সদ্য সংবাদ

  খুনি নূর হোসেনের ভাতিজা বাদল ভালো, মেয়র আইভী ব্যর্থ!   সরকারি কর্মচারীদের গ্রেফতারে অনুমতির বিধান কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট  বাড়ি ভারতে, অফিস করেন সিলেটে  আবারও ষড়যন্ত্র হচ্ছে: ওবায়দুল কাদের   ই-কমার্সের প্রতারনায় ভুক্তভোগী বাণিজ্যমন্ত্রী  সাবেক প্রতিমন্ত্রী মান্নান খান ও তার স্ত্রীর বিচার শুরু   ১০ হাজার ৫০০ শ্রমিককে ভিসা দেবে যুক্তরাজ্য  দেবীগঞ্জে বাসর রাতে পাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু  ‘চুনকা কুটির নয়, আইভীর হোয়াইট ওয়াশের জ্বালা বিরোধী পক্ষ  বিয়ের পর আমাদের বন্ধুত্ব গাঢ় হচ্ছে: মাহি  বাংলাদেশে কেউ ভালো নেই : মির্জা ফখরুল  টিকা প্রয়োগেই কয়েক হাজার কোটি টাকা ব্যয় হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী  টানা তৃতীয়বার জয়লাভ করলেন জাস্টিন ট্রুডো   আটোয়ারীতে ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক  ১১ লাখ টাকা ও হেরোইনসহ ৫মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে না:গঞ্জ ডিবি  প্যারিস চুক্তির কঠোর প্রয়োগের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর   সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের চিঠির উৎপত্তি কোথায় সেটাও দেখছি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  সরকার থেকে সাংবাদিকরাও রেহাই পাচ্ছেন না: ফখরুল   ৯০ দিনের মিশন শেষে পৃথিবীতে ফিরেছেন চীনা নভোচারীরা   দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে সংশ্লিষ্টতা, যুবলীগ নেতা বহিষ্কার

টি-টোয়েন্টিতে স্মরণীয় সিরিজ জয় বাংলাদেশের

 Wed, Sep 8, 2021 8:52 PM
   টি-টোয়েন্টিতে স্মরণীয় সিরিজ জয় বাংলাদেশের

এশিয়া খবর ডেস্ক:: বল হাতে শুরুটা করলেন নাসুম। শেষের দিকে মোস্তাফিজ চমক।

 নিউজিল্যান্ডকে আটকে রাখা গেল মাত্র ৯৩ রানে। লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে মাঝে ছন্দপতন হলেও দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ পৌঁছে গেল জয়ের বন্দরে।

চতুর্থ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ পেল ৬ উইকেটের মধুর জয়। এই জয়ে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টিতে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে স্মরণীয় সিরিজ করায়ত্ত করলো টাইগাররা, তাও এক ম্যাচ হাতে রেখে। সিরিজের ব্যবধান এখন ৩-১।

বুধবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ড তিন বল হাতে রেখে অল আউট হয় ৯৩ রানে। জবাবে বাংলাদেশ জয়ের বন্দরে পৌঁছায় ৫ বল হাতে রেখে। উইকেট হারায় মাত্র ৪টি।

সহজ লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে উইকেট হারায় বাংলাদেশ। দলীয় ৮ রানে ম্যাককঞ্চির বলে অ্যালেনের হাতে ক্যাচ দেন ওপেনার লিটন দাস। ১১ বলে তিনি করেন ৬ রান। সাকিব-নাঈম ভালোই হাল ধরেছিলেন। কিন্তু তাতে কিছুক্ষণ পর বাধ সাধেন আজাজ প্যাটেল। দলীয় ৩২ রানে বিদায় নেন সাকিব আল হাসান। ৮ বলে ৮ রান করে লাথামের স্টাম্পিংয়ের শিকার তিনি। একই ওভারের শেষ বলে বিদায় নেন ক্রিজে কিছুক্ষণ আগেই নামা মুশফিকুর রহিম। তিন বল খেলে খুলতে পারেননি রানের খাতা। প্যাটেলের বলে হয়ে যান বোল্ড।

প্যাটেলের জোড়া আঘাতের পর শঙ্কায় পড়া বাংলাদেশকে টেনে তোলার চেষ্টা করেন নাঈম ও অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এই জুটি দলকে নিয়ে যান ৬৭ রান পর্যন্ত। দুর্ভাগ্যজনক রান আউট ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম। ৩৫ বলে একটি করে চার-ছক্কায় ২৯ রান করেন তিনি।

এরপর দলকে দেখেশুনে জয়ের দিকে নিয়ে যেতে থাকেন মাহমুদউল্লাহ। সাথে ছিলেন হার্ড হিটার আফিফ হোসেন। শেষ পর্যন্ত এই জুটিই দলকে পৌঁছে দেয় জয়ের বন্দরে। ক্যাপ্টেন্স নক ইনিংস খেলেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ৪৮ বলে এক চার ও এক ছক্কায় ৪৩ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। ১০ বলে ৬ রানে অপরাজিত থাকেন আফিফ হোসেন।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। প্রথম ওভারের পঞ্চম বলে ওপেনার রাচিন রবীন্দ্রকে সাইফউদ্দিনের ক্যাচ বানান নাসুম আহমেদ। দলীয় ১৬ রানে বিদায় নেন আরেক ওপেনার ফিন অ্যালেন। ৮ বলে ১২ রান করে তিনিও নাসুমের শিকার।

এরপর অবশ্য দলের হাল ধরেন টম লাথাম ও উইল ইয়ং। কিছুদূর এগোনোর পর এই জুটিতে ভাঙন ধরান মেহেদী হাসান। স্টাম্পিংয়ের শিকার কিউই অধিনায়ক টম লাথাম। ২৬ বলে তিনি করেন ২১ রান।

এরপর আবার স্পিনার নাসুম আহমেদের জোড়া আঘাত। দলীয় ৫২ রানে তিনি ফেরান হেনরি নিকোলস (১) ও কলিন ডি গ্রান্ডহোমকে (০)। ৫২ রানে পাঁচ উইকেট হারানো নিউজিল্যান্ডকে এরপর পথ দেখান একমাত্র ইয়ং। বাকিরা ছিলেন যাওয়া-আসার মিছিলে।

শেষের দিকে কিইউ শিবিরে হানা দেন দুই পেসার মোস্তাফিজ ও সাইফউদ্দিন। তিন বল বাকি থাকতে নিউজিল্যান্ড অল আউট হয় ৯৩ রানে।

দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৮ বলে ৪৬ রান করেন ইয়ং। তার ইনিংসে ছিল পাঁচটি চার ও একটি ছক্কার মার। বাকিদের মধ্যে কেউ ছুতে পারেনি দুই অঙ্কের রান।

বল হাতে দারুণ করে বাংলাদেশের স্পিনার নাসুম আহমেদ। ৪ ওভারে দুই মেডেন নেন তিনি। ১০ রানের বিনিময়ে তুলে নেন চারটি উইকেট। এটি নাসুমের ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। চারটি উইকেট পান মোস্তাফিজুর রহমানও। ৩.৩ ওভারে তিনি দেন ১২ রান। সাইফউদ্দিন ও মেহেদী হাসান নেন একটি করে উইকেট। ৪ ওভারে ২৫ রানে উইকেটশূন্য সাকিব আল হাসান। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে উইকেটের দেখা পেলেন না তারকা এই অলরাউন্ডার।


Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন