সদ্য সংবাদ

 কালকিনিতে ১৩১ বাড়িতে লাল নিশানা লাগিয়ে দিলো প্রশাসন  করোনার বিরুদ্ধে সাইফুল ইসলাম শান্তির অভিযান শুরু  রংপুরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  নরসিংদীতে হোম কোয়ারেন্টিনে ২০৫ প্রবাসী  কালকিনির বিভিন্ন হাট-বাজারে হাতধোয়ার জন্য বেসিন স্থাপন  পঞ্চগড়ে সাড়ে ৭শ’ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ  রংপুরে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  পার্বতীপুরে শুধুমাত্র পূজার মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী ‘বাহা পরব’ উদযাপিত  রংপুরে এরশাদের জন্মদিন পালিত  বিএফআরআইতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস পালিত  করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পঞ্চগড়ে জরুরি বৈঠক  আতঙ্কিত না হয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে : সাদ এরশাদ এমপি  কালকিনিতে দুই প্রবাসীকে আর্থিক জরিমানা  পঞ্চগড়ে সীমিত পরিসরে মুজিববর্ষ পালিত  রংপুরে ৮টি রাস্তা পাকাকরণ ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু  কালকিনিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে মুজিব উতসব পালিত  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  রংপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে কীটনাশক মুক্ত সবজির চাষ!

দিল্লিতে মুসলিম নির্যাতনের প্রতিবাদে ঢাকায় বিশাল বিক্ষোভ

 Fri, Feb 28, 2020 11:04 PM
দিল্লিতে মুসলিম নির্যাতনের প্রতিবাদে ঢাকায় বিশাল বিক্ষোভ

এশিয়া খবর ডেস্ক:: ভারতের দিল্লিতে মুসলিমদের ওপর নির্যাতনসহ মসজিদ-মাদ্রাসায়

 আগুন দেয়ার প্রতিবাদে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল করেছে বাংলাদেশের সমমনা ইসলামী দলগুলো।

শুক্রবার জুমার নামাজের পর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি বের হয়। বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেট থেকে শুরু হয়ে নয়াপল্টনের বিভিন্ন সড়ক প্রদিক্ষণ করে।

এ সময় দিল্লির আক্রান্ত মুসলিম ও মসজিদের ছবি সংবলিত পোস্টার ও প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করার পাশাপাশি সেখানকার মুসলিমদের ওপর হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে বিভিন্ন স্লোগান দেন মুসল্লিরা।

বিক্ষোভ মিছিলপূর্ব সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে সমমনা ইসলামী দলগুলোর নেতা ও জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মহাসচিব নূর হোসাইন কাসেমী বলেন, দিল্লিতে মুসলমানদের পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হচ্ছে। সেখানে কোনো নিরাপত্তা নেই। আগুন দিয়ে মসজিদ পোড়ানো হচ্ছে। মুসলমানদের ওপর নির্যাতন চলছে। অনতিবিলম্বে এই নির্যাতন ও হত্যাকাণ্ড বন্ধ করা হোক।

সমাবেশ থেকে বিশ্ব মুসলিম সম্প্রদায়কে ভারতের মুসলমানদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান বক্তারা।

বক্তারা বলেন, ভারতের সাম্প্রদায়িক মোদি সরকার সংখ্যালঘু মুসলিমদের ওপর নির্মম নির্যাতন চালাচ্ছে। মুসলমানদের বাড়িঘর আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দিয়ে তাদের উচ্ছেদ করা হচ্ছে। নারী ও শিশুদের ওপরও নির্মম নির্যাতন চালানো হচ্ছে। এগুলো বন্ধ করতে বিশ্ব মুসলিম নেতাদের এগিয়ে আসতে হবে।

সাম্প্রদায়িক হামলার জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও তার দল বিজেপিকে দায়ী করে ঢাকায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে মোদির আমন্ত্রণ প্রত্যাহারের দাবি জানান বক্তারা।

প্রসঙ্গত, ভারতে বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) নিয়ে গত রোববার থেকে দিল্লিতে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন