সদ্য সংবাদ

 গাইবান্ধায় প্রথম আলো ট্রাষ্টের ত্রাণ বিতরণ   মুজিবনগর স্মৃতিসৌধে পুষ্পার্ঘ অর্পন করলে দুই ডিসি   সাঘাটায় টাকা নিয়ে দলিল করে না দিয়ে উল্টো গাছ কর্তন  অস্ট্রেলিয়া থেকে সঙ্গা ও সপ্তক ফেরার পরই সমাহিত হবেন এন্ড্রু কিশোর  ঝিনাইদহে পথচারীদের মাঝে ট্রাফিক সার্জেন্ট মোস্তাফিজুর রহমানের মাস্ক বিতরণ  ঝিনাইদহে গাঁজাসহ আদালতে কর্মরত পুলিশ সদস্য আটক  ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বলসোনারো করোনায় আক্রান্ত   উপনির্বাচনের ব্যালটে ধানের শীষ না রাখার দাবি বিএনপির  ১৬ বছরেই মিলবে জাতীয় পরিচয়পত্র  কেনিয়ায় স্কুল শিক্ষাবর্ষ থেকে ২০২০ সাল ‘হাওয়া’   অনলাইন প্রতারক চক্রের মূল হোতা আটক  বাংলাদেশ থেকে ইতালির সব ফ্লাইট বন্ধ   তদন্তের স্বার্থে প্রকাশ করা যাচ্ছে না লঞ্চ দুর্ঘটনার কারণ : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী   রিজেন্ট হাসপাতাল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।  নারায়ণগঞ্জ জেলা পিবিআই'র পুলিশ সুপার পদে মনিরুল ইসলামের যোগদান   কুড়িগ্রামের ডিসি সুলতানার বিরুদ্ধে আবারও তদন্ত হবে   রাজধানীর রিজেন্ট হাসপাতালে টেস্ট ছাড়াই করোনা পজিটিভ-নেগেটিভ সনদ  অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোশারফ হোসেন যোগ দিলেন নারায়ণগঞ্জে   রাত থেকেই আন্তর্জাতিক ফ্লাইটে আবারো নিষেধাজ্ঞা  এবার ভুটানের একটি অঞ্চল দাবি করছে চীন

ট্রাম্পের অপসারণ চেয়ে সিনেটে ডেমোক্র্যাটদের চিঠি

 Tue, Jan 21, 2020 10:16 PM
ট্রাম্পের অপসারণ চেয়ে সিনেটে ডেমোক্র্যাটদের চিঠি

এশিয়া খবর ডেস্ক:: যুক্তরাষ্ট্রে কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটে শিগগিরই শুরু হচ্ছে

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিশংসন বিচারের শুনানি।

বিরোধীদল ডেমোক্রেটিক ও ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান আইনজীবীদের যুক্তি-পাল্টাযুক্তি উপস্থাপনের মধ্যে মঙ্গলবার থেকে (বাংলাদেশ সময় রাত ১২টায়) শুরু হওয়ার কথা অভিশংসন লড়াই। এর মধ্যেই লিখিতভাবে ট্রাম্পের অপসারণ দাবি করেছেন ডেমোক্র্যাট নেতারা।

সোমবার সিনেটে একটি চিঠি জমা দেন তারা। চিঠিতে রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ‘যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্র এবং জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি’ হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে।

ট্রাম্পকে ক্ষমতায় রেখে দিলে আগামী দিনগুলোতে নির্বাচনে বিদেশি হস্তক্ষেপ চাইতে ভবিষ্যৎ নেতাদের উৎসাহিত করা হবে বলেও যুক্তি দেখান ডেমোক্র্যাটরা।

অন্যদিকে সোমবারই এর ঠিক বিপরীত বক্তব্যে ট্রাম্পের আইনজীবীরা তার বেকসুর খালাস চেয়েছেন। ট্রাম্প ভুল কিছু করেননি বলেই দাবি তাদের। ডেমোক্র্যাটরা ট্রাম্পকে আরেকবার নির্বাচিত হতে না দেয়ার চেষ্টা করছেন বলেও অভিযোগ করেছেন তারা।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় দুপুর ২টায় শুরু হওয়ার কথা রয়েছে ট্রাম্পের অভিশংসন শুনানি।

সিনেটররা শুনানিতে প্রতিনিধি পরিষদের আইনজীবী এবং হোয়াইট হাউসের আইনজীবী উভয় পক্ষেরই বক্তব্য শুনবেন। শোনা হবে প্রত্যক্ষদর্শীদের বক্তব্যও। বিচার প্রক্রিয়া দেখানো হবে টেলিভিশনে।

শুনানির পর ট্রাম্পকে দোষী সাব্যস্ত করা হবে কি না, তা নিয়ে ভোটাভুটির জন্য সিনেটররা পুরো একদিন সময় পাবেন। বিচার প্রক্রিয়া সপ্তাহে ছয়দিন করে চলবে (সোম থেকে শনিবার পর্যন্ত)। শুধু রোববার বাদ। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত তা জানুয়ারির শেষনাগাদও চলতে পারে।

উদ্বোধনী যুক্তিতর্ক চলবে চারদিন। এ সময় ডেমোক্রেটিক হাউসের আইনপ্রণেতারা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুক্তি দেবেন এবং প্রেসিডেন্টের আইনজীবীরা এর জবাব দেবেন।

১০০ আসনের সিনেটে ট্রাম্পকে ক্ষমতা থেকে সরাতে গেলে দুই-তৃতীয়াংশ ভোটের প্রয়োজন হবে। কিন্তু সিনেটে ডেমোক্র্যাটদের সংখ্যা মাত্র ৪৭। আর রিপাবলিকানদের সংখ্যা ৫৩ হওয়ায় ট্রাম্প খালাস পাবেন, এটি স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে।

তবে যদি ব্যতিক্রমী কিছু ঘটে যায়, ট্রাম্প দোষী সাব্যস্ত হয়ে যান, তাহলে সেক্ষেত্রে তার জায়গায় নতুন প্রেসিডেন্ট হতে পারেন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন