সদ্য সংবাদ

  নতুন করে আরেকটি বাবরি মসজিদ নির্মাণ হবে।  ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনেও ইসি ব্যর্থ: সুজন  বঙ্গবন্ধুর সব ভাষণ নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী সম্পাদিত বই   ৫ কারণে নায়ক সালমান শাহর ‘আত্মহত্যা’: পিবিআই   কুমিল্লায় শাড়ি ভাঁজে ৪০ হাজার পিস ইয়াবা  পদত্যাগের পর মাহাথির কেন অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রী?  ব্লাকমেইল করে ৫ বছরে শত কোটি টাকার মালিক পাপিয়া দম্পতি!  প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সফরেই দিল্লি রণক্ষেত্র, নিহত পুলিশ কর্মকর্তা  পাপিয়ার অপরাধ অনুযায়ী বিচার হবে: ওবায়দুল কাদের   ১৫ দিনের রিমান্ডে যুব মহিলা লীগের পাপিয়া  ঝিনাইদহে বিনামুল্যে ৩ শতাধিক দুস্থ-অসহায়দের চিকিৎসা সেবা প্রদান  ঝিনাইদহ অবাধে ফসলি জমিতে পুকুর খনন! ক্ষতিগ্রস্থ ফসলী জমি!  সাঘাটায় অবৈধ ভটভটি ও অটো ভ্যান চলাচলে দূর্ঘটনা বাড়ছে  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত  পঞ্চগড়ে নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত  পুলিশের সেবার মান বাড়াতে হবে  অনলাইনে টিকিট বিক্রি করে কয়েকশ কোটি টাকা পাচার   ‘টক অব দ্য কান্ট্রি: রাজনীতির আড়ালে পাপিয়ার দেহব্যবসা  করোনাভাইরাস: বিদেশ ভ্রমণ থেকে বিরত থাকার পরামর্শ  পুলিশের এসআইয়ের কোপে ক্ষতবিক্ষত ৪ জন

‘গো ব্যাক মোদি’ স্লোগানে গর্জে উঠল কলকাতার রাজপথ

 Sat, Jan 11, 2020 9:40 PM
‘গো ব্যাক মোদি’ স্লোগানে গর্জে উঠল কলকাতার রাজপথ

এশিয়া খবর ডেস্ক:: দু'দিনের সফরে শনিবার কলকাতায় এলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি,

 আর তার মাঝে গর্জে উঠল কলকাতার রাজপথ। নাগরিকত্ব আইন, এনআরসি আর এনপিআরের বিরুদ্ধে ‘গো ব্যাক মোদি’ স্লোগানে সোচ্চার কলকাতার রাজপথ থেকে অলিগলি।

অন্যদিকে শনিবার বিকেলে মোদির সঙ্গে একান্ত বৈঠক করে ধর্মতলায় বিজেপি বিরোধী বিক্ষোভে বসেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন কলকাতার উত্তর থেকে দক্ষিণ, সর্বত্রই মোদি বিরোধিতায় পথে নামেন বাম-নকশালপন্থী ছাত্ররা। গোলপার্ক, যাদবপুর, ধর্মতলা, কলেজ স্ট্রিটে, হাতিবাগান  এদিন মোদির সফরের বিরোধিতায় বিক্ষোভ করেন। সড়কে লেখা হয় ‘নো এনআরসি, নো সিএএ’। কোথাও ‘গো ব্যাক মোদি’ পোস্টার নিয়ে আন্দোলনে সামিল হন শিক্ষার্থীরা। জেএনইউ-র হামলা, সিএএ, এনআরসি, কর্মসংস্থানের দাবি নিয়েও বিক্ষোভ করেন তারা। গান, স্লোগানে মোদিকে ফেরত পাঠানোর দাবিও করা হয়। এদিন কলকাতাসহ রাজ্যজুড়ে মোট ৫০০ জায়গায় বিক্ষোভ করা হয়।

বিকেলের পর রাজভবনের দিকে যান বাম ছাত্র-যুব ও অতিবামপন্থী সংগঠনগুলি। লেনিনমূর্তির নীচে অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি করে সিপিএমের। এদিন বিক্ষোভকারীদের হাতে ছিল জাতীয় পতাকা এবং কালো পতাকা। সন্ধ্যায় কলকাতায় জুড়ে মানববন্ধন করে সিপিএম।

এর আগে কলকাতা বিমানবন্দরে ৩টা ২০ মিনিটে নেমে হেলিকপ্টারে মোদি কলকাতা শহরে প্রবেশ করেন। বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। রেসকোর্সের হেলিপ্যাডে নেমে মোদি সোজা চলে যান রাজভবনে। সেখানে তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করেন ২০ মিনিট।

বৈঠক শেষে মমতা বলেন, ‘রাজ্যের আর্থিক দাবি-দাওয়ার কথা বলেছিল এবং সেই সঙ্গে সিএএ, এনআরসি ও এনআরপির বাতিলের দাবি করেছি।’

এরপরেই মমতা চলে যান ধর্মতলায় বিজেপি বিরোধী অবস্থান মঞ্চে। সেখানে তিনি বিজেপির বিরুদ্ধে বক্তব্য রাখেন। অন্যদিকে, মোদি বিবাদিবাগে কারেন্সি ভবনে একটি প্রর্দশনী উদ্বোধনে যান। এখানে মোদি বলেন, ‌‘বাংলার মাটিকে আর বাংলার মনিষীদের প্রনাম জানাচ্ছি। বেলুড় মঠ আমায় টেনে এনেছে।’

এরপর মোদি মিলোনিয়াম পার্কে হাওড়া সেতুর লাইট অ্যান্ড সাউন্ড প্রর্দশনীর উদ্বোধন করেন। তারপর যান বেলুড়মঠে। সেখানে তিনি রাত্রিবাস করেন। রোববার সকালে কলকাতা পোর্টট্রাস্টের ১৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে দুপুরে দিল্লি ফিরে যাবেন তিনি।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন