সদ্য সংবাদ

  অভিনেত্রী পায়েলের ওপর হামলা   বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের ডাক মির্জা ফখরুলের  নারায়ণগঞ্জ ডি‌বি পু‌লি‌শের সোর্স প‌রিচ‌য়ে বেপরোয়া সেই মোফাজ্জল ও মিশু চক্র   দেশে করোনায় ১৩ দিনে ৭৯২ জনের মৃত্যু   গুলিতে ৪ মুসলমানের মৃত্যুতে তীব্র ক্ষোভ মমতার  একাধিক বিয়ে নিয়ে নাক গলানোর অধিকার কে দিয়েছে আপনাকে?   অবহেলার জবাব এই স্বর্ণ: মাবিয়া   একদিনে রেকর্ড ৭৬২৬ শনাক্ত, মৃত্যু ৬৩   হেফাজতের তাণ্ডবে ৩ মামলা, মামুনুল হকসহ আসামি ৫৫০   রুহানীর মেডিকেল ভর্তি দায়িত্ব নিলেন পৌর মেয়র মিন্টু  ঝিনাইদহ ট্রাফিক অফিসের অভিযান-   রফিকুল ইসলাম মাদানীকে যে কারণে আটক করা হয়েছে  বিশ্বকাপজয়ী মঈনকে ‘জঙ্গি’ বললেন তসলিমা, আর্চারের প্রতিবাদ  নারায়ণগঞ্জে লকডাউনে মার্কেট খোলার দাবীতে মানববন্ধন  লকডাউনে সিটিতে গণপরিবহন চলাচলের অনুমোদন  দিয়া মির্জা বিয়ের আগেই অন্তঃসত্ত্বা  লঞ্চডুবিতে ৩৫ লাশ: নৌ চলাচলে জেলা প্রশাসনের ৮ নির্দেশনা   করোনা: বিশ্বে ৩০ লাখ ছাড়াল মৃতের সংখ্যা  মামুনুল হকসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন ২৭ মে  রূপগঞ্জে অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

মোদির ক্যাম্পেইন করে দেশপ্রেমী, আর জেএনইউতে এসে দেশদ্রোহী দীপিকা!

 Thu, Jan 9, 2020 11:23 PM
মোদির ক্যাম্পেইন করে দেশপ্রেমী, আর জেএনইউতে এসে দেশদ্রোহী দীপিকা!

এশিয়া খবর ডেস্ক:: ভারতের দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে (জেএনইউ)

মুখোশধারী দুষ্কৃতকারীর হামলায় আহত শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়িয়ে বিজেপি শিবিরের তোপের মুখে পড়েছেন দীপিকা পাডুকোন। তার অভিনীত ছবি ‘ছাপাক’ বয়কটের ডাক এসেছে তাদের পক্ষ থেকে। এ অবস্থায় দীপিকার সমালোচকদের এক হাত নিলেন জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রসসংসদের প্রাক্তন সভাপতি কানহাইয়া কুমার। তিনি বলেন, ‘দীপিকা পাড়ুকোনের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পক্ষে প্রচার ছিল দেশভক্তি, তবে তিনি যখন জেএনইউতে এলেন, তখনই দেশদ্রোহী হয়ে গেলেন’।

বৃহস্পতিবার জেএনইউ ইস্যুতে দীপিকার সমালোচক বিশেষত বিজেপির সমালোচনা করেছেন কানহাইয়া কুমার। দীপিকার জেএনইউ সফর দিয়ে তিনি বলেন, ‘তিনি (দীপিকা) কিছুই বলেননি, স্লোগানও দেননি। তিনি নীরব ছিলেন, পরে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে চলে যান। এখন ওরা বলছে, তার ছবি দেখবে না। আমি অবাক হয়ে যাচ্ছি, তিনি কোনও দল, আদর্শের নাম করেননি, বা স্লোগান দেননি। তাহলে কেন তাঁর ছবি দেখবে না?’

জেএনইউ হামলার জন্য বিজেপিকে অভিযুক্ত করে কানহাইয়া কুমার বলেন, ‘দীপিকা পাড়ুকোনের সফরে পর প্রতিক্রিয়া থেকে এটা স্পষ্ট, রবিবারের হামলার নেপথ্যে সরকার পক্ষের লোকেরা।’


গত রবিবার (৫ জানুয়ারি) রাতে জেএনইউ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মুখে কাপড় বাঁধা এক দল যুবক ঢুকে তাণ্ডব চালায়। এতে আহত হন অন্তত ৩৪ জন। এরপর ৭ জানুয়ারি সন্ধ্যায় জেএনইউ শিক্ষার্থীদের প্রতি সমবেদনা জানাতে সেখানে যান দীপিকা। সেখানকার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসার পর দীপিকার পক্ষে বিপক্ষে আলোচনা সমালোচনা শুরু হয়। বিজেপির এক নেতা দীপিকার ‘ছাপাক’ সিনেমা বয়কটের ডাক দেন।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন