সদ্য সংবাদ

 ১৭টি দেশের ভাষায় গাইলেন একুশের গান  কচুরিপানা খাবার উপযোগী কি না পরীক্ষা নিরীক্ষা চলছে: বাণিজ্যমন্ত্রী  মুজিববর্ষ: বাজারে আসছে স্বর্ণ ও রৌপ্য মুদ্রা, সঙ্গে ২০০ টাকার নোট  প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে, মন্টি সহ আটক চারজন   দুবাই থেকে ঢাকায় এসে গ্রেফতার শাকিল  বান্দরবানে ব্রাশফায়ারে আওয়ামী লীগ নেতা নিহত  করোনা মোকাবিলা আদৌ সম্ভব না: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা   নেতৃত্ব ছেড়ে দিন: বিএনপিকে কর্নেল অলি  নিখোঁজের দেড় বছর পর বাসায় ফিরলেন সাবেক র‌্যাব অধিনায়ক  নাইজার-ফ্রান্স যৌথ সামরিক অভিযানে নিহত ১২০  কালিয়াকৈরে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও লটারী ড্র অনুষ্ঠিত  রংপুরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত  ‘দৈনিক খবর’ এর ৪৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী রোববার  পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজির মেয়েকে পরীক্ষা হলে সুবিধা: কেন্দ্র সচিবকে অব্যাহতি  ১০০০ কোটি টাকা দেবে গ্রামীণফোন   চাষাঢ়ায় আটদিন ধরে নিখোঁজ পরিবারের ৪ সদস্য !  অন্য ভাষা প্রয়োজন তবে মাতৃভাষাকে বাদ দিয়ে নয়: প্রধানমন্ত্রী   পঞ্চগড়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  ৮ বছর পর কন্যা সন্তানের মা হলেন শিল্পা শেঠি  আশুলিয়ায় ৫ম বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান

চট্টগ্রাম বিভাগীয় পর্যায়ে জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতার উদ্বোধন

বিজয়ীরা ক্যাটাগরি ভিত্তিক- ক, খ ও গ বিভাগে শিক্ষা, সাংস্কৃতিক (সংগীত), নৃত্য, চিত্রাঙ্কন, কুটিরশিল্প/বিজ্ঞানযন্ত্র ও ক্রীড়া বিষয়ক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছে

 Thu, Jan 16, 2020 8:41 PM
চট্টগ্রাম বিভাগীয় পর্যায়ে জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতার উদ্বোধন

চট্টগ্রাম থেকে মো. আহমাদুর রহমান শাওন: চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ কামাল হোসেন বলেছেন, আজকের শিশুরা আগামী দিনের উজ্জল ভবিষ্যত ও রাষ্ট্রের সম্পদ। নীতি-নৈতিকতা শেখানোর মাধ্যমে তাদের যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হলে পড়ালেখার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে উদ্ধুদ্ধ করতে হবে। আমাদের দেশটি যখন সোনার বাংলা হয়ে গড়ে উঠবে, তখন শিশুরা সোনার মানুষ হয়ে দেশকে আলোকিত করবে। এজন্য তাদের মতো করে মেধা-মননে ও সৃজনশীলতায় বেড়ে উঠার সুযোগ সৃষ্টি করে দিতে অভিভাবকসহ প্রত্যেককে আন্তরিক হতে হবে।

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় চট্টগ্রাম জেলা শিশু একাডেমিতে বিভাগীয় পর্যায়ে অনুষ্ঠিত দু’দিন ব্যাপী জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতা-২০২০ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ শিশু একাডেমি, চট্টগ্রামের আয়োজনে ও জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় একাডেমিতে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বিভাগীয় পর্যায়ে এ প্রতিযোগিতা শুরু হয়। চট্টগ্রাম জেলা শিশু একাডেমির জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা নারগীস সুলতানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার শিশু একাডেমির জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা আহসানুল হক। এসময় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন রাঙ্গামাটি জেলার প্রতিযোগী কাশফিয়া ফারহা। অনুষ্ঠানের শুরুতে বেলুন উড়িয়ে দু’দিন ব্যাপী চট্টগ্রাম বিভাগীয় পর্যায়ে জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল হোসেন। অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন জেলা শিশু একাডেমির শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা, জেলা সংগঠক, বিচারক, প্রতিযোগী ও তাদের অভিভাবকগণ উপস্থিত ছিলেন। শুক্রবার বিকাল ৫টায় শিশু একাডেমি প্রাঙ্গণে বিভাগীয় পর্যায়ে জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কার বিতরণ করা হবে। এবারের প্রতিযোগিতায় চট্টগ্রাম বিভাগের ১১ জেলা- যথাক্রমেঃ চট্টগ্রাম, ব্রাহ্মবাড়িয়া, চাঁদপুর, কুমিল্লা, লক্ষ্মীপুর, নোয়াখালী, ফেনী, খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি, বান্দরবান ও কক্সবাজার জেলা পর্যায়ে জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতায় বিজয়ীরা ক্যাটাগরি ভিত্তিক- ক, খ ও গ বিভাগে শিক্ষা, সাংস্কৃতিক (সংগীত), নৃত্য, চিত্রাঙ্কন, কুটিরশিল্প/বিজ্ঞানযন্ত্র ও ক্রীড়া বিষয়ক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছে। ১ম শ্রেণী থেকে ৪র্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা ‘ক’ বিভাগে, ৫ম শ্রেণী থেকে ৭ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা ‘খ’ বিভাগে ও ৮ম থেকে ১০ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা ‘গ’ বিভাগে এবং দলীয় বিষয়ে অংশগ্রহণ করছে। শিক্ষা বিষয়ক প্রতিযোগিতায় রয়েছে- ‘বঙ্গবন্ধুকে জানো, বাংলাদেশকে জানো’ বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান, উপস্থিত অভিনয়, আবৃত্তি, উপস্থিত বক্তৃতা, ক্বেরাত ও শিশু সাহিত্য ঃ ধারাবাহিক গল্প বলা। সাংস্কৃতিক বিষয়ক প্রতিযোগিতায় (সংগীত) রয়েছে- দেশাত্মাবোধক সংগীত, রবীন্দ্র সংগীত, নজরুল সংগীত, ছড়াগান, ভাবসংগীত, লোকসংগীত, হামদ/না’ত, উচ্চাঙ্গ সংগীত, তবলা ও দোতরা/গিটার। নৃত্য বিষয়ে রয়েছে- মনিপুরী নৃত্য, কথক নৃত্য, ভরত নাট্যম, সৃজনশীল নৃত্য ও লোকনৃত্য। চিত্রাঙ্কন বিষয়ে রয়েছে- আমার দেখা বাংলাদেশ, বাঙালির উতসব ও উন্নয়নের বাংলাদেশ। কুটির শিল্প/বিজ্ঞানযন্ত্র বিষয়ে রয়েছে- কুটির শিল্প বাঁশ-বেতের ব্যবহারের সামগ্রী তৈরি/মাটির কাজ ও বিজ্ঞান যন্ত্রের উদ্ভাবন বা বিজ্ঞান প্রজেক্ট। ক্রীড়া বিষয়ে রয়েছে- দাবা, ব্যাডমিন্টন, ১০০ মিটার দৌঁড়, উচ্চ লম্ফ, দীর্ঘ লম্ফ ও ১০০ মিটার মুক্ত সাঁতার। এসব বিষয়ে বিভাগীয় পর্যায়ে বিজয়ীরা আগামীতে অনুষ্ঠিতব্য জাতীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবে।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন