সদ্য সংবাদ

 রংপুরকে গুড়িয়ে দিয়ে উড়ন্ত সূচনা করল কুমিল্লা  কেরানীগঞ্জে প্লাস্টিক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১, দগ্ধ ২৮  আমরা এখনও বিচার বিভাগকে বিশ্বাস করি: রিজভী  মিয়ানমারকে মানবাধিকার লঙ্ঘন বন্ধ করতে হবে: মিলার  জনগণকে সাথে নিয়ে অগ্নিসন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমন করতে সক্ষম হয়েছি : আইজি  অমিত শাহর বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় যা বললেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী  কালিয়াকৈরে অজ্ঞাত যুবককে কুপিয়ে হত্যা  নাগেশ্বরী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নবাগত চিকিতসকদের যোগদান  ‘মানবতার বন্ধনে রংপুর’ কর্তৃক মাদ্রাসায় খাবার বিতরণ  দেশে মূর্খের শাসন চলছে: ব্যারিস্টার মইনুল  থানায় জিডি করলেই আসবে ঢাকা রেঞ্জের ফোন  ফতুল্লায় কিশোরী গণধর্ষণে ৬ জন গ্রেফতার   এস কে সিনহার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল  আদালতের কাঠগড়ায় পাথরের মতো বসে ছিলেন সু চি  পার্বতীপুরে রেলওয়ে জেলা স্কাউটস এর কাউন্সিল অনুষ্ঠিত  কালিয়াকৈরে কলেজ ছাত্র হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন  ভ্যাটের টাকায় দেশ উন্নয়নের উচ্চ শিখরে পৌঁছে যাবে  কুয়াশা পড়ছে মাঝ রাতে দিনে রোদ  নবীনগরে স্থানীয় এনজিও হোপের ২১ তম সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত  খুলনা জেলা ও নগর আওয়ামীলীগের সম্মেলন কাল

মির্জাপুরে ইয়াবা বিক্রি করতে গিয়ে এএসআইসহ তিন পুলিশ জনতার হাতে আটক গণধোলাই এলাকায়

 Sat, Nov 30, 2019 6:14 PM
মির্জাপুরে ইয়াবা বিক্রি করতে গিয়ে এএসআইসহ তিন পুলিশ জনতার হাতে আটক গণধোলাই এলাকায়

মির্জাপুর ও সখীপুর (টাঙ্গাইল) সংবাদদাতা: ইয়াবা বিক্রি করতে গিয়ে

এএসআইসহ তিন পুলিশ সদস্য ও তাদরে দুই সোর্সকে বিক্ষুব্দ জনতা আটক করে গণধোলাই দিয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর ও সখীপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী হতিয়া রাজাবাড়ি গালর্স স্কুল বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। মির্জাপুর ও সখীপুর থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে জনতার হাতে আটক ও গনধোলাইয়ের শিকার বাঁশতৈল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই রিয়াজুল ইসলাম, কনস্টবল রাসেল ও স্বপনসহ পুলিশের দুই সোর্সকে পুলিশ সদস্যকে উদ্ধারের চেষ্টা করছেন। 

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শি ও হতিয়া রাজাবাড়ি এলাকার বাসিন্দা আলী হোসেন ও নাসির জানায়,বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে বাঁশতৈল পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশের সোর্স (দালাল চক্রের সদস্য) হাসানসহ দুই যুবক প্রথমে ঐ বাজারে গিয়ে ফরহাদ মিয়ার ছেলে বজলুর রশিদকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা করে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হলে পুলিশের দুই সোর্স (দালাল) মির্জাপুর উপজেলার বাঁশতৈল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই রিয়াজুল ইসলাম ও দুই কনস্টবল গোপাল সাহা ও রাসেলকে জানায়। সোর্সের খবর পেয়ে একটি সিএনজি নিয়ে তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সিগারেট এর প্যাকেটের ভিতর ইয়াবাসহ মাদক দিয়ে অপর দুই যুবককে মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে ফাঁসানোর চেষ্টা করে। আশপাশের লোকজন তাদরে সিএনজি ঘেরাও করে তিন পুলিশ ও দুই দলাল চক্রের সদস্যকে আটক করে গনধোলাই দেয়। খবর পেয়ে মির্জাপুর থানার বাঁশতৈল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. সাইফুল ইসলাম এবং সখীপুর থানার ওসি (তদন্ত) লুৎফুল কবিরসহ বিপুল সংখ্যক পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বিক্ষুব্দ জনতার হাত থেকে তাদরে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছেন। 

এ ব্যাপারে সহকারী পুলিশ সুপার (মির্জাপুর সার্কেল) দীপংকর ঘোষ ও মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সায়েদুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ সদস্যদের উদ্ধার করা হয়েছে। তদন্ত চলছে। ঘটনা প্রমানিত হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে । 

এদিকে ভুক্তভোগি এলাকাবসি অভিযোগ করেছেন, মির্জাপুর পৌরসভা, উপজেলার ফতেপুর, জামুর্কি, মহেড়া, বানাইল, আনাইতারা, ওয়ার্শি, ভাদগ্রাম, ভাওড়া, বহুরিয়া, লতিফপুর, বাঁশতৈল, আজগানা, তরফপুর ও গোড়াই এলাকায় দীর্ঘ দিন ধরে পুলিশের সোর্স ও এক শ্রেণীর পুলিশ সদস্য মাদক দিয়ে নিরীহ লোকজনকে ফাঁসিয়ে মামলার ভয় ও হয়রানী করে লাখ লাখ টাকা বাণিজ্য করছে। ভুক্তভোগিরা তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জোর দাবী জানিয়েছেন।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন