সদ্য সংবাদ

  বিকৃত অপু ও মামুনকে নিষিদ্ধ করল ‘লাইকি’  কারাগার থেকে সন্তানকে মুক্ত করতে ৩৫ ফুট টানেল খুঁড়লেন মা   ভারতের অমিত শাহকে নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উদ্বেগ   সিদ্ধিরগঞ্জে আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় ২৫০ জনের বিরুদ্ধে মামলা  আল-জাজিরার অফিসে মালয়েশিয়ান পুলিশের তল্লাশি   গণতন্ত্র হত্যা করে বাকশাল চালু করতে চায় সরকার : খন্দকার মোশাররফ   মেজর সিনহার মৃত্যুর বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে নোটিশ  পাপিয়া ও তার স্বামীর বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলা  মেজর সিনহার মাকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন   সাঘাটায় বন্যার্তদের মাঝে শুকনো খাদ্য বিতরণ  টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমারের বিরুদ্ধে যতো অভিযোগ  ভারতে মাস্ক না পরায় ছাগলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতির মুক্তি চাইলেন রাহুল গান্ধী  দেশে ৫৫ লাখ মানুষ পানিবন্দি, মৃত্যু ৪৩ জনের   চিকিৎসকের অবহেলায় ক্রিকেট কোচ তিন্নির মৃত্যু  বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর দেশের জনগণ সব সম্ভাবনা হারিয়ে ফেলে : প্রধানমন্ত্রী   সিদ্ধিরগঞ্জে যুবককে কুপিয়ে হত্যা: আটক ৩  চামড়া: ট্যানারি মালিকদের সিন্ডিকেটের ফাঁদে দুস্থরা ও এতিমখানাগুলো   সেই ইন্সপেক্টর লিয়াকতসহ ২০ পুলিশ ক্লোজড  অনুমোদন পাওয়া অনলাইন নিউজ পোর্টালের তালিকা সংশোধন

সিদ্ধিরগঞ্জের মাদানীনগরে ভূমিদস্যু কর্তৃক রাস্তা দখলে থাকায় পাঁকা করতে পারছে না সিটি

বিএনপির তাহের গংয়ের জায়গা দখলে নির্মাণ হচ্ছেনা নাসিক’র রাস্তা!

 Mon, Sep 2, 2019 7:20 PM
সিদ্ধিরগঞ্জের মাদানীনগরে ভূমিদস্যু কর্তৃক রাস্তা দখলে থাকায় পাঁকা করতে পারছে না সিটি

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি ॥: নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৩ নং ওয়ার্ডে সিদ্ধিরগঞ্জের রসুলবাগ সড়ক সংলগ্ন বদরুন্নেছা স্কুল

পর্যন্ত রাস্তায় দেয়াল নির্মাণ করে দখলে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে এলাকার প্রভাবশালী আবু তাহের। সিটি কর্পোরেশন এ রাস্তাটি পাকা করণের উদ্যোগ নেয়ায় এলাকাবাসী সাধুবাদ জানালেও আবু তাহেরগং দখলীয় অংশ না ছাড়ায় রাস্তাটি পাকা করণের কাজ শুরু করতে পারছে না। ফলে বৃষ্টির কারণে রাস্তা কর্দমাক্ত হওয়ায় এলাকাবাসীর দুর্ভোগ চরমে পৌঁছেছে।


 

জানা যায়, সিদ্ধিরগঞ্জে রসুলবাগ এলাকায় রাস্তা পাকা করণের উদ্যোগ নিয়ে জমি দখলমুক্ত না হওয়ায় পাকা করণ কাজ শুরু করতে পারছে না সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ।

 

এলাকাবাসী জানায়, স্থানীয় কাউন্সিলরের নাম দিয়ে বিএনপি-জামায়াতের দোসর ও ভূমিদস্যু আবু তাহের তার স্কুলের নামে ডিএনডির ৫শতাংশ জায়গা দখল করে বদরুন্নেছা আইডিয়াল স্কুলের নামে ভবন ও দেয়াল নির্মাণ করেছে। স্কুলের জমির সাথে রাস্তার জমি দখলে নিয়ে দেয়াল নির্মাণ করায় রাস্তা সরু হয়ে গেছে।

 

তারা আরও জানান, ফলে এলাকাবাসীর চলাচলে ব্যহত হওয়ার পাশাপাশি রাস্তায় হাঁটু পানি জমে থাকে সারা বছর।এলাকার শিক্ষার্থী ছাড়াও চাকুরীজীবি ও অন্যান্য পেশার লোকজন ও গার্মেন্টেসের নারী কর্মীদের যাতায়াতে সীমাহীন দুর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে। এছাড়াও গরু খামারী মনির মা ও কথিত ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা বেকারী আলম ও রাস্তা প্রশস্ত করার কাজে বাধা দিচ্ছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ।মনির মার গরুর খামারের গোবর ও ময়লা খোলা জায়গায় রাখায় বসবাস অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

 

এলাকাবাসী জানায়, আওয়ামী লীগ নেতা হাজী কফিলউদ্দিন হত্যার ২ দিন আগে বৈঠক হয় আবু তাহেরর বাসায়। এছাড়াও সে নানা অপকর্মের হোতা। বিএনপি-জামায়াত ঘারনার আবু তাহেরও এ হত্যাকা-ের সাথে জড়িত থাকার দাবি এলাকাবাসীর। স্কুলকে সাইনবোর্ড হিসাবে ব্যবহার করে, ভুমিদস্যুতা মাধ্যমে হাজার কোটি টাকার মালিক বনে গেছে বলে অভিযোগ। বিএনপির থানা শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আবু তাহের ক্ষমতা হারানো পর বিগত ১০ বছর যাবৎ আওয়ামী লীগের ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাদলের শেল্টারে এলাকায় ভুমিদস্যূতা করছে।

 

এদিকে রাস্তাটি পাকা করণের জন্য মেয়র বরাবর গত ৬ বছর বহু আবেদন নিবেদন করার পর রাস্তাটি পাকা করনের অনুমোদন দেয় নাসিক মেয়র। রাস্তা দখলে থাকায় পাকা করণের উদ্যোগ নিতে পারছে না সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ।

 

সিটির কর্পোরেশনেরনির্বাহী প্রকৌশলী আজগর হোসেন জানান, জমি দখলে থাকায় রাস্তা নির্ধারিত পরিমাণ প্রশস্থ করা যাচ্ছে না। রাস্তার জমি উদ্ধার করে দিলে ১৬ ফুট প্রশস্ত করা যাবে।

 

ঠিকাদার হযরত জানায়, সিটির কর্পোরেশনের নির্দেশ মতে রাস্তাটি ১৬ ফুট প্রশস্ত করার কথা থাকলেও দখলদাররা দখল না ছাড়ায় রাস্তা পাকা করণের কাজ শুরু করা যাচ্ছে না। রাস্তা ও ড্রেনের পরিমাপ অনুযায়ী উভয় দিকে সীমানা চিহ্নিত করে দেয়া হয়েছে। চিহ্নিত অনুযায়ী দেয়াল না ভেঙ্গে দিলে রাস্তা করা সম্ভব না।

 

এ ব্যাপারে নাসিক ৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল জানান, রাস্তা দখলে রাখা যাবে না। বেদখলীয় রাস্তা ছেড়ে দিতে হবে। রাস্তা উদ্ধারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে এলাকাবাস


Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন