সদ্য সংবাদ

 মসজিদ ইস্যুতে মেয়র আইভীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার নোংরা রাজনীতির অংশ।  হঠাৎ এক মঞ্চে বাবু-শামীম-সেলিম ওসমান -আইভীর চ্যালেঞ্জ   মেয়র আইভীকে নিয়ে মাওলানা আব্দুল আউয়ালের বিভ্রান্তকর বক্তব্যের ব্যাখ্যা  ভালো কাজ করতে অনেক লোকের প্রয়োজন হয়  সৌদির বিমান বন্দরে হুতির হামলা, বিমানে আগুন  নির্বাচনের ক্রমবর্ধমান ঘটনায় উদ্বিগ্ন মাহবুব তালুকদার  অনেকের চেয়ে ভালোভাবে ভ্যাকসিন সংগ্রহ করেছি : প্রধানমন্ত্রী   মিয়ানমারের বিক্ষোভকারীদের হুশিয়ারি সামরিক জান্তার  থানার দায়িত্ব এসপিদের দিতে সুপারিশ করেছে দুদক  পুলিশ সুপার পদমর্যাদার ১২ কর্মকর্তাকে বদলি  রূপগঞ্জের কায়েতপাড়ায় ইউপি নির্বাচনকে ঘীরে প্রচরণায় মুখর  পঞ্চগড়ে কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচীর উদ্বোধন  ১৮ টি আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী -ডেপুটি স্পিকার  আসন্ন সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে আইভীই পাচ্ছেন নৌকা   ভিসা নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার, বাধা কাটল দ. কোরিয়ায় প্রবেশের  রোহিঙ্গা সঙ্কটের একমাত্র সমাধান প্রত্যাবাসন : তুরস্ক   ২০ বছর বয়সেই কোটিপতি প্রতারক দীপু  নিরাপদ খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত করতে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী  ভোটে অনীহা গণতন্ত্রের জন্য অশনিসংকেত, সংসদে বিরোধী এমপিরা   সুন্দর নারায়ণগঞ্জ গড়তে সকলের সহযোগিতা চান ডিসি

নগ্ন মডেল, প্রাণনাশের হুমকিতে ফোটোগ্রাফার

 Sun, Aug 26, 2018 10:30 AM
 নগ্ন মডেল, প্রাণনাশের হুমকিতে ফোটোগ্রাফার

ডেস্ক রিপোর্ট : : ঠিক যেন শুভ দৃষ্টির পরের মুহূর্ত। মাথায় মুকুট। কপালে বড় করে সিঁদুরের টিপ।

 বাঁ হাতে জোড়া পানপাতা। তাতে মুখের নিচের অংশটুকু ঢাকা পড়েছে। ডান হাতে লক্ষ্মীর গাছকৌটো। খোলা চুলটা সামনের দিকে নামিয়ে দেওয়া।  এক্কেবারে বিয়ের কনে। কিন্তু বিয়ের সাজে ওই তরুণী একেবারেই নগ্ন। পানপাতা ধরা হাত এবং ডান দিকে পাতিয়ে দেওয়া চুল ঢেকেছে বুক। লক্ষ্মীর গাছকৌটো দিয়ে আড়াল করে রাখা যৌনাঙ্গ। ফেসবুকসহ বিভিন্ন স্যোশাল মিডিয়ায় এই ছবি এখন ভাইরাল। কিন্তু, এর পেছনে আরও একটা কাহিনী তৈরি হয়েছে। যে পেশাদার আলোকচিত্রী ওই ছবিটি তুলেছিলেন, তাকে এখন প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। নিজেদের কট্টর হিন্দুত্ববাদী পরিচয় দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতেই এক দল যুবক ওই সব হুমকি দিচ্ছেন। প্রাণের ভয়ে শেষ পর্যন্ত শুক্রবার সকালে পাটুলির বাসিন্দা প্রীতম মিত্র নামে ওই আলোকচিত্রী কলকাতা পুলিশের সাইবার ক্রাইম থানাতে অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে। প্রীতমের একটি সংস্থা রয়েছে। কাজ মূলত বিয়ের ছবি তোলা। গত চার বছর ধরে পেশাগতভাবেই ওই সংস্থাটি চালাচ্ছেন তিনি। তবে বিতর্কিত এই ছবিটি প্রীতমই তার এক বন্ধুর সংস্থার হয়ে তুলেছিলেন। প্রীতমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘‘গত ২১ অগস্ট পেশাদার এক মডেলের ওই ছবিটা আমি তুলেছিলাম। ক্যামেরিনা নামে একটি গ্রুপে ছবিটা পোস্ট করেছিলাম। মুছেও দিয়েছিলাম মিনিট দশেকের মধ্যে। কিন্তু তার মধ্যেই কেউ হয়তো সেখান থেকে ছবিটা নিয়ে ছড়িয়ে দেয়।’’ সেই ছবি ক’দিনের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায়। ছবিটিতে আলোকচিত্রী হিসাবে প্রীতম মিত্রের নামও রয়েছে। এর পরেই প্রীতম ট্রোলড হতে থাকেন। বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের হিন্দুত্ববাদী পরিচয় দিয়ে এক দল যুবক প্রথমে কটূক্তি করা শুরু করেন ওই আলোকচিত্রীকে। তাদের ক'জন তাকে প্রাণনাশের হুমকিও দিতে থাকেন। হুমকিদাতাদের একজন রাজ সরকার রিঙ্কু। নিজেকে মালদহের একটি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের প্রাক্তন হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন তিনি। হিন্দুত্ববাদী হিসেবেও দাবি করেছেন নিজেকে। ফেসবুকে তার পোস্টে ওই আলোকচিত্রীর মাথার দামও ধার্য করেছেন রাজ। এমনকি, মুণ্ডচ্ছেদ করার হুমকিও দিয়েছেন। ওই যুবকদের অভিযোগ, লক্ষ্মীর গাছকৌটো হাতে ওই তরুণীর এ রকম ছবি হিন্দু ধর্মের ভাবাবেগে আঘাত করেছে। এভাবেই ফেসবুকে হুমকি দেওয়া হয়েছে ফোটোগ্রাফারকে। এর মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়াতেই অন্য একদল ওই ছবিকেই বিকৃত করে তরুণীকে লাল রঙের শাড়ি পরিয়ে দিয়েছেন। প্রীতম কিন্তু স্পষ্টভাবে জানাচ্ছেন, এমন কোনো উদ্দেশ্য তার ছিল না। এই ছবির সঙ্গে ধর্মের কোনো সম্পর্ক নেই। তিনি বলেন, “যেভাবে হুমকি দেওয়া হচ্ছে, তাতে আমি খুবই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছি। তাই সাইবার ক্রাইম থানাতে অভিযোগ দায়েরও করেছি।” কলকাতা পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘‘অভিযোগ পেয়েছি। গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’’ কে বা কারা ওই ছবিটিকে ফোটোশপ করে বিকৃত করে সোশ্যাল মিডিয়াতে ছড়িয়ে দিয়েছে, সেটাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ। সূত্র: আনন্দবাজার।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন