সদ্য সংবাদ

 ১৭টি দেশের ভাষায় গাইলেন একুশের গান  কচুরিপানা খাবার উপযোগী কি না পরীক্ষা নিরীক্ষা চলছে: বাণিজ্যমন্ত্রী  মুজিববর্ষ: বাজারে আসছে স্বর্ণ ও রৌপ্য মুদ্রা, সঙ্গে ২০০ টাকার নোট  প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে, মন্টি সহ আটক চারজন   দুবাই থেকে ঢাকায় এসে গ্রেফতার শাকিল  বান্দরবানে ব্রাশফায়ারে আওয়ামী লীগ নেতা নিহত  করোনা মোকাবিলা আদৌ সম্ভব না: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা   নেতৃত্ব ছেড়ে দিন: বিএনপিকে কর্নেল অলি  নিখোঁজের দেড় বছর পর বাসায় ফিরলেন সাবেক র‌্যাব অধিনায়ক  নাইজার-ফ্রান্স যৌথ সামরিক অভিযানে নিহত ১২০  কালিয়াকৈরে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও লটারী ড্র অনুষ্ঠিত  রংপুরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত  ‘দৈনিক খবর’ এর ৪৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী রোববার  পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজির মেয়েকে পরীক্ষা হলে সুবিধা: কেন্দ্র সচিবকে অব্যাহতি  ১০০০ কোটি টাকা দেবে গ্রামীণফোন   চাষাঢ়ায় আটদিন ধরে নিখোঁজ পরিবারের ৪ সদস্য !  অন্য ভাষা প্রয়োজন তবে মাতৃভাষাকে বাদ দিয়ে নয়: প্রধানমন্ত্রী   পঞ্চগড়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  ৮ বছর পর কন্যা সন্তানের মা হলেন শিল্পা শেঠি  আশুলিয়ায় ৫ম বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান

বনভোজনের চাঁদা দিতে না পারায় ১৮ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

 Wed, Feb 12, 2020 8:50 PM
 বনভোজনের চাঁদা দিতে না পারায় ১৮ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

দিনাজপুর প্রতিনিধি:: দিনাজপুরের পার্বতীপুরে আতিক, রাকিবুল, লিটন, মুনকার নাঈম

 ও রবিউল নামে পাঁচ শিশু সবে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গণ্ডি পেরিয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হয়েছে। এখনো দেড় মাস হয়নি। প্রধান শিক্ষকের নির্দেশমত বনভোজনের নির্ধারিত চার শ’ টাকা চাঁদা দিতে না পারায় তাদের মতো একই বিদ্যালয়ের ১৮ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারের ছাড়পত্র ধরিয়ে দিয়েছেন প্রধান শিক্ষক।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার দুপুরে পার্বতীপুর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের জমিরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ে।

র্বনির্ধারিত ঘোষণা অনুযায়ী সোমবার রংপুরের পায়রাবন্দে বনভোজনের আয়োজন করে জমিরহাট উচ্চ বিদ্যালয়। এ জন্য শিক্ষার্থী জনপ্রতি চার শ টাকা চাঁদা ধরা হয়। তবে বিদ্যালয়ের ২৫০ শিক্ষার্থীর মধ্যে দরিদ্র ১৮ শিক্ষার্থী চাঁদার টাকা জোগাড় করতে না পারায় তারা বনভোজনে অংশ নিতে পারেনি।

বনভোজন উপলক্ষে বিদ্যালয় দুদিন ছুটি ঘোষণা করে। বনভোজনের ছুটি শেষে বুধবার ওই ১৮ শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ে উপস্থিত হলে প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম তাদের প্রত্যেকের হাতে ছাড়পত্রের নোটিশ তুলে দেন। তাদের মধ্যে ৬ষ্ঠ শ্রেণির পাঁচ, ৭ম শ্রেণির দুই, ৮ম শ্রেণির সাত ও ৯ম শ্রেণির চার শিক্ষার্থী রয়েছে।

বহিষ্কৃত শিক্ষার্থী ৬ষ্ঠ শ্রেণির আতিকের অভিভাবক মতিউর রহমান ও একই শ্রেণির রাকিবুল ইসলামের অভিভাবক রেজিনা বেগম বলেন, তাদের সন্তানরা চাঁদা দিতে না পারায় বনভোজনের আনন্দ থেকে বঞ্চিত হয়েছে।

এ ব্যাপারে জমিরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীরা স্থানীয় বখাটে ছেলেদের সঙ্গে নিয়ে তিনটি মাইক্রোবাসে আমাদের সারা দিন অনুসরণ ও বিদ্যালয়ের উদ্যোগে আয়োজিত বনভোজনে অংশগ্রহণকারী ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করায় ওই ১৮ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

শিক্ষার্থী বহিষ্কারের ব্যাপারে বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতির মতামত নেয়া হয়েছে কি না জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক বলেন, তিনি ঢাকায় থাকায় তার মতামত নেয়া হয়নি। তবে, সভাপতি ছাড়া বনভোজনে অংশ নেয়া বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সব সদস্যের পরামর্শে ১৮ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়।

এ ঘটনার বিষয়ে পার্বতীপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মেরাজুল ইসলাম বলেন, বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীরা পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছে বিচার চেয়ে আবেদন করেছে। এর একটি অনুলিপি আমি পেয়েছি।

প্রধান শিক্ষকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সিদ্ধান্ত ছাড়াই তিনি নিজস্ব প্রশাসনিক ক্ষমতা বলে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর করেছেন বলে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জানান।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন