সদ্য সংবাদ

  রোববার থেকে হিফজ মাদ্রাসা খোলার অনুমতি   সাংবাদিক রাশীদ উন নবী বাবু আর নেই   ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনা ৫০ হাজার টাকায় আপোষ রফা   এশিয়া কাপ বাতিল, বিশ্বকাপ না হলে আইপিএলের সম্ভাবনা : গাঙ্গুলী   ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনায় সংসদে বিল পাস   ১২৫ বাংলাদেশিকে বিমান থেকে নামতে দিচ্ছে না ইতালি   দেশে করোনা শনাক্তে ফি আরোপ অমানবিক, আত্মঘাতী: টিআইবি  যুক্তরাষ্ট্রের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি চীন: এফবিআই  রূপকথাকেও হার মানায় রিজেন্টের সাহেদের উত্থান  জনকল্যাণকর কর্মসূচি দিয়ে মানুষের পাশে থাকবো : আমু  সংসদে দাঁড়িয়ে কাঁদলেন প্রধানমন্ত্রী  সাঘাটায় বাঙ্গালী নদীর পানি কমার সাথে ভয়াবহ ভাঙন  পঞ্চগড়ে প্রণোদনার দাবিতে কিন্ডারগার্টেন শিক্ষককদের কর্মসূচি  গাইবান্ধায় প্রথম আলো ট্রাষ্টের ত্রাণ বিতরণ   মুজিবনগর স্মৃতিসৌধে পুষ্পার্ঘ অর্পন করলে দুই ডিসি   সাঘাটায় টাকা নিয়ে দলিল করে না দিয়ে উল্টো গাছ কর্তন  অস্ট্রেলিয়া থেকে সঙ্গা ও সপ্তক ফেরার পরই সমাহিত হবেন এন্ড্রু কিশোর  ঝিনাইদহে পথচারীদের মাঝে ট্রাফিক সার্জেন্ট মোস্তাফিজুর রহমানের মাস্ক বিতরণ  ঝিনাইদহে গাঁজাসহ আদালতে কর্মরত পুলিশ সদস্য আটক  ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বলসোনারো করোনায় আক্রান্ত

করোনাভাইরাস: বিদেশ ভ্রমণ থেকে বিরত থাকার পরামর্শ

 Sun, Feb 23, 2020 11:48 PM
করোনাভাইরাস: বিদেশ ভ্রমণ থেকে বিরত থাকার পরামর্শ

এশিয়া খবর ডেস্ক:: বিশ্ব জুড়ে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের সম্ভাবনায় বিদেশ ভ্রমণ

 থেকে বিরত থাকতে পরামর্শ দিয়েছে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)। তবে এটি ভ্রমণসতর্কতা, নিষেধাজ্ঞা নয়। বিদেশে যেতে হলে ভ্রমণের সময় কঠোরভাবে সতর্কতা মেনে চলার আহ্বান জানানো হয়েছে।

করোনাভাইরাস নিয়ে নিয়মিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে রবিবার আইইডিসিআরের পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা এ সতর্কবার্তা দেন। এর আগে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের শুরুতে চীন ভ্রমণের বিষয়ে সতর্ক থাকার কথা বলা হয়েছিল। এখন পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে বাংলাদেশে থেকে সারা বিশ্বে ভ্রমণের জন্য এই সতর্কতা দেওয়া হয়েছে।

মীরজাদী সেব্রিনা বলেন, চীনের বাইরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে। এসব রোগীর অনেকেই কখনো চীনে যাননি বা কোনো চীনা ব্যক্তির সংস্পর্শে আসেননি। আবার অনেকের ক্ষেত্রে সংক্রমণের উৎস জানা যাচ্ছে না। ফলে করোনাভাইরাস নিয়ে পরিস্থিতি বৈশ্বিকভাবে জটিল হচ্ছে।

সতর্কতার অংশ হিসেবে সেব্রিনা বলেন, শ্বাসতন্ত্রের সমস্যা আছে এমন ব্যক্তির কাছাকাছি না যাওয়া, করমর্দন ও কোলাকুলি না করা, জনসমাগমস্থল এড়িয়ে চলতে হবে। তারপরও ভ্রমণ করার পর কারও মধ্যে শ্বাসতন্ত্রের রোগের লক্ষণ দেখা গেলে দ্রুত আইইডিসিআরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে।

সারা বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৭৭ হাজার ৭৯৪। মারা গেছেন ২ হাজার ৩৪৮। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে এ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৯৯ জন ও মারা গেছে ১০৯ জন। চীন ছাড়াও ২৮টি দেশে এ পর্যন্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা নতুনভাবে উদ্বেগ তৈরি করেছে। এর অংশ হিসেবে ওই দেশের সরকার সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে। চীনের পরে এই দেশটিতেই আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। সিঙ্গাপুরেও রোগীর সংখ্যা উল্লেখযোগ্য, ৮৬ জন।

আইইডিসিআর এখন পর্যন্ত ৭৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে কারও মধ্যে করোনার সংক্রমণ পায়নি। আবার চীনের উহানফেরত ৩১২ জন যাত্রী কোয়ারেন্টাইন শেষে নবম দিনেও সুস্থ আছেন। সিঙ্গাপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত পাঁচ বাংলাদেশি সেখানকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাদের মধ্যে একজন নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রয়েছেন। এর বাইরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে এক বাংলাদেশি আক্রান্ত হয়েছেন।

মীরজাদী সেব্রিনা জানান, এই রোগের প্রতিষেধক নেই বলে প্রতিরোধে জীবনাচরণের ওপর জোর দিতে হবে। এর পূর্ব প্রস্তুতির অংশ হিসেবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সারা দেশের হাসপাতালগুলোতে পৃথক ইউনিটের ব্যবস্থা করেছে।

তিনি বলেন, ঢাকার তিনটি হাসপাতালকে বিশেষভাবে প্রস্তুত করা হয়েছে। এর মধ্যে একটি হাসপাতালে নতুন করে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র ও ডায়ালাইসিসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। করোনার জন্য পৃথক চিকিৎসাপদ্ধতি না থাকলেও ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। রোগী এলে কীভাবে নমুনা সংগ্রহ করা হবে, পরীক্ষা করে ফলাফল কীভাবে দেওয়া হবে— সেখানে এসব বিষয় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এর পাশাপাশি আইইডিসিআরের দক্ষতা বৃদ্ধি ও প্রস্তুতিও বাড়ানো হয়েছে।

জনগণকে আতঙ্কিত না হতে ও গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার পরামর্শ দেন আইইডিসিআরের পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন