সদ্য সংবাদ

  প্রাথমিকে উপবৃত্তির টাকা বিতরণ করা হবে ‘নগদে’  নবীনগর-শিবপুর-রাধিকা সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন   পঞ্চগড় পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে লড়াই হবে তৌহিদুল -জাকিয়া  কৃষকদের পরিশ্রমে আজ বাংলাদেশ উন্নত -ডেপুটি স্পীকার  দায়িত্ব নিয়েই ১০০ দিন জনগণকে মাস্ক পরাবেন বাইডেন   রোহিঙ্গাদের জন্য দেশের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে: ওবায়দুল কাদের   পুলিশের লাঠিপেটায় ছত্রভঙ্গ ভাস্কর্য বিরোধী মিছিল  ফতুল্লায় নৃত্য শিল্পি ধর্ষণ: গ্রেফতার ১  দেশের সাত জেলায় সড়কে ঝরল ২১ প্রাণ  গাঁজা বিপজ্জনক মাদক নয় : জাতিসঙ্ঘ   ‘দেশে আলেমদের মাঠে নামিয়েছে সরকার: ডা. জাফরুল্লাহ  দুদকে যেতেই হবে ডিএজি রুপাকে   জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১৯ বিজয়ীদের নাম ঘোষণা  সিদ্ধিরগঞ্জে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা  ঘুষ নেওয়ার ভিডিও ভাইরাল, এএসআই প্রত্যাহার   পাকিস্তানের ১৯৭১ সালের নৃশংসতা অমার্জনীয় : প্রধানমন্ত্রী  ‘আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশের মানুষকে হতাশ করেছে’   ২৫ ব্যাংকে খেলাপি ঋণ ৮০ হাজার কোটি টাকা  ঢাকার যাত্রীদের জন্য গুগল ম্যাপে নতুন ফিচার  নবীনগরে অজ্ঞাতনামা মহিলার লাশ উদ্ধার

লজ্জাজনক ঘটনার শিকার সালমানের নায়িকা জেরিন খান

 Wed, Dec 19, 2018 7:34 AM
লজ্জাজনক ঘটনার শিকার সালমানের নায়িকা জেরিন খান

এশিয়া খবর ডেস্ক:: বলিউড অভিনেত্রী জেরিন খান। ২০১০ সালে সালমান খানের সঙ্গে ‘বীর’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে

 পা রাখেন তিনি। ক’দিন আগের তার গাড়িতে ধাক্কা দিয়ে এক মটর সাইকেল আরোহীর মৃত্যু হওয়ায় খবরের শিরোনাম হন তিনি। এবার শিরোনাম হলেন নিজের সঙ্গে অন্যদের অশালীন আচরন বিষয়ে মুখ খোলে। 


জেরিন জানায়, বেশ কয়েকজন অচেনা ব্যক্তি নাকি তার সঙ্গে অশালীন আচরন করেন। তার শরীরের ছোঁয়ার চেষ্টা করেন। ঔরঙ্গাবাদে গিয়ে সম্প্রতি নাকি এমনই সব লজ্জাজনক ঘটনার শিকার হতে হয় বলিউড এই অভিনেত্রীকে। 


সম্প্রতি ঔরঙ্গাবাদে একটি দোকানের উদ্বোধনে যান বলিউড জারিন জারিন। নির্দিষ্ট এলাকায় তার গাড়ি ঢোকার সঙ্গে সঙ্গে অভিনেত্রীকে বেশ কিছু মানুষ ঘিরে ধরেন। বার বার তাদের সরে যাওয়ার কথা বললেও, সেখান থেকে এক পা নড়েননি তারা। এরপর গাড়ি থেকে নেমে দোকানের দিকে যাওয়ার সময় আচমকাই জারিনকে ছোঁয়ার চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ তার।


অবস্থা বেগতিক বুঝে সঙ্গে সঙ্গে থানায় খবর দেওয়া হয়। পুলিস ঘটনাস্থলে পৌঁছনোর পরও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। এরপরই জনতার মধ্যে থেকে জেরিন খানকে বের করে আনার জন্য পুলিসকে শেষ পর্যন্ত লাঠিও চালাতে হয়।



Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন