সদ্য সংবাদ

 টাইগারদের হতাশা ১০৬ রানে অলআউট, ৬৮ রানের লিড ভারত  বুয়েটের ২৬ শিক্ষার্থী স্থায়ী বহিষ্কারে সন্তুষ্ট আবরারের মা  রাজবাড়ীতে মাদ্রাসার সুপার হলেন গীতা শিক্ষা কমিটির উত্তম কুমার  মুন্সীগঞ্জে দুর্ঘটনায় বরযাত্রীবাহী বাস, নিহত বেড়ে ১০  এমপি বুবলী আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার  এ সরকার স্বৈরাচারের বাবা: বিএনপি মহাসচিব  নবীনগর প্রেসক্লাবের ৩৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত  আড়াইহাজারে ৮ জুয়াড়ি গ্রেফতার   অনলাইন জালিয়াতির অভিযোগে মালয়েশিয়ায় আটক ৬৮০ চাইনিজ   ইসরাইলের অবৈধ বসতি স্থাপন মানবে না মালয়েশিয়া   সিদ্ধিরগঞ্জ সমকামী চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার : পিস্তল ও গুলি উদ্ধার  মাঠে মুখোমুখি হবেন মমতা-হাসিনা   পিইসিতে শিশুদের বহিষ্কার কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট  মুজিববর্ষ : জাতীয় স্কুল কাবাডির প্রস্তুতিমূলক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত  ‘সন্তানরা আরেকবার রাস্তায় নামলে কারও পিঠে চামড়া থাকবে না’  তুরস্ক থেকে পেঁয়াজ আসছে শুক্রবার  রংপুরে সরিষার জাত পরিচিতি ও চাষাবাদ কলাকৌশল শীর্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত  তেঁতুলিয়ায় হত্যাকান্ডের মূল রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ; শীঘ্রই অভিযোগপত্র দাখিল  পঞ্চগড়ে নিকাহ রেজিষ্টার, বাল্য বিবাহ , তালাক রেজিস্ট্রেশন শীর্ষক কর্মশালা   সৌদি সরকার সমালোচক রাজকন্যা বাসমাহ বিনতে সৌদ নিখোঁজ!

না.গঞ্জের সিংহাম’এসপি হারুনের বিরুদ্ধে অভিযোগের পাহাড়

*না.গঞ্জে ‘বাংলার সিংহাম’ বলে পোস্টারিং *কিছুদিন ধরে বিভিন্ন ব্যবসায়ীকে টার্গেট করে ‘অপতৎপরতা’ শুরু করেছিলেন

 Mon, Nov 4, 2019 11:14 PM
  না.গঞ্জের সিংহাম’এসপি হারুনের বিরুদ্ধে অভিযোগের পাহাড়

এশিয়া খবর ডেস্ক:: *গভীর রাতে গুলশান ক্লাবের সভাপতি রাসেলের স্ত্রী ও পুত্রকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ



বিভিন্ন সময়ে ব্যাপক আলোচিত-সমালোচিত নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদকে নিয়ে নতুন করে শুরু হয়েছে নানা কথা। রোববার প্রভাবশালী এই পুলিশ কর্মকর্তাকে ‘শাস্তিমূলক’ বদলি বা প্রত্যাহার করার পর নারায়ণগঞ্জে দেখা দেয় মিশ্র প্রতিক্রিয়া। হারুনের বিদায়ে নারায়ণগঞ্জে অনেকেই ব্যাপক খুশি ও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করলেও কেউ কেউ তার বদলিতে মনঃক্ষুণ্নও হয়েছেন। স্থানীয়দের তথ্যমতে, নারায়ণগঞ্জে ‘বাংলার সিংহাম’ বলে প্রচার করা এসপি হারুনের বদলিতে সবচেয়ে খুশি ও উচ্ছ্বসিত নারায়ণগঞ্জের ওসমান পরিবার ও তাদের অনুসারীরা। এর আগের কর্মস্থল গাজীপুরেও অনেকে খুশি ও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন বলে জানা যায়। কেননা সেখানে থাকাকালেও প্রভাব বিস্তারের মাধ্যমে নানা ঘটনায় সমালোচিত হন তিনি।

তবে এসপি হারুনের বিরুদ্ধে বর্তমানে সবচেয়ে বেশি আলোচিত হচ্ছে চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীর স্ত্রী-পুত্রকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগটি। জানা যায়, দু’দিন আগে গত শুক্রবার গভীর রাতে এসপি হারুন তার সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স নিয়ে গুলশানের বাসা থেকে পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যানের ছেলে গুলশান ক্লাবের সভাপতি শওকত আজিজ রাসেলের স্ত্রী ও পুত্রকে তুলে নিয়ে যান। স্থানীয় গুলশান থানা বা কাউকেই তিনি বিষয়টি অবহিত করারও প্রয়োজন বোধ করেননি। গুলশানের সেই বাসার সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজও প্রকাশ হয়েছে। পাঁচ কোটি টাকা চাঁদা না পাওয়ায় এসপি হারুন ক্ষুব্ধ হয়ে রাসেলের স্ত্রী-পুত্রকে নিয়ে যান বলে জানা যায়। পরবর্তীতে মুচলেকা দিয়ে তাদের ছাড়িয়ে আনাও হয়। তবে শওকত আজিজ রাসেলের গাড়ি নিয়ে গিয়ে এসপি হারুন সেখানে অস্ত্র ও মদ উদ্ধারের খবর প্রকাশ করান বলেও অভিযোগ উঠেছে। সর্বশেষ এসব ঘটনা নিয়েই নতুন করে ব্যাপক আলোচনায় এসেছেন ‘বেপরোয়া’ হিসেবে পরিচিত এই পুলিশ কর্মকর্তা।

নারায়ণগঞ্জের স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জের ক্ষমতাধর সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের সঙ্গে প্রকাশ্য-অপ্রকাশ্য বিভিন্ন খাতের কর্তৃত্ব ও নিয়ন্ত্রণ নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিল তার। উভয়ের বিরোধপূর্ণ বক্তব্য এবং কর্মকাণ্ডে সবচেয়ে আলোচিত হন এসপি হারুন। ক্ষমতাধর এমপি এবং প্রভাবশালী পুলিশ কর্মকর্তার প্রকাশ্য বিরোধের কারণে নারায়ণগঞ্জে এসপি হারুনকে বলিউডের জনপ্রিয় হিন্দি সিনেমা ‘সিংহাম’-এর নায়কের চরিত্র অনুসারে ‘বাংলার সিংহাম’ বলেও প্রচার করেছিল খোদ জেলা পুলিশ। প্রথমদিকে এসপি হারুন নারায়ণগঞ্জের বিতর্কিত ক্ষমতাধর বেশ কিছু রাজনৈতিক নেতাকে ‘কুপোকাত’ করায় সাধারণ মানুষের কাছে বেশ প্রশংসা লাভ করেন। এমপি শামীম ওসমানও একপর্যায়ে এসপি হারুনের সঙ্গে সমঝোতা করতে বাধ্য হন বলেও শোনা যায়। তবে সম্প্রতি কিছুদিন ধরে নারায়ণগঞ্জকেন্দ্রিক বেশ কিছু শিল্প বা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে টার্গেট করে চাঁদাবাজিসহ প্রভাব বিস্তার করে নানা তৎপরতা চালাচ্ছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছে। চাঁদা না পেলেই ওইসব প্রতিষ্ঠান বা ব্যবসায়ীকে নাজেহাল করা হতো বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

২ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ব্যবসায়ী জামাল হোসেন মৃধার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে নগদ ১ কোটি ২৫ লাখ টাকা ও দুই হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধারের খবর জানান এসপি হারুন। এ সময় জামালের ‘সহযোগী’ মোস্তফা ও কাওসারকেও আটক করা হয়। তবে এসপি হারুনের এই খবর প্রকাশের পর ওই এলাকায় ব্যাপক সমালোচনা হয়। স্থানীয় অনেকেই বলেছেন, ব্যবসায়ী জামালের বাড়ি থেকে তার জমি বিক্রির প্রায় আড়াই কোটি টাকা পুলিশ জব্দ করেছিল। কিন্তু জব্দ দেখানো হয়েছে সোয়া কোটি টাকা। ব্যবসায়ী জামাল কখনই মাদক কারবারের সঙ্গে জড়িত ছিলেন না বলেও তার স্বজনরা দাবি করেন। এসপি হারুন টার্গেট করে এ ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ছাড়া ২ অক্টোবর রাতে নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইলে ‘নকল’ প্রসাধনী ও ইলেকট্রনিক পণ্য তৈরির কারখানায় অভিযান চালানোর খবর প্রকাশ করেন এসপি হারুন। ম্যাক্স ইলেকট্রনিক্স নামে ওই কারখানায় অভিযান নিয়েও নানা অভিযোগ শোনা যাচ্ছে। সর্বশেষ পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যানের ছেলে আম্বার গ্রুপের কর্ণধার শওকত আজিজ রাসেলের কাছেও আট কোটি টাকা চাঁদা চেয়েছিলেন বলেও এই ব্যবসায়ী তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে অভিযোগ করেন। সেই টাকা না দেওয়ায় গুলশানে রাসেলের বাসায় গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে তার স্ত্রী-পুত্রকে ধরে নিয়ে যাওয়া হয় নারায়ণগঞ্জে।

জানা যায়, ২০১১ সালে ঢাকায় তৎকালীন বিএনপির এমপি জয়নাল আবদীন ফারুককে পেটানোর মধ্য দিয়ে আলোচিত হন ওই সময়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) এডিসি হিসেবে কর্মরত হারুন। এরপর তার পদোন্নতি হলে ডিএমপির ডিসি, পরে গাজীপুরের পুলিশ সুপার থেকে সর্বশেষ নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এই সময়কালে হারুনের বিরুদ্ধে নানা অভযোগ ওঠে। তার বিরুদ্ধে ‘অবৈধভাবে’ বিপুল অর্থ আয়, যুক্তরাষ্ট্রে বিপুল অর্থ পাচার, তার স্ত্রীর নামে বিপুল টাকার উৎস নিয়ে এফবিআইয়ের তদন্ত, গাজীপুরে জমি দখল ও দখলে সহযোগিতাসহ প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ শোনা যায়। তবে অধিকাংশ অভিযোগেই তার কিছুই হয়নি। বরং বরাবরই প্রভাবশালী পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবেই নিজ বাহিনীতেও ভালো অবস্থান পান তিনি। একবার বিসিএস পুলিশ ক্যাডারদের সংগঠন ‘বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। পান পুলিশ বাহিনীর গৌরবের পদক বিপিএম (বার) ও পিপিএম (বার)।

সংশ্লিষ্ট সূত্রমতে, ‘পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান এমএ হাশেমের ছেলে শওকত আজিজ রাসেলের প্রতিষ্ঠান আম্বার ডেনিমের কাছে পাঁচ কোটি টাকা চাঁদা দাবি করেন এসপি হারুন। দাবি করা টাকা না দেওয়ায় গত শুক্রবার গভীর রাতে বাসায় ঢুকে আম্বার গ্রুপের কর্ণধার শওকত আজিজ রাসেলের স্ত্রী ও পুত্রকে তুলে নিয়ে যান নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ। এ ছাড়া ঢাকা ক্লাব থেকে তার ব্যক্তিগত গাড়িটিও জব্দ করে নিয়ে গেছেন এসপি হারুন। সেই গাড়ি থেকেই পরে অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার করা হয়েছে বলে সংবাদ প্রকাশ করান এসপি হারুন।’ ব্যবসায়ী রাসেলের স্ত্রী ও পুত্রকে নিয়ে যাওয়া সংক্রান্ত একটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করা হয়েছে একটি নিউজপোর্টালে। গুলশান ক্লাবের সভাপতি ব্যবসায়ী রাসেল সেখানে আরও অভিযোগ করেন, তার কাছে দীর্ঘদিন ধরেই চাঁদা দাবি করে আসছিলেন এসপি হারুন।

জানা যায়, ২০১৬ সালের ৫ মে শওকত আজিজ রাসেল এসপি হারুনের বিরুদ্ধে পাঁচ কোটি টাকা চাঁদা দাবি এবং চাঁদা না দিলে তার গাজীপুরের আম্বার ডেনিম নামে প্রতিষ্ঠানটি ধ্বংস করার হুমকি দেন বলে লিখিত অভিযোগ দেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আইজিপিসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দফতরে। ওই অভিযোগপত্রে বলা হয়, ২০১৬ সালের ৩ মে সন্ধ্যায় এসআই আজহারুল ইসলামের মাধ্যমে এসপি হারুন আম্বার ডেনিমের স্টোর ম্যানেজার ইয়াহইয়া বাবুর কাছে প্রথমে মোবাইলে এ চাঁদা দাবি করেন। সে সময় আজহার বলেন, এসপি হারুন সাহেব এইমাত্র আমাকে ফোন করেছেন। উনি বলেছেন, আম্বার গ্রুপের চেয়ারম্যানের লোকজনকে ডাকাও। আমার টাকা লাগবে। তাড়াতাড়ি ৫ কোটি টাকা পাঠাও।

শওকত আজিজ রাসেলের ওই চিঠিতে আরও বলা হয়, ‘এর আগেও এসপি হারুন আমাকে গুলশান ক্লাবের লামডা হলে ও গুলশানের কাবাব ফ্যাক্টরি রেস্তোরাঁয় ডেকে নিয়ে দুবার আমার কাছে ৫ কোটি টাকা দাবি করেন। ওই টাকা ডলারে আমেরিকায় এসপি হারুনের নির্ধারিত ঠিকানায় পাঠাতে বলেন। সে সময় টাকা না পাঠালে তিনি গাজীপুরে আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আম্বার ডেনিম ধ্বংস করে দেওয়া হবে বলে হুমকি দেন। ওই টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানানোর ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই আমার কোম্পানি আম্বার ডেনিম ফ্যাক্টরির ৪৫ শ্রমিক-কর্মকর্তা-কর্মচারীকে গভীর রাতে গাজীপুর থানায় ধরে নিয়ে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে জেলে পাঠান এসপি হারুন।’ জানা যায়, গাজীপুরের পর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ ও সিদ্ধিরগঞ্জে গড়ে উঠছে রাসেলের আম্বার গ্রুপের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। ফলে হারুন গাজীপুর থেকে বদলি হয়ে নারায়ণগঞ্জে এসপি হিসেবে দায়িত্ব পেলে তার উৎপাত আরও বেড়ে যায়।
 
এসপি হারুনকে বদলি : রোববার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ধনঞ্জয় কুমার দাস স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, নারায়ণঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদকে পুলিশ অধিদফতরের পুলিশ সুপার (টিআর) পদে বদলি/পদায়ন করা হলো। জনস্বার্থে জারিকৃত এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর করা হবে।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন