সদ্য সংবাদ

 সারাদেশে করোনায় আক্রান্ত ১১৩০২ পুলিশ সদস্য   দেবীগঞ্জে ভারি বর্ষণ পানি তোড়ে ভেসে গেছে সড়ক  পুরনো এক্স-রে মেশিনে নতুন রঙ: দুর্নীতি ধরলেন সংসদ সদস্য  নবীনগরে চাচাতো ভাইয়ের ঘুষির আঘাতে বড় ভাই নিহত  সাঘাটায় নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতকরণে ওয়ার্কসপ অনুষ্ঠিত  প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ১২ সদস্যের ডেল্টা কাউন্সিল গঠন   মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি,সাক্ষীরা জানেনা তারা ঘটনার সাক্ষী   দেশে ভয়াবহ দুঃশাসন চলছে: ফখরুল   বাংলাদেশি গার্মেন্টস কর্মীদের টাকা পাঠাচ্ছেন এক ভিনদেশি ব্যবসায়ী   ডিসি পদে নিয়োগ পাওয়া কয়েকজনকে ঘিরে বিতর্ক   দেশে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ রেকর্ড ৩৬.০১৬ বিলিয়ন ডলার  চাকরির বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে ৩ নারীসহ গ্রেপ্তার ৭   করোনামুক্ত হলেন জোকোভিচ ও তার স্ত্রী  বাজেটে রাষ্ট্রীয় সম্পদ লুটের সুযোগ বেড়েছে : ফখরুল   রাষ্ট্রায়ত্ত সব পাটকল বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার   করোনা: ঝিনাইদহ জেলা, ৫ জনের মৃত্যু আক্রান্ত ২৩৬!  প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে আপত্তিকর অবস্থায় ইউপি সদস্য ধরা  কুয়েতে এমপি পাপুল ব্যাংক হিসাবে ১৩৭ কোটি ৫০ লাখ টাকা জব্দ।  আড়াইহাজারে মন্দিরে অগ্নি সংযোগ ঘটনা  রূপগঞ্জে হত্যা পর লাশে সিমেন্টের প্রলেপ

পেঁয়াজের কেজি ২৫ টাকা!

 Sat, Feb 29, 2020 10:30 PM
 পেঁয়াজের কেজি ২৫ টাকা!

নাটোর প্রতিনিধি:: হঠাৎ করেই নাটোরের নলডাঙ্গা বাজারে পেঁয়াজের দাম কমেছে।

 এক সপ্তাহ আগে কেজি প্রতি ৭০ থেকে ৮০ টাকা দরে বিক্রি হওয়া পেঁয়াজ এখন অর্ধেক দরে নেমে এসেছে। ভারত পেঁয়াজ রপ্তানির ঘোষণা দেওয়ায় দামের এমন পতন বলে মনে করছেন চাষী ও ব্যবসায়ীরা। দাম কমায় ভোক্তাদের মধ্যে স্বস্তি ফিরলেও দরপতনে হতাশ পেঁয়াজ চাষীরা।

শনিবার নলডাঙ্গা হাটে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৩৫ থেকে ৪০ টাকায়। তবে শহরের বাজারগুলোতে খুচরা বিক্রেতারা প্রতি কেজি ৬০ টাকা দরে  বিক্রি করেছেন।

জানা যায়, শনিবার নলডাঙ্গা হাটে পেঁয়াজ পাইকারী প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৫ থেকে ৩০ টাকা আর খুচরা ৩৫ থেকে ৪০ টাকা। গত মঙ্গলবার হাটে প্রতি কেজি পেঁয়াজ খুচরা বিক্রি হয় ৭০ থেকে ৮০ টাকা দরে।

পেঁয়াজ বিক্রেতা আলী আক্কাস বলেন, ধারণা ছিল ভারত থেকে আমদানীর সিদ্ধান্তে পেঁয়াজের দাম সর্বোচ্চ ১৫ থেকে ২০ টাকা কমতে পারে। দাম এতটা পড়ে যাবে ভাবিনি। জানলে হাটে পেঁয়াজ উঠাতাম না।

শরিফুল ইসলাম নামের অপর এক ব্যবসায়ী বলেন, গত কয়েক বছর পেঁয়াজে ক্রমাগত লোকসান বহন করতে হয়েছে। গত বছর ভরা মৌসুমে ৫ টাকা কেজি পেঁয়াাজ বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছিলাম। এবার ভেবেছিলাম সেই ক্ষতিটা পুষিয়ে নিতে পারব। কিন্তু বড় দরপতনে আর সেটি সম্ভব হবে না।

বশির উদ্দিন নামের এক পেঁয়াজ চাষী জানান, এবার পেঁয়াজের বীজ কিনতে ৭ থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত খরচ হয়েছে। তাছাড়া কন্দ পেঁয়াজ উৎপাদনে খরচ অনেক বেশি পড়েছে। সেই তুলনায় দাম কেজিতে অন্তত ৫০ থেকে ৬০ টাকার মধ্যে থাকলে কৃষক লাভবান হতো।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন