সদ্য সংবাদ

 কালকিনিতে ১৩১ বাড়িতে লাল নিশানা লাগিয়ে দিলো প্রশাসন  করোনার বিরুদ্ধে সাইফুল ইসলাম শান্তির অভিযান শুরু  রংপুরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  নরসিংদীতে হোম কোয়ারেন্টিনে ২০৫ প্রবাসী  কালকিনির বিভিন্ন হাট-বাজারে হাতধোয়ার জন্য বেসিন স্থাপন  পঞ্চগড়ে সাড়ে ৭শ’ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ  রংপুরে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  পার্বতীপুরে শুধুমাত্র পূজার মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী ‘বাহা পরব’ উদযাপিত  রংপুরে এরশাদের জন্মদিন পালিত  বিএফআরআইতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস পালিত  করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পঞ্চগড়ে জরুরি বৈঠক  আতঙ্কিত না হয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে : সাদ এরশাদ এমপি  কালকিনিতে দুই প্রবাসীকে আর্থিক জরিমানা  পঞ্চগড়ে সীমিত পরিসরে মুজিববর্ষ পালিত  রংপুরে ৮টি রাস্তা পাকাকরণ ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু  কালকিনিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে মুজিব উতসব পালিত  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  রংপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে কীটনাশক মুক্ত সবজির চাষ!

সৌন্দর্য্যবর্ধনে নাসিকের সড়কে শত শত গাছ রোপন

 Sat, Aug 31, 2019 7:17 PM
সৌন্দর্য্যবর্ধনে নাসিকের সড়কে শত শত গাছ রোপন

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি ॥: সিটি এলাকার সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি করতে নাসিকের উদ্যোগে সিদ্ধিরগঞ্জে সড়কের পাশে কয়েকশত গাছ রোপন করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের সিদ্ধিরগঞ্জের গোদনাইল লালদালান থেকে লাকিবাজার পর্যন্ত প্রায় ২ কিলোমিটার সড়কের এক পাশে শোভা পাচ্ছে কয়েকশত বিভিন্ন ধরনের গাছ। গাছের চারাগুলো গত জুন মাসে রোপন করা হয়েছে। এরই মধ্যে গাছগুলো সতেজ হয়ে উঠতে শুরু করেছে। কিছু কিছু গাছ বেশ বেড়েও উঠেছে। এতে করে পথচারীদের মাঝে বাড়তি ভালোলাগাও কাজ করছে। এসব গাছ বড় হয়ে ফুল-ফল আর সবুজে ভরে উঠলে সড়কটি যেনো প্রাণ ফিরে পাবে। বৃদ্ধি পাবে এলাকার সৌন্দর্যও। এ উদ্যোগ নেয়ায় এলাকাবাসী মেয়রকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।   

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, নারায়ণগঞ্জ সিটির ৮ নং ওয়ার্ড অন্তর্ভূক্ত সিদ্ধিরগঞ্জের গোদনাইল এলাকার লালদালান থেকে লাকিবাজার সড়কের এক পাশে লাগানো গাছ পরিচর্যা করছে নাসিক কর্তৃক নিয়োগকৃত ঠিকাদারের লোকজন। এরই মধ্যে গাছগুলি বেড়ে ওঠায় সড়কের সৌন্দর্য্য বৃদ্ধিতে এক রকম আবহত তৈরী হয়েছে। প্রতিদিন সকাল বিকাল পরিচর্যা করা, পানি দেওয়া, যতœ নেয়া ইত্যাদি কারণে গাছগুলি পথচরীদের দৃষ্টি আকৃর্ষণ করছে। এসব গাছ বড় হলে পথচারীরা ছায়া পাওয়ার পাশাপাশি এলাকার পরিবেশ হবে সবুজ আর শীতল। এলাকার বাসিন্দা ও পথচারী আলমগীর জানান, গ্রামে মেঠোপথ ধরে গাছের দেখা মিললেও বর্তমানে শহরে সড়কের পাশে গাছ দেখা যায় না। তবে সিটি কর্পোরেশনের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে তিনি আরও বলেন, গাছগুলি টিকিয়ে রাখাই বড় চ্যালেঞ্জ। তবে সড়কের পাশের বাসিন্দা ও এলাকাবাসীর সহযোগিতা থাকলে এ উদ্যোগ সহজেই সফল হবে এবং পথচারীরা ফুটপাত ধরে হাঁটতে হাঁটতে এক অজানা আনন্দে প্রকৃতিতে হারিয়ে যাবে বলে তিনি মনে করেন।


নাসিকের নির্বাহী প্রকৌশলী আজগর হোসেন জানান, গাছগুলো পরিচর্যার জন্য ঠিকাদার নিয়োগ করা হয়েছে। এর পাশাপাশি আমরাও দেখাশুনা করছি। সড়কের পাশে লাগানো এসব গাছ নগরীর সৌন্দর্য্য বৃদ্ধির পাশাপাশি পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় অনেক অবদান রাখবে। ভবিষ্যতে নগরীর অন্যান্য এলাকার সড়কের পাশেও গাছ লাগানোর পরিকল্পনা রয়েছে। তিনি গাছগুলো রক্ষায় সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন। 

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন