সদ্য সংবাদ

  রোববার থেকে হিফজ মাদ্রাসা খোলার অনুমতি   সাংবাদিক রাশীদ উন নবী বাবু আর নেই   ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনা ৫০ হাজার টাকায় আপোষ রফা   এশিয়া কাপ বাতিল, বিশ্বকাপ না হলে আইপিএলের সম্ভাবনা : গাঙ্গুলী   ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনায় সংসদে বিল পাস   ১২৫ বাংলাদেশিকে বিমান থেকে নামতে দিচ্ছে না ইতালি   দেশে করোনা শনাক্তে ফি আরোপ অমানবিক, আত্মঘাতী: টিআইবি  যুক্তরাষ্ট্রের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি চীন: এফবিআই  রূপকথাকেও হার মানায় রিজেন্টের সাহেদের উত্থান  জনকল্যাণকর কর্মসূচি দিয়ে মানুষের পাশে থাকবো : আমু  সংসদে দাঁড়িয়ে কাঁদলেন প্রধানমন্ত্রী  সাঘাটায় বাঙ্গালী নদীর পানি কমার সাথে ভয়াবহ ভাঙন  পঞ্চগড়ে প্রণোদনার দাবিতে কিন্ডারগার্টেন শিক্ষককদের কর্মসূচি  গাইবান্ধায় প্রথম আলো ট্রাষ্টের ত্রাণ বিতরণ   মুজিবনগর স্মৃতিসৌধে পুষ্পার্ঘ অর্পন করলে দুই ডিসি   সাঘাটায় টাকা নিয়ে দলিল করে না দিয়ে উল্টো গাছ কর্তন  অস্ট্রেলিয়া থেকে সঙ্গা ও সপ্তক ফেরার পরই সমাহিত হবেন এন্ড্রু কিশোর  ঝিনাইদহে পথচারীদের মাঝে ট্রাফিক সার্জেন্ট মোস্তাফিজুর রহমানের মাস্ক বিতরণ  ঝিনাইদহে গাঁজাসহ আদালতে কর্মরত পুলিশ সদস্য আটক  ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বলসোনারো করোনায় আক্রান্ত

শহীদ সোলাইমানি হত্যার বদলা ধাপে ধাপে: ইরানি কমান্ডার

 Mon, Jan 6, 2020 9:56 PM
শহীদ সোলাইমানি হত্যার বদলা ধাপে ধাপে: ইরানি কমান্ডার

এশিয়া খবর ডেস্ক:: ইরানের শীর্ষ জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার প্রতিশোধ ধাপে ধাপে নেয়া হবে বলে হুশিয়ারি দেয়া হয়েছে।

আল-কুদস ফোর্সের নতুন প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইসমাইল কিয়ানি বলেন, শহীদ সোলাইমানির বদলা নেয়া আল্লাহর দেয়া প্রতিশ্রুতি। কারণ, আল্লাহ স্বয়ং পরাক্রমশালী প্রতিশোধ গ্রহণকারী।

তিনি আরো বলেন, আমরা শহীদ সোলাইমারি পথ সেই একই শক্তি ও উদ্যম নিয়ে অনুসরণ করে যাওয়ার সংকল্প নিয়েছি। যুক্তরাষ্ট্রকে এ অঞ্চল থেকে তাড়ানোর মধ্য দিয়ে কয়েক ধাপে আমরা তার সেই শহীদানের প্রতিশোধ নেব।

সোমবার তেহরানে সোলাইমানির জানাজায় বিপুল মানুষের উপস্থিতি এবং ‘আমেরিকা নিপাত যাক’ স্লোগানের মধ্যে ইসমাইল কিয়ানি নতুন করে বদলা নেয়ার ওই অঙ্গীকার করেন।

তেহরানে নিহত কাসেম সোলাইমানির জানাজায় প্রকাশ্যে কাঁদলেন ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি। তার কফিনের সামনে দাঁড়িয়ে যখন কোরআন তেলাওয়াত করছিলেন, তখন নিজের আবেগ ধরে রাখতে পারছিলেন না। তার কণ্ঠের আওয়াজ ভেঙে ভেঙে যাচ্ছিল।

সোমবার লাখ লাখ শোকার্ত মানুষ রাস্তায় নেমে আসলে তেহরান বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের সড়ক স্তব্ধ হয়ে যায়। পরে শোকমিছিল আজাদী চত্বরের দিকে চলে যায়।

রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম বলছে, ইরানের রাজধানীর সড়কগুলোতে মানুষের ঢল নেমেছে। ইসলামিক প্রজাতন্ত্রটির প্রতিষ্ঠাতা আয়াতুল্লাহ রুহুল্লাহ খোমেনির পরে এমন মানুষের ভিড় আর কারো জানাজায় দেখা যায়নি।

লাউডস্পিকারে যখন দোয়া-কালাম ভেসে আসছিল, তখন এক বৃদ্ধ লোক বলছিলেন, বহু দেশ তার অস্তিত্বের কাছে ঋণী। তিনি না থাকলে সিরিয়া, ইরান ও ইরাকের পতন ঘটতো।

প্ল্যাকার্ড হাতে আরেক লোককে সামনে এগিয়ে যেতে দেখা গেছে। তাতে লেখা রয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনার কথা যে জিহ্বা বলছে, সেটা নীরব থাকুক।

মাতমরত নারীরা বলেন, কোনো মধ্যস্থতা না, কোনো আত্মসমর্পণ না। এসময় উর্দিপরিহিত নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য ও গোয়েন্দারা ভিড়ের মধ্য দিয়ে পথ করে সামনে এগিয়ে যাচ্ছিলেন।

আল-কুদস ফোর্সের এই কমান্ডারের মেয়ে জয়নাব সোলাইমানি বলেন, আমেরিকা ও ইহুদিবাদীদের জানা উচিত যে আমার বাবার শাহাদত নতুন জাগরণের নেতৃত্ব দেবে— সম্মুখের প্রতিরোধে। তাদের জন্য নতুন অন্ধকারময় দিন নেমে আসবে। তাদের বাড়িঘর মাটিতে মিশে যাবে।

‘উন্মুক্ত ট্রাম্প চিন্তাও করতে পারবেন না যে আমার বাবার শাহাদতে সবকিছু শেষ হয়েছে,’ বললেন সোলাইমানি কন্যা।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন