সদ্য সংবাদ

 সংকট মোকাবেলায় ২০ লাখ পাসপোর্ট কিনছে সরকার  মধুচন্দ্রিমায় নার্ভাস মিথিলা!  কারাগারেই থাকতে হচ্ছে খালেদা জিয়াকে  বিএনপি কর্মী ভেবে পুলিশকে পেটালেন ওসি  দেশের রাজনীতিতে স্থায়ী সংঘাত সৃষ্টি হল: মির্জা ফখরুল   থানায় যুবলীগ নেতার জন্মদিন পালন করা সেই ওসি মোস্তফাকে প্রত্যাহার  চাটখিলে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টা ,গ্রেফতার ২  আসামে কারফিউ ভেঙে বিক্ষোভ, পুলিশের গুলিতে নিহত ৩   এবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ভারত সফর স্থগিত  গোপালগঞ্জস্থ কোটালীপাড়া সমিতি'র সভাপতি জলিল খান, সম্পাদক গোলাম হায়দার  রেলের সকল ভূ-সম্পত্তি অবৈধ দখলমুক্ত করা হবে  রংপুরে দিনব্যাপী ‘আঁশকল’ যন্ত্র ব্যবহারের অভিজ্ঞতা বিনিময় বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত  পঞ্চগড়ে কেয়ারটেকারের বিরুদ্ধে পৈত্তিক বাড়ী ও জমি দখলের অভিযোগ  ঝিনাইদহ পৌরসভায় পাইলট প্রকল্পের কাজ বাস্তবায়নে মতবিনিময় ও প্রশিক্ষণ কর্মশালা  ঝিনাইদহের মোবারকগঞ্জ চিনিকলের করুণ দশা, ১৯৪ টাকার উৎপাদিত চিনি বিক্রি হচ্ছে ৫৫ টাকায়  কালীগঞ্জে মাদ্রাসা ছাত্র জবাই করে হত্যা মামলায় গ্রেফতার নেই, হতাশ পরিবার ও এলাকাবাসি!  রংপুরকে গুড়িয়ে দিয়ে উড়ন্ত সূচনা করল কুমিল্লা  কেরানীগঞ্জে প্লাস্টিক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১, দগ্ধ ২৮  আমরা এখনও বিচার বিভাগকে বিশ্বাস করি: রিজভী  মিয়ানমারকে মানবাধিকার লঙ্ঘন বন্ধ করতে হবে: মিলার

কাশ্মীর ইস্যুতে আর্থিক ক্ষতি ১১ হাজার কোটি টাকা!

 Tue, Nov 19, 2019 11:16 PM
কাশ্মীর ইস্যুতে আর্থিক ক্ষতি ১১ হাজার কোটি টাকা!

এশিয়া খবর ডেস্ক:: গত সাড়ে চার মাস ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীর অবরুদ্ধ থাকায় আর্থিক ক্ষতি ১১

হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। মঙ্গলবার স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সংগঠন কাশ্মীর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (কেসিসি) আর্থিক ক্ষতির কথা জানিয়ে বলেছে, এই ক্ষতির জন্য তারা সরকারের বিরুদ্ধে মামলার পরিকল্পনা করেছে। খবর রয়টার্স’র।

কেসিসি’র ভাইস প্রেসিডেন্ট নাসির খান বলেছেন, ‘গত সেপ্টেম্বরে আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ ১০ হাজার কোটি রুপি (অন্তত ১১ হাজার কোটি টাকা) ছিল। নভেম্বরে যা আরও বেড়েছে বলে আমরা ধারণা করছি।’

কাশ্মীরে দীর্ঘদিন টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ থাকায় ক্ষতির সঠিক পরিমাণ নির্ণয় করা সম্ভব হয়নি। তাই ক্ষতির পরিমাণ মূল্যায়ন করতে একটি বাহ্যিক সংস্থা নিয়োগ দিতে আদালতের কাছে কেসিসি আবেদন করবে বলে জানান কেসিসির ভাইস প্রেসিডেন্ট।

রয়টার্স জানিয়েছে, কেসিসি’র এমন দাবির পর ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও স্থানীয় সরকারের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তারা এ ব্যাপারে কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।


চলতি বছরের ৫ আগস্ট জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে ভারত। এসময় পুরো কাশ্মীর জুড়ে সেনা মোতায়েন করে সরকার। রাস্তা ঘাট বন্ধ, মোবাইল, ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়, বন্ধ থাকে দোকান-পাট। ফলে বহির্বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন কাশ্মীরীরা নিজ গৃহে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন। নরেন্দ্র মোদির সরকার ঘোষণা দেয় কাশ্মীরের অর্থনৈতিক উন্নয়নে নজর দেওয়া হবে। বাইরের বিনিয়োগকারীদের দেওয়া হবে যা অর্থনৈতিক উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করবে।

তবে মোদি সরকারের এমন আশ্বাসকে ‘চাতুরি’ বলে আখ্যা দিয়েছে কেসিসি। কাশ্মীরের আর্থিক অবস্থা দিন দিন আরও খারাপের দিকে যাচ্ছে। এই উপত্যকার প্রধান আয়ের উৎস পর্যটন খাতে ব্যাপক ধ্বস নেমেছে। যা এখনও স্বাভাবিক হয়নি। উল্টো অনেক হোটেল ব্যবসায়ী ব্যবসা গোটানোর কথা ভাবছেন

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন