সদ্য সংবাদ

 ‘চুনকা কুটির নয়, আইভীর হোয়াইট ওয়াশের জ্বালা বিরোধী পক্ষ  বিয়ের পর আমাদের বন্ধুত্ব গাঢ় হচ্ছে: মাহি  বাংলাদেশে কেউ ভালো নেই : মির্জা ফখরুল  টিকা প্রয়োগেই কয়েক হাজার কোটি টাকা ব্যয় হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী  টানা তৃতীয়বার জয়লাভ করলেন জাস্টিন ট্রুডো   আটোয়ারীতে ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক  ১১ লাখ টাকা ও হেরোইনসহ ৫মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে না:গঞ্জ ডিবি  প্যারিস চুক্তির কঠোর প্রয়োগের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর   সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের চিঠির উৎপত্তি কোথায় সেটাও দেখছি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  সরকার থেকে সাংবাদিকরাও রেহাই পাচ্ছেন না: ফখরুল   ৯০ দিনের মিশন শেষে পৃথিবীতে ফিরেছেন চীনা নভোচারীরা   দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে সংশ্লিষ্টতা, যুবলীগ নেতা বহিষ্কার  এক হাজার টাকা দেওয়ার ভয়ে পালায় জামালপুরের ৩ ছাত্রী: পুলিশ  মেট্রোরেলের মালামাল ভাঙারির দোকানে বিক্রি করতো চক্রটি  সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে বৃদ্ধ চাঁদাবাজ গ্রেফতার!   মানুষের কাজই সমালোচনা করা’   কিস্তি চাওয়ায় এনআরবিসি ব্যাংক কর্মকর্তাকে মারধর  অ্যাসাইনমেন্টের সাথে টাকার কোনো সম্পর্ক নেই : শিক্ষামন্ত্রী  কবে গ্রাহকদের টাকা ফেরত দেবেন জানেন না রাসেল   ১০ দৈনিক পত্রিকার ডিক্লারেশন বাতিল

 নির্বাচনে জয়ী সানি, আসন ধরে রেখেছেন হেমা মালিনী

 Thu, May 23, 2019 10:11 PM
  নির্বাচনে জয়ী সানি, আসন ধরে রেখেছেন হেমা মালিনী

এশিয়া খবর ডেস্ক:: চারপাশে উপচে পড়ছে সোনালি ধান, তার পরনেও সোনালি শাড়ি, খোলা চুল হাওয়ায় উড়ছে।

 না, কোনও সিনেমার শুটিং নয়, বরং নির্বাচনী প্রচার। কাস্তে দিয়ে ধান কেটে নির্বাচনী প্রচার শুরু করেছিলেন বলিউড অভিনেত্রী হেমা মালিনী।

শুরুর পর শেষে এসে দেখা যায় সেই হেমা মালিনীই তার আসনটি ধরে রেখেছেন। ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন তিনি। ২০১৪-র লোকসভা উত্তরপ্রদেশের মথুরা থেকে ৩,৩০,০০০-এরও বেশি ভোটি জিতেছিলেন তিনি। এবারও মথুরা থেকেই বিজেপি প্রার্থী হয়ে দ্বিতীয় বারের মতো আসনটি ধরে রাখলেন। এই আসনে তার প্রতিবন্ধী ছিলেন আরএলডির কুনওয়ার নরেন্দ্র সিং ও কংগ্রেসের মহেশ পাঠক।

অপরদিকে বলিউডের আরেক তারকা বিজেপির প্রার্থী সানি দেওল পাঞ্জাবের গুরুদাসপুরে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন। এখানে সানি দেওলের প্রতিবন্ধী ছিলেন কংগ্রেস নেতা সুনীল জাখার।


গুরুদাসপুর আসনটি বিজেপির শক্ত ঘাঁটি বলে পরিচিত। এ আসন চারবার এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন অভিনেতা থেকে রাজনীতিক হয়ে ওঠা বিনোদ খান্না। তিনি ১৯৯৮, ১৯৯৯, ২০০৪ ও ২০১৪ সালে এখানে নির্বাচিত হয়েছিলেন। তার মৃত্যুর পরে জল্পনা হয়েছিল যে, তার স্ত্রী কবিতা খান্নাকে এই আসনে মনোনয়ন দেওয়া হতে পারে। কিন্তু মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে সানি দেওলকে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের চেয়ে এবার সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়ী হতে যাচ্ছে বিজেপি। দেশটির জাতীয় এই নির্বাচনে তিন শতাধিক আসনে জয়ী হয়ে দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে হিন্দুত্ববাদী এই রাজনৈতিক দল।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন