সদ্য সংবাদ

 সরকার ইভিএমের ওপর ভর করেছে: মির্জা ফখরুল  নায়িকা দেখতে পাঁচ রাত ফুটপাতে কাটালেন এক ভক্ত   রোহিঙ্গাদের সঙ্গে যা করা হয়েছে তা গণহত্যার শামিল: আইসিজে   দেশকে সন্ত্রাস-দুর্নীতিমুক্ত করতে চাই: প্রধানমন্ত্রী  বাসাবাড়ির চুলায় নয়, শিল্পে গ্যাস দেব: সংসদে প্রতিমন্ত্রী  মেহেরপুরে ফেনসিডিল রাখার দায়ে যুবকের জেল  মেহেরপুর শ্মশানঘাট মন্দিরে ৩ দিনব্যাপী কালী পূজা  ডুমুরিয়ায় এমপি পুত্রের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন  কালিয়াকৈরে তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারীদের কর্মবিরতি  রংপুরে নিবন্ধনকৃত শিশুদের মাঝে স্কুল ব্যাগ বিতরণ  পলাশে শিক্ষার্থীদের মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিতকরণে অভিভাবকদের ভূমিকা শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত  পঞ্চগড়ে কালেক্টরেট সহকারী সমিতি’র উদ্যোগে কর্মবিরতি ও সমাবেশ  কালিয়াকৈরে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত  পার্বতীপুরে পল্লীশ্রী’র অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত  রংপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে  বাংলাদেশের নতুন বোলিং কোচ ওয়েস্ট ইন্ডিজের গিবসন  সিদ্ধিরগঞ্জে হত্যা মামলার পলাতক আসামি শরীফ গ্রেফতার  বিমানে লাগেজ হারালে বা নষ্ট হলে কেজি প্রতি লক্ষাধিক টাকা ক্ষতিপূরণ  ৯ লাখ নারী কর্মী বিদেশে গেছেন: প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী  ফতুল্লায় ধর্ষককে ছেড়ে দেওয়া যুবলীগ নেতা শ্যামল গ্রেফতার

জেনেভা থেকে ২ মানবাধিকার কর্মীকে অপহরণ করেছে সৌদি!

 Tue, Nov 12, 2019 10:20 PM
জেনেভা থেকে ২ মানবাধিকার কর্মীকে অপহরণ করেছে সৌদি!

এশিয়া খবর ডেস্ক:: সুইজারল্যান্ডের শহর জেনেভা থেকে দুই সৌদি সমালোচককে অপহরণ করে নিয়ে গেছে সৌদি আরব।

ব্রিটেনভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা প্রিজনার্স অব কনসাসের বরাতে দ্য নিউজআরাবিয়ার খবরে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

আইনজীবী হাসান আল-ওমারিকে ২০১৭ সালের অক্টোবরে অপহরণ করা হয়েছিল। এছাড়া চলতি বছরের মার্চে মানবাধিকার কর্মী হাসান আল-কানানিকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

প্রিজনার্স অব কনসাস সাধারণত সৌদি আরবের মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে কাজ করে। সংস্থাটি বলছে, সৌদি কর্তৃপক্ষ দেশটির এই দুই সমালোচককে অপহরণ করে নিয়েছে।

তাদের নিখোঁজে নেপথ্যে সৌদির ভূমিকা রয়েছে বলে দাবি করেছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

ধর্মীয়ভাবে রক্ষণশীল দেশটির বিরুদ্ধে সমালোচনা থেকে বিরত রাখতে তাদের আগেও বেশ কয়েকবার হুমকি দেয়া হয়েছিল।

ইয়েমেনে বিমান হামলা চালিয়ে হাজার হাজার বেসামরিক লোককে হত্যার ঘটনায় রিয়াদের সমালোচনা করে আসছিলেন আল-ওমারি।

গৃহযুদ্ধ কবলিত প্রতিবেশী দেশটি থেকে অতিসত্বর সেনা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছিলেন তিনি।

তবে এই অপহরণের খবর নিয়ে সৌদি ও সুইস কর্তৃপক্ষের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

ইস্তানবুলের সৌদি কনস্যুলেটে মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে নির্মমভাবে হত্যার পর সৌদি আরবের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে বিশ্বজুড়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে।

এছাড়া দেশটিতে ভিন্নমতাবলম্বীদের ওপর ব্যাপক ধরপাকড় অব্যাহত রয়েছে। গত দুই বছর শত শত মানবাধিকারকর্মী ও অ্যাকটিভিস্টকে আটক করেছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী।

মিডল ইস্ট মনিটরের খবর বলছে, ওমারির নিখোঁজ হওয়ার আগে সুইজারল্যান্ড থেকে এক সৌদি প্রিন্সেরও খোঁজ পাওয়া যায়নি। তিনি কোথায় আছেন, সেই খবর নেই সুইস কর্তৃপক্ষের কাছে।

২০১৮ সালের ১৫ অক্টোবর সৌদি প্রিন্স খালিদ বিন ফারহান আল সৌদ অভিযোগ করেন, সৌদি কর্তৃপক্ষ তাকে অপহরণের চেষ্টা চালিয়েছে।

তার এই অভিযোগের দুই সপ্তাহ পরেই হত্যার শিকার হয়েছেন সাংবাদিক জামাল খাসোগি।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন