সদ্য সংবাদ

  নতুন করে আরেকটি বাবরি মসজিদ নির্মাণ হবে।  ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনেও ইসি ব্যর্থ: সুজন  বঙ্গবন্ধুর সব ভাষণ নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী সম্পাদিত বই   ৫ কারণে নায়ক সালমান শাহর ‘আত্মহত্যা’: পিবিআই   কুমিল্লায় শাড়ি ভাঁজে ৪০ হাজার পিস ইয়াবা  পদত্যাগের পর মাহাথির কেন অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রী?  ব্লাকমেইল করে ৫ বছরে শত কোটি টাকার মালিক পাপিয়া দম্পতি!  প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সফরেই দিল্লি রণক্ষেত্র, নিহত পুলিশ কর্মকর্তা  পাপিয়ার অপরাধ অনুযায়ী বিচার হবে: ওবায়দুল কাদের   ১৫ দিনের রিমান্ডে যুব মহিলা লীগের পাপিয়া  ঝিনাইদহে বিনামুল্যে ৩ শতাধিক দুস্থ-অসহায়দের চিকিৎসা সেবা প্রদান  ঝিনাইদহ অবাধে ফসলি জমিতে পুকুর খনন! ক্ষতিগ্রস্থ ফসলী জমি!  সাঘাটায় অবৈধ ভটভটি ও অটো ভ্যান চলাচলে দূর্ঘটনা বাড়ছে  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত  পঞ্চগড়ে নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত  পুলিশের সেবার মান বাড়াতে হবে  অনলাইনে টিকিট বিক্রি করে কয়েকশ কোটি টাকা পাচার   ‘টক অব দ্য কান্ট্রি: রাজনীতির আড়ালে পাপিয়ার দেহব্যবসা  করোনাভাইরাস: বিদেশ ভ্রমণ থেকে বিরত থাকার পরামর্শ  পুলিশের এসআইয়ের কোপে ক্ষতবিক্ষত ৪ জন

‘ব্যারিস্টার সুমন প্রধানমন্ত্রীর নজরে আসতে মামলা করেন’

 Thu, Nov 14, 2019 10:35 PM
‘ব্যারিস্টার সুমন প্রধানমন্ত্রীর নজরে আসতে মামলা করেন’

এশিয়া খবর ডেস্ক:: ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ফেনীর সোনাগাজী থানার সেই সাবেক ভারপ্রাপ্ত

কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেন আদালতে কান্না করে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছেন।

আদালতে আত্মপক্ষ সমর্থনে দেয়া বক্তব্যে ওসি মোয়াজ্জেম বলেন, ‘সামাজিক, রাজনৈতিক ও আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার জন্য ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন আমার বিরুদ্ধে এ মামলা করেছেন। এমনকি প্রধানমন্ত্রীর নজরে আসতে মামলা করেন তিনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘গত ৬ এপ্রিল নুসরাতের ডাইং ডিক্লারেশন গ্রহণের ব্যবস্থা করি। কিন্তু বাদী আমার বিরুদ্ধে শুধু মামলাই করেছে। তিনি নুসরাতের হত্যাকারীদের বিচারের জন্য কোনো ভূমিকা রাখেননি। উনি (বাদী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন) আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক দলের একটি পোস্ট হোল্ড করেন। তাই প্রধানমন্ত্রীর নজরে আসার জন্য শুধু রাজনৈতিকভাবে ও অর্থনৈতিকভাবে লাভবানের উদ্দেশ্যে এ মামলা করেছেন। আমি এ মামলার মাধ্যমে বড় সাজা পেয়েই গেছি। আমার ছেলে স্কুলে যেতে পারে না। আমার মেয়ে এবং তার মা শয্যাশায়ী। আমার পরিবার ধ্বংস হয়ে গেছে। আমি ১০টি খুন করলেও এমন সাজা হয়তো আমার হতো না। এ সময় তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন। ’

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালে ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির বক্তব্য ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে করা মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনের বক্তব্যে এসব কথা বলেন আসামি সোনাগাজী মডেল থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন।

তবে তার এ বক্তব্যের বিরোধিতা করে মামলার বাদী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন বলেন, ‘সারা দেশের ওসিরা যেন নারীদের সম্মান করেন, থানা যেন মানুষের নিরাপদ স্থান হয়, যেন ৪৮০ থানার ওসিরা মোয়াজ্জেমের ভাগ্য দেখে তা বিবেচনায় ওনারা আরও সচেতন হন, এজন্য আমি মামলা কর

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন