সদ্য সংবাদ

 কালকিনিতে ১৩১ বাড়িতে লাল নিশানা লাগিয়ে দিলো প্রশাসন  করোনার বিরুদ্ধে সাইফুল ইসলাম শান্তির অভিযান শুরু  রংপুরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  নরসিংদীতে হোম কোয়ারেন্টিনে ২০৫ প্রবাসী  কালকিনির বিভিন্ন হাট-বাজারে হাতধোয়ার জন্য বেসিন স্থাপন  পঞ্চগড়ে সাড়ে ৭শ’ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ  রংপুরে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  পার্বতীপুরে শুধুমাত্র পূজার মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী ‘বাহা পরব’ উদযাপিত  রংপুরে এরশাদের জন্মদিন পালিত  বিএফআরআইতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস পালিত  করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পঞ্চগড়ে জরুরি বৈঠক  আতঙ্কিত না হয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে : সাদ এরশাদ এমপি  কালকিনিতে দুই প্রবাসীকে আর্থিক জরিমানা  পঞ্চগড়ে সীমিত পরিসরে মুজিববর্ষ পালিত  রংপুরে ৮টি রাস্তা পাকাকরণ ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু  কালকিনিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে মুজিব উতসব পালিত  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  রংপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে কীটনাশক মুক্ত সবজির চাষ!

ত্রাণ বিতরণের রোহিঙ্গা শিশুদের সঙ্গে মিশে গেলেন আঁখি আলমগীর

 Tue, May 29, 2018 11:00 AM
 ত্রাণ বিতরণের রোহিঙ্গা শিশুদের সঙ্গে মিশে গেলেন আঁখি আলমগীর

উখিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি: : দেশের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী আঁখি আলমগীর উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পে ত্রাণ বিতরণ করেছেন।

 এ সময় তিনি রোহিঙ্গা শিশুদের সঙ্গে মিশে যান। তাদের কথা শোনেন।


ইকবাল ব্রস ফাউন্ডেশনের ব্যানারে সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় সোমবার বেলা ১১টার দিকে রোহিঙ্গা নারী, শিশুদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ শেষে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করে তার ত্রাণ বিতরণের খবরটি জানিয়ে দেন।


সোমবার সকালে আঁখি টিমের অন্যদের সঙ্গে উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রাণ বিতরণকালে স্থানীয় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ১৩ মে ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টারে একটি কনসার্ট অনুষ্ঠিত হয়। ওই কনসার্টে বেশির ভাগ দর্শক ছিলেন প্রবাসী বাঙালিরা। সেখানে উপস্থিত প্রবাসীরা রোহিঙ্গাদের জন্য এক লাখ ১১ হাজার পাউন্ড অর্থ সংগ্রহ করেন।


তিনি বলেন, ইকবাল ব্রস ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত ওই কনসার্টের সব অর্থ রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণসামগ্রী ক্রয় করা হয়- যা সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় বিতরণ করা হয়েছে।


আঁখি আলমগীর বলেন, রোহিঙ্গাদের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা দেখে খুবই মর্মাহত হয়েছি। এক সঙ্গে এত রোহিঙ্গার বসবাস একটি বিরল দৃষ্টান্ত।


তিনি সামনের বর্ষায় এসব রোহিঙ্গার নিরাপদ বসবাসের জন্য আরও উন্নত আবাসস্থল তৈরিসহ ক্যাম্পের সার্বিক বিষয়ে পরিবর্তন আনার জন্য বিশ্ববাসীর প্রতি আহ্বান জানান।


তিনি আরও দাবি জানান, এসব রোহিঙ্গার সম্পূর্ণ নাগরিকত্ব দিয়ে তারা যেন স্বদেশে ফিরে যেতে পারে, সে ব্যাপারে আন্তর্জাতিকভাবে মিয়ানমারের ওপর চাপ সৃষ্টি অব্যাহত রাখতে বিশ্ব নেতাদের এগিয়ে আসতে হবে।


এ সময় ইকবাল ব্রস ফাউন্ডেশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ছাড়াও বিভিন্ন এনজিও সংস্থার প্রতিনিধি ও প্রশাসনের লোকজন উপস্থিত ছিলেন।


পরে আঁখি আলমগীর কুতুপালং ক্যাম্পে বেশ কয়েকটি এলাকা পরিদর্শন করে রোহিঙ্গা নারী ও শিশুদের সঙ্গে কথা বলেন। জানতে চান, তারা কোনো সমস্যায় আছে কিনা?


এ সময় রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে ফিরে যাওয়ার ব্যাপারে যেন সহযোগিতা করেন রোহিঙ্গারা শুধুমাত্র এই দাবিটুকু কামনা করেন সংগীতশিল্পীর কাছে।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন