সদ্য সংবাদ

 কালকিনিতে ১৩১ বাড়িতে লাল নিশানা লাগিয়ে দিলো প্রশাসন  করোনার বিরুদ্ধে সাইফুল ইসলাম শান্তির অভিযান শুরু  রংপুরে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  নরসিংদীতে হোম কোয়ারেন্টিনে ২০৫ প্রবাসী  কালকিনির বিভিন্ন হাট-বাজারে হাতধোয়ার জন্য বেসিন স্থাপন  পঞ্চগড়ে সাড়ে ৭শ’ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ  রংপুরে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ  পার্বতীপুরে শুধুমাত্র পূজার মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী ‘বাহা পরব’ উদযাপিত  রংপুরে এরশাদের জন্মদিন পালিত  বিএফআরআইতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস পালিত  করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পঞ্চগড়ে জরুরি বৈঠক  আতঙ্কিত না হয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে : সাদ এরশাদ এমপি  কালকিনিতে দুই প্রবাসীকে আর্থিক জরিমানা  পঞ্চগড়ে সীমিত পরিসরে মুজিববর্ষ পালিত  রংপুরে ৮টি রাস্তা পাকাকরণ ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু  কালকিনিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে মুজিব উতসব পালিত  কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  রংপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালিত  পঞ্চগড়ে কীটনাশক মুক্ত সবজির চাষ!

২৬ হাজার স্মার্ট ফোন আমেরিকায় রপ্তানি করা হবে

পঞ্চগড়ে নির্মাণাধীন ট্রেনিং সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনকালে জুনাইদ আহমেদ পলক

 Sat, Feb 29, 2020 8:50 PM
২৬ হাজার স্মার্ট ফোন আমেরিকায় রপ্তানি করা হবে

পঞ্চগড় থেকে মোঃ কামরুল ইসলাম কামু: ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘দীর্ঘ ৬৮ বছর পিছিয়ে থাকা বিলুপ্ত ছিটমহলবাসীদের আইসিটি বিষয়ে প্রশিক্ষণ ও কর্মসংস্থানের জন্য ৮৬ লাখ টাকা ব্যয়ে দ্বিতল ‘ডিজিটাল সার্ভিস এমপ্লয়মেন্ট এন্ড ট্রেনিং সেন্টার’ মুজিববর্ষে উপহার দেয়া হলো।’

শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) পঞ্চগড় সদর উপজেলার বিলুপ্ত গাড়াতি ছিটমহলের মফিজার রহমান ডিগ্রী কলেজ মাঠে নির্মাণাধীন ট্রেনিং সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনকালে তিনি একথা বলেন। পলক বলেন, মুজিববর্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে প্রযুক্তি নির্ভর বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে ৪০ হাজার ৫০০ জনকে আইসিটি লার্নিংয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। তিনি আরো বলেন, ২০০৮ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নত প্রযুক্তি নির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার যে প্রকল্প দিয়েছেন তার সুযোগ্য সন্তান সজীব ওয়াজেদ জয়ের পরামর্শে, তা দ্রুত এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। আমাদের আইসিটি সেক্টরে ১০ লাখ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান হয়েছে। এ খাতে প্রায় ৬ লাখ ফ্রিল্যান্সার কাজ করছে। প্রায় ২ লাখ তরুণ-তরুণী সফ্টওয়্যার টেকনোলজিতে কাজ করছে। লক্ষাধিক ছেলে-মেয়ে ‘কল সার্ভিস’ এ কাজ করছে। ৫০ হাজারেরও বেশি ছেলে-মেয়ে ‘ই-কমার্স’ এ কাজ করছে। এসময় তিনি আরো বলেন, স্মার্টফোন, ল্যাপটপ ও স্মার্ট টেলিভিশন এখন দেশে তৈরি করে রপ্তানির উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আগামী ১ মার্চ বাংলাদেশে তৈরি ওয়ালটনের ২৬ হাজার স্মার্ট ফোন প্রযুক্তি নির্ভর আমেরিকায় রপ্তানি করা হবে। ওয়ালটন ১৮ লাখ ফ্রিজ উতপাদন করে দেশে ও বিদেশে রপ্তানী করছে। মন্ত্রী বলেন, গত ৩ বছরে বাংলাদেশে ১১টি মেনুফ্যাকচারিং এবং অ্যাসেম্বলিং প্লান্ট স্থাপিত হয়েছে। প্রতি বছর ৪ কোটি মোবাইল, ১০ লাখ ল্যাপটপ আমদানি করে ‘লার্নিং এন্ড আর্নিং প্রজেক্ট’ এর মাধ্যমে মুজিববর্ষে ৪০ হাজার শিক্ষিত বেকারকে প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ করে গড়ে তোলা হবে; যাতে করে তারা যেন প্রযুক্তি ব্যবহার করে ঘরে বসেই নিজেদের আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ পায়। যুবকদের এগিয়ে যাবার ক্ষেত্রে তিনটি বাধার কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, আমাদের সামনে তিনটি বাধা ও শত্রু রয়েছে। এ তিনটি বাধা হলো- মাদক, জঙ্গীবাদ ও দুর্নীতি। এ তিনটি বাধা বা শত্রুকে অতিক্রম করে শেখ হাসিনার ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ে তুলতে হবে। এসময় মন্ত্রী প্রযুক্তির ভালো দিক ব্যবহার করে তরুণদের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার আহ্বান জানান। এসময় মন্ত্রী আরোবলেন, শিক্ষিত তরুণ বেকারদের আত্মকর্মসংস্থানের লক্ষ্যে দেশের ৬৪টি জেলায় ‘শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ইনকুবেশন সেন্টার’ স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ৮টি শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ইনকুবেশন সেন্টারের নির্মাণ কাজ চলমান, ১১টি প্রক্রিয়াধীন। এতে করে লাখ লাখ উদ্যোক্তা সৃষ্টির মধ্যদিয়ে দেশে প্রযুক্তিনির্ভর কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। নির্মাণাধীন ট্রেনিং সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে পঞ্চগড়-১ আসনের সংসদ সদস্য মো. মজাহারুল হক প্রধান, জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার সাদাত সম্রাট, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। পরে মন্ত্রী জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলার হাইটেক পার্কের প্রস্তাবিত স্থান পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, শিক্ষিত তরুণ বেকারদের আত্মকর্মসংস্থানের লক্ষ্যে দেশের ৬৪টি জেলায় শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ইনকুবেশন সেন্টার স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ৮টি শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ইনকুবেশন সেন্টারের নির্মাণ কাজ চলমান, ১১টি প্রক্রিয়াধীন। এর আগে সকালে পঞ্চগড় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও ও নীলফামারী জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি), শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব ও ভাষা প্রশিক্ষণ ল্যাবের মনিটরিং কর্মকর্তাবৃন্দ, আইসিটি ও কম্পিউটার শিক্ষকগণ এবং ইউডিসি ও ইনফো সরকার প্রকল্পের ফেইস-৩ এর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন