সদ্য সংবাদ

 হঠাৎ এক মঞ্চে বাবু-শামীম-সেলিম ওসমান -আইভীর চ্যালেঞ্জ   মেয়র আইভীকে নিয়ে মাওলানা আব্দুল আউয়ালের বিভ্রান্তকর বক্তব্যের ব্যাখ্যা  ভালো কাজ করতে অনেক লোকের প্রয়োজন হয়  সৌদির বিমান বন্দরে হুতির হামলা, বিমানে আগুন  নির্বাচনের ক্রমবর্ধমান ঘটনায় উদ্বিগ্ন মাহবুব তালুকদার  অনেকের চেয়ে ভালোভাবে ভ্যাকসিন সংগ্রহ করেছি : প্রধানমন্ত্রী   মিয়ানমারের বিক্ষোভকারীদের হুশিয়ারি সামরিক জান্তার  থানার দায়িত্ব এসপিদের দিতে সুপারিশ করেছে দুদক  পুলিশ সুপার পদমর্যাদার ১২ কর্মকর্তাকে বদলি  রূপগঞ্জের কায়েতপাড়ায় ইউপি নির্বাচনকে ঘীরে প্রচরণায় মুখর  পঞ্চগড়ে কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচীর উদ্বোধন  ১৮ টি আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী -ডেপুটি স্পিকার  আসন্ন সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে আইভীই পাচ্ছেন নৌকা   ভিসা নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার, বাধা কাটল দ. কোরিয়ায় প্রবেশের  রোহিঙ্গা সঙ্কটের একমাত্র সমাধান প্রত্যাবাসন : তুরস্ক   ২০ বছর বয়সেই কোটিপতি প্রতারক দীপু  নিরাপদ খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত করতে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী  ভোটে অনীহা গণতন্ত্রের জন্য অশনিসংকেত, সংসদে বিরোধী এমপিরা   সুন্দর নারায়ণগঞ্জ গড়তে সকলের সহযোগিতা চান ডিসি   ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত হত্যার ‘নির্দেশদাতা’ আওয়ামী লীগ নেতা মাসুম

অপু বিশ্বাসের সঙ্গে বাপ্পীর প্রেমের গুঞ্জন! মুখ খুলবেন অপু

 Wed, Dec 6, 2017 5:45 AM
 অপু বিশ্বাসের সঙ্গে বাপ্পীর প্রেমের গুঞ্জন! মুখ খুলবেন অপু

এশিয়া খবর২৪ ডেস্ক :: অপু বিশ্বাসকে ডিভোর্স দিতে যাচ্ছেন শাকিব খান। গতকাল তিনি অপুর বাসায় ডিভোর্স লেটার পাঠিয়েছেন।

 সেখানে ডিভোর্সের কারণ হিসেবে শাকিব বেশ কিছু কারণ দেখিয়েছেন। এর একটি হচ্ছে, একমাত্র সন্তান আব্রাম খান জয়কে তালাবদ্ধ রেখে কথিত ‘বয়ফ্রেন্ড’ নিয়ে অপু কলকাতায় গেছেন!


কিন্তু কে সেই বয়ফ্রেন্ড তা নিয়ে মুখ খুলেননি শাকিব। তবে চাউর হয়েছে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের সঙ্গে গোপনে প্রেম করছেন চিত্রনায়ক বাপ্পী চৌধুরী। অনেকদিন ধরেই তারা হৃদয়ঘটিত সম্পর্কে জড়িয়েছেন। সম্প্রতি চিকিৎসার নাম করে বাপ্পীর সঙ্গেই কলকাতায় বেড়াতে গিয়েছেন অপু। সবখানেই এখন গুঞ্জন, অপুর কথিত প্রেমিক বলতে শাকিব ইঙ্গিত করেছেন বাপ্পীকেই।


এই গুঞ্জনের ব্যাপারে জানতে চাইলে বাপ্পী বিরক্তি প্রকাশ করে এই প্রতিবেদককে বলেন, ‘হঠাৎ করেই কেন এই ডিভোর্সের সঙ্গে আমার নাম জড়ালো বুঝতেই পারছি না। গুঞ্জন নিয়ে আমার মাথাব্যাথা নেই। কারণ সিনেমা করতে এসে অনেকবারই প্রেমের গুঞ্জনের শিকার হয়েছি। কেউ কেউ আমার বিয়ের খবরও ছেপেছেন। তবে অপু বিশ্বাসের সঙ্গে আমার প্রেমের গুঞ্জন আমাকে লজ্জিত করেছে, বিব্রত করেছে। কারণ প্রথম কথা তিনি আমার সিনিয়র অভিনেতার স্ত্রী, দ্বিতীয়ত অপু বিশ্বাস নিজেও আমার সিনিয়র।’


সিনিয়রের সঙ্গে তো জগতজুড়ে অনেক জুনিয়রই প্রেম করছে। আপনার বেলায় হাস্যকর হবে কেন? প্রেম না করার জন্য এটা কোনো লজিক হতে পারে? এই প্রশ্নের জবাবে বাপ্পী বলেন, ‘তা হয়তো হতে পারে না। তবে আমি বেয়াদব নই। অপু বিশ্বাস আমর বোনের মতো। এখন পর্যন্ত যতোবার দেখা হয়েছে, কথা হয়েছে তাকে অপু দি বলেই সম্বোধন করেছি। তিনিও আমাকে ছোট ভাইয়ের মতো দেখেন। তার সঙ্গে প্রেম কীভাবে সম্ভব?


তার সঙ্গে কলকাতায় লুকিয়ে বেড়াতে যাবারও কোনো মানে নেই। উনি যখন কলকাতায় তখন আমি ঢাকাতেই। এর অনেক প্রমাণ আছে। আমি তার ভাইয়ের মতো, তার আমন্ত্রণে জয়ের জন্মদিনে ছুটে গেছি। একটা মহল উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এইসব কথা রটাচ্ছেন আমার ক্যারিয়ারকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে।’


বাপ্পী আরও বলেন, ‘শাকিব ভাই যদি আমার দিকে কোনো ইঙ্গিত করে থাকেন সেটা একেবারেই ভুল বোঝাবুঝি হবে। এবং আমি নিশ্চিত আমার বিরুদ্ধে তাকে ক্ষেপিয়ে তুলতেই কেউ তার কানে এই মিথ্যে তথ্য ছড়িয়েছে। যেহেতু আমাকে তিনি নিজে জিজ্ঞেস করেননি বা আমার নামও কোথাও বলেননি তাই এটা নিয়ে আমি ভাবছি না। এইসব বিষয়ে আমাকে কোনো প্রশ্ন না করা হলেই আমি খুশি হবো। আমাদের সিনেমার খারাপ সময় যাচ্ছে। সেইসব দিকগুলোতে ফোকাস না করে অযথা ব্যক্তিগত বিষয়ে সবাই মেতে উঠেছি। এটা একেবারেই ভিত্তিহীন।’


গুজব ছড়িয়েছে, মেলামেশার সুবিধার জন্য নিজের বাসার পাশে বাপ্পীকে বাসা ভাড়া নিতে পরামর্শ দিয়েছিলেন অপু। এই কথা সত্যি কী না জানতে চাইলে বাপ্পী বলেন, ‘প্রশ্নই আসে না। তিনি কেন আমাকে বাসা নিতে বলবেন। এশিয়ান টিভির এক অনুষ্ঠান শেষে অপু দি’র বাসার নিচে তার সঙ্গে দেখা হয়। 


সেখানে আরও অনেকেই ছিলেন সেদিন। উপস্থিত ছিলেন অপু দি’র বাসার ম্যানেজারও। কথায় কথায় তিনিই আমাকে বলছিলেন যে অপু দিসহ অনেকের বাসা তিনি ঠিক করে দিয়েছেন। তার কাছে আরও বেশ কিছু ভালো ফ্ল্যাটের সন্ধান আছে নিকেতন, নিকুঞ্জ ও বারিধারাতে। আমি তাই ‍শুনে বলেছিলাম আমাকে যেন ২৫০০ স্কয়ার ফিটের একটি বাসা খুঁজে দেন তিনি। পরিবারের সবাইকে নিয়ে এক ফ্ল্যাটে উঠতে চাই। সিম্পল একটি আলোচনাকে এভাবে নোংরামি মিশিয়ে ছড়ানো হলো। অবাক না হয়ে পারি না।’


এই নায়ক বলেন, অকারণে অযথা একটা ডিভোর্সের সঙ্গে তার নাম যারা জড়নো হয়েছে। সরাসরি কোনো অভিযোগ আসলে তিনি সেটার জবাব দেবেন। এবং যারা তাকে ছোট করার চেষ্টা করছেন প্রমাণসহ ধরতে পারলে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবেন বলেও হুঁশিয়ারি দিলেন তিনি।


প্রসঙ্গত, গেল দুর্গা পূজার সময় পূজা উপলক্ষে একটি ফটোশুটে প্রথম অপু-বাপ্পী একসঙ্গে ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান। এরপর ‘কাঙ্গাল’ ও ‘কানাগলি’ নামের দুটি ছবিতে তারা জুটি হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হন। সেই থেকেই শুরু হয় তাদের প্রেমের গুঞ্জন। এর আগে বাপ্পীর সঙ্গে বিদ্যা সিনহা মিমের প্রেম ও বিয়ের গুজব ছড়িয়েছিল। আর অপু লাইভে এসে বিয়ে ও সন্তানের কথা প্রকাশের পর শাকিব দাবি করেছিলেন অপু বিশ্বাস অবিশ্বস্ত স্ত্রী। একজন উঠতি নায়কের সঙ্গে অশ্লীল অবস্থায় অপুকে হাতেনাতে ধরেছিলেন শাকিব। তবে কে সেই প্রেমিক নাম প্রকাশ করেননি তার। সংবাদ সম্মেলনে মুখ খুলবেন অপু বিশ্বাস


                          সংবাদ সম্মেলনে মুখ খুলবেন অপু বিশ্বাস

শাকিব খানের সঙ্গে বিচ্ছেদ নিয়ে মুখ খুলবেন অপু বিশ্বাস। তবে, তার আগে তিনি একজন আইনজীবীর পরামর্শ নিতে চান।


মঙ্গলবার শাকিবের সঙ্গে বিচ্ছেদের খবর ছড়িয়ে পড়লে মুখে কুলুপ আঁটেন অপু বিশ্বাস। গণমাধ্যম থেকে দূরে ছিলেন চিত্রনায়ক শাকিবও। তবে দিন পেরোতেই মুখ খুলতে শুরু করেছেন দুজনই।


তবে, বিচ্ছেদের বিষয়ে এখনই আনুষ্ঠানিক কোনো মন্তব্য করতে রাজি নন অপু।


শাকিবের নোটিস হাতে পাননি বলে অস্বীকার করে বুধবার অপু বলেন, “আমি এখনও ডিভোর্স নোটিস হাতে পাইনি। তবে, যেহেতু গণমাধ্যমে শাকিবের উকিলের বক্তব্য শুনেছি সে প্রেক্ষিতেই আমিও একজন উকিল খুঁজছি। তার পরামর্শেই আমি পরবর্তী পদক্ষেপ নিবো।”


শাকিবের সঙ্গে বিচ্ছেদের খবর ছড়িয়ে পরার পর গণমাধ্যম থেকে দূরে থাকা অপু’র বাসায় সাংবাদিকরা ভিড় করলেও দেখা মেলেনি তার।


এ প্রসঙ্গে অপু বলেন, “বাসায় সাংবাদিকরা ভিড় করছেন। এ বিষয়ে এখনই আমি কিছু বলতে চাইছি না। আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শ করে দু’একদিনের মধ্যেই আমি সংবাদ সম্মেলন করে সব বলব।”


শাকিব খানের পক্ষে আইনজীবী শেখ সিরাজুল ইসলামের অফিস থেকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন মেয়র কার্যালয়, অপু বিশ্বাসের ঢাকার নিকেতনের বাসা এবং বগুড়ার ঠিকানায় ডিভোর্সের নোটিস পাঠানো হয়েছে।


মঙ্গলবার শাকিবের আইনজীবী শেখ সিরাজুল ইসলাম সিরাজ বলেছেন, “গত ২২ নভেম্বর ডিভোর্স লেটার পাঠানো হয়েছে। তাকে আইনগত পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।”


এই ডিভোর্স কার্যকর হবে নোটিস পাঠানোর তারিখ থেকে তিন মাস পর।


২০০৬ সালে ‘কোটি টাকার কাবিন’ চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে শাকিব-অপুর জুটি গড়ে ওঠে। ২০০৮ সালে তাদের বিয়ে হয়। গতবছরের ২৭ সেপ্টেম্বর কলকাতায় তাদের পুত্রসন্তানের জন্ম হয়। কিন্তু সেসব তারা আড়ালেই রেখেছিলেন।


অপু গত এপ্রিলে সন্তান কোলে টেলিভিশন লাইভে এসে সেই খবর প্রকাশ করলে বিষয়টি নাটকীয়তার জন্ম দেয়। শাকিব খান এ নিয়ে শুরুতে বিভিন্ন রকম কথা বললেও পরে তাদের মধ্যে মিটমাট হয়ে যায়।


বিয়ের খবর প্রকাশের ৯ মাসের মাথায় ভাঙতে চলেছে ঢাকাই চলচ্চিত্রের এ জুটির সম্পর্ক।


Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন