সদ্য সংবাদ

 কালকিনিতে ১৩১ বাড়িতে লাল নিশানা লাগিয়ে দিলো প্রশাসন  করোনার বিরুদ্ধে সাইফুল ইসলাম শান্তির অভিযান শুরু  রংপুরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  নরসিংদীতে হোম কোয়ারেন্টিনে ২০৫ প্রবাসী  কালকিনির বিভিন্ন হাট-বাজারে হাতধোয়ার জন্য বেসিন স্থাপন  পঞ্চগড়ে সাড়ে ৭শ’ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ  রংপুরে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  পার্বতীপুরে শুধুমাত্র পূজার মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী ‘বাহা পরব’ উদযাপিত  রংপুরে এরশাদের জন্মদিন পালিত  বিএফআরআইতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস পালিত  করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পঞ্চগড়ে জরুরি বৈঠক  আতঙ্কিত না হয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে : সাদ এরশাদ এমপি  কালকিনিতে দুই প্রবাসীকে আর্থিক জরিমানা  পঞ্চগড়ে সীমিত পরিসরে মুজিববর্ষ পালিত  রংপুরে ৮টি রাস্তা পাকাকরণ ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু  কালকিনিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে মুজিব উতসব পালিত  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  রংপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে কীটনাশক মুক্ত সবজির চাষ!

জামালগঞ্জের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ঝুনু মিয়া আর নেই

 Tue, Jan 28, 2020 10:16 PM
জামালগঞ্জের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ঝুনু মিয়া আর নেই

সিলেট প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জেলা বিএনপি

নেতা আলহাজ্ব সামছুল আলম তালুকদার ঝুনু মিয়া (৬৫) ইন্তেকাল করেছেন। ,(ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)।
সোমবার সন্ধায় তিনি হ্নদ যন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।
তিনি উপজেলার লক্ষীপুর গ্রামের প্রয়াত সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবুল মনসুর তালুকদার ওরফে লাল মিয়ার জেষ্ট পুত্র ও জামালগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সাজ্জাদ মাহমুদ সাজিবের পিতা।,
ঝুনু মিয়া জামালগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সহ সভাপতি হিসাবে আমৃত্যু দায়িত্বপালন করে গেছেন।
পারিবারীক সুত্র জানায়,উপজেলার ছাতিধরা জলমহালে থাকা অবস্থায় বিকেল চার টার দিকে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ঝুনু মিয়া বুকে ব্যাথা অনুভব করার পরপরই হ্নদ যন্ত্রের কিয়া বন্ধ হয়ে পড়ে।
জলমহালে থাকা লোকজন দ্রুত তাকে জামালগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেলক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসকগণ সোমবার সন্ধা ৬টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।,
মঙ্গলবার বেলা তিনটায় উপজেলার লক্ষীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে মরহুমের নামাজে জানাজা শেষে নিজ গ্রামের পারিবারীক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।,
মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, চার ছেলে, এক মেয়ে সহ অসংখ্য আত্বীয় স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন