশ। মিথ্যা বলা ছেড়ে দেন। মিথ্যা বলে আর কত পার পাবেন? আপনি কতবড় মিথ্যুক আমি ভালো করেই জানি)

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন