সদ্য সংবাদ

 চিকিৎসকের আচরণের প্রতিবাদ করেছেন পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন  ডাক্তার -পুলিশের মাঠ পর্যায়ের বাস্তবতা  করোনা আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন অভিনেত্রী কবরী  আশা ও তামাশার লকডাউন  কত বছর করোনার সঙ্গে থাকতে হবে কেউ জানিনা- ডা ফাহিম  ডলারের লোভে দুই মেয়েই অপহরণ করেছিলেন ম্যারাডোনাকে!  জনবল নিয়োগে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে অবিশ্বাস্য দুর্নীতি, কঠোর শাস্তি চায় টিআইবি  অভিষেক 'উমরাও জান' ছবিতে ঐশ্বরিয়ার প্রেমে পড়েন।   ছাত্রলীগ নেতার জিন্স প্যান্ট চুরির ভিডিও ভাইরাল   লকডাউনে পুলিশের কাছ থেকে ‘মুভমেন্ট পাস’ নিতে হবে।   নরেন্দ্র মোদির পরিকল্পনায় ৪ মুসলমানকে গুলি করে হত্যা-মমতা   এক সপ্তাহ সব ধরনের অফিস ও পরিবহন চলাচল বন্ধ থাকবে  র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হেফাজতের ৪ নেতা  আহমদ শফীর মৃত্যু: বাবুনগরীসহ ৪৩ জনের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দিল পিবিআই  অপরিকল্পিত লকডাউন বিপজ্জনক পরিস্থিতির : রব  আড়াইহাজারে নবম শ্রেনীর ছাত্রীর ধর্ষক গ্রেফতার   নতুন নির্দেশনা, সাত দিন বন্ধ থাকবে ব্যাংক   অভিনেত্রী পায়েলের ওপর হামলা   বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের ডাক মির্জা ফখরুলের  নারায়ণগঞ্জ ডি‌বি পু‌লি‌শের সোর্স প‌রিচ‌য়ে বেপরোয়া সেই মোফাজ্জল ও মিশু চক্র

কারিনার কাজকে নিয়মিত অনুসরণ করি : সারা আলী খান।

 Mon, Mar 9, 2020 11:26 PM
কারিনার কাজকে নিয়মিত অনুসরণ করি : সারা আলী খান।

এশিয়া খবর ডেস্ক:: তারকাদের সন্তানদের তারকা ইমেজের মোহ কিছুটা কমই কাজ করে।

ছোট থেকে তারকাদের মধ্যে গড়ে ওঠে নিজের জগত্। তাই একই অঙ্গনে যখন নিজের পেশাও শুরু হয় তখন নিজেকে তারকা মনে হওয়ার বাড়তি মোহ কাজ করে না অনেকেরই। তবে এর বিপরীতও হয়।

সম্প্রতি এক সাক্ষাত্কারে এই নিয়ে মন্তব্য করেছেন সারা আলী খান। তারকা পরিবারের মেয়ে সারা। ছোটবেলা থেকেই মা ও বাবাকে অভিনয়ের সঙ্গে জড়িয়ে থাকতে দেখেছেন। কিন্তু কোনোদিনই গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডের স্টারডাম কী তা বুঝে উঠতে পারেননি তিনি।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে সারা আলী খান বলেন, ‘আমার বাবা-মা দুজনই অভিনেতা। কিন্তু আমার মনে হয় না যে, আমি তারকাদের পরিবারে বড় হয়েছি। আমার বাবা যেমন সব সময়ে পড়াশোনার বিষয় খুব গুরুত্ব দিয়েছেন। আর মা সবসময় বলেছেন, মাথা সব সময়ে নিচু রাখবে, কথা বলবে তোমার কাজ।’

এই জন্যই কোনোদিনই বলিউডের তারকার সন্তান বলে নিজেকে মনে করতে পারেননি তিনি। সাইফ আলী খান ও অমৃতা সিং-এর মেয়ে আরও বলেন, ‘আমি কোনোদিনই বলিউডের কাছাকাছি ছিলাম না। আমার মনেই হয় না যে, আমি তারকাদের পরিবারের মানুষ। আমি নিজেকেও তারকা হিসেবে দেখি না।’

এছাড়া ছোটবেলার কথাও শেয়ার করেছেন সারা। অভিনেত্রী বলেন, ‘আমি ছোটবেলায় খুব দুষ্টু ছাত্রী ছিলাম। সবার সঙ্গে নানা ধরনের প্র্যাঙ্ক করতাম। একবার মনে আছে ফ্যানের ব্লেডে আমি আঁঠা ফেলে দিয়েছিলাম। তারপরে ফ্যান চালানোর সঙ্গে সঙ্গে সেই আঁঠা সবার গায়ে পড়েছিল। আমাকে প্রায় সাসপেন্ড করে দেওয়া হচ্ছিল এই কাণ্ড ঘটানোর জন্য। আমার প্রিন্সিপাল জিজ্ঞেস করেছিলেন আমি কেন এটা করেছি। কিন্তু আমার কাছে কোনো উত্তর ছিল না।’

তবে শুধু বাবা ও মা নয়, কারিনা কাপুরের থেকেও একটি জিনিস শিখেছেন সারা। সারা বলেন, ‘আমি কারিনা কাপুর ও তার কাজকে খুবই পছন্দ করি। কারিনা খুবই পেশাদার। সবসময়ই তার কাজকে খুব গুরুত্ব দেন তিনি। কারিনার কাজকে নিয়মিত অনুসরণ করি আমি।’

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন