সদ্য সংবাদ

 কালকিনিতে ১৩১ বাড়িতে লাল নিশানা লাগিয়ে দিলো প্রশাসন  করোনার বিরুদ্ধে সাইফুল ইসলাম শান্তির অভিযান শুরু  রংপুরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  নরসিংদীতে হোম কোয়ারেন্টিনে ২০৫ প্রবাসী  কালকিনির বিভিন্ন হাট-বাজারে হাতধোয়ার জন্য বেসিন স্থাপন  পঞ্চগড়ে সাড়ে ৭শ’ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ  রংপুরে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  পার্বতীপুরে শুধুমাত্র পূজার মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী ‘বাহা পরব’ উদযাপিত  রংপুরে এরশাদের জন্মদিন পালিত  বিএফআরআইতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস পালিত  করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পঞ্চগড়ে জরুরি বৈঠক  আতঙ্কিত না হয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে : সাদ এরশাদ এমপি  কালকিনিতে দুই প্রবাসীকে আর্থিক জরিমানা  পঞ্চগড়ে সীমিত পরিসরে মুজিববর্ষ পালিত  রংপুরে ৮টি রাস্তা পাকাকরণ ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু  কালকিনিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে মুজিব উতসব পালিত  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  রংপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে কীটনাশক মুক্ত সবজির চাষ!

‘বিয়ে ও লিভ টুগেদারের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই’

 Mon, Aug 21, 2017 11:48 AM
‘বিয়ে ও লিভ টুগেদারের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই’

ডেস্ক রিপোর্ট : : বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ইলিয়ানা ডি ক্রুজ। রুস্তম সিনেমায় তার উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

 এবার বিয়ে ও লিভ টুগেদার নিয়ে মুখ খুললেন তিনি।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম মিড ডে’কে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমার কাছে মনে হয় বিয়ে ও লিভ টুগেদারের মধ্যে সত্যি কোনো পার্থক্য নেই। এটা শুধু মাত্র দু’ টুকরো কাগজের মধ্যে সীমাবদ্ধ। অনেকেই বিয়েটাকে বিরাট কিছু মনে করেন। এটি দু’টো মানুষের অনেক কিছুই পরিবর্তন করে। কিন্তু বিষয়টিকে আমি সেভাবে দেখি না। তার প্রতি আমার প্রতিশ্রুতি কখনো পরিবর্তন হবে না।


এ মুহূর্তে তার অভিনীত ‘বাদশাহো’ ছবির প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন এ অভিনেত্রী। তার এমন বক্তব্যে হৈ চৈ পড়ে গেছে বলিউডে। ইলিয়ানার প্রেমিকের নাম এন্ড্রু নিবোন। তিনি অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক।


প্রেমিকের বিষয়ে বরাবরই খোলামেলা ইলিয়ানা। এইতো গেলো জুনেই বয়ফ্রেন্ড অ্যান্ড্রু নিবোনের সঙ্গে নিরিবিলি সময় কাটানোর জন্য ফিজি দ্বীপে গিয়েছিলেন তিনি। সেখান থেকে সোশ্যাল মিডিয়াতে বেশ কিছু ছবিও শেয়ার করেছিলেন ইলিয়ানা।


‘বরফি’ ও ‘ফাটা পোস্টার নিকলা হিরো’ ছবি দুটি বলিউডে ব্যাপক পরিচিতি এনে দেয় ইলিয়ানাকে। মুম্বাইয়ের মেয়ে হলেও ২০০৬ সালে তামিল ও তেলেগু ছবি দিয়েই ইলিয়ানার অভিনয় যাত্রা শুরু হয়। পোকিরি, জলসা, কিক, জুলায়ি’র মতো সুপারহিট ছবিগুলো তাকে সেখানকার শীর্ষ অভিনেত্রীরূপে প্রতিষ্ঠিত করেছে। ২০০৬ সালে তেলেগু ছবি 'দেবদাসু'-তে অভিনয়ের জন্য বছরের সবচেয়ে সম্ভাবনাময় অভিনেত্রীর পুরস্কার পান তিনি।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন