সদ্য সংবাদ

 সারাদেশে করোনায় আক্রান্ত ১১৩০২ পুলিশ সদস্য   দেবীগঞ্জে ভারি বর্ষণ পানি তোড়ে ভেসে গেছে সড়ক  পুরনো এক্স-রে মেশিনে নতুন রঙ: দুর্নীতি ধরলেন সংসদ সদস্য  নবীনগরে চাচাতো ভাইয়ের ঘুষির আঘাতে বড় ভাই নিহত  সাঘাটায় নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতকরণে ওয়ার্কসপ অনুষ্ঠিত  প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ১২ সদস্যের ডেল্টা কাউন্সিল গঠন   মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি,সাক্ষীরা জানেনা তারা ঘটনার সাক্ষী   দেশে ভয়াবহ দুঃশাসন চলছে: ফখরুল   বাংলাদেশি গার্মেন্টস কর্মীদের টাকা পাঠাচ্ছেন এক ভিনদেশি ব্যবসায়ী   ডিসি পদে নিয়োগ পাওয়া কয়েকজনকে ঘিরে বিতর্ক   দেশে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ রেকর্ড ৩৬.০১৬ বিলিয়ন ডলার  চাকরির বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে ৩ নারীসহ গ্রেপ্তার ৭   করোনামুক্ত হলেন জোকোভিচ ও তার স্ত্রী  বাজেটে রাষ্ট্রীয় সম্পদ লুটের সুযোগ বেড়েছে : ফখরুল   রাষ্ট্রায়ত্ত সব পাটকল বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার   করোনা: ঝিনাইদহ জেলা, ৫ জনের মৃত্যু আক্রান্ত ২৩৬!  প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে আপত্তিকর অবস্থায় ইউপি সদস্য ধরা  কুয়েতে এমপি পাপুল ব্যাংক হিসাবে ১৩৭ কোটি ৫০ লাখ টাকা জব্দ।  আড়াইহাজারে মন্দিরে অগ্নি সংযোগ ঘটনা  রূপগঞ্জে হত্যা পর লাশে সিমেন্টের প্রলেপ

মুন্সিগঞ্জে ইউএনওসহ নতুন করে ২৪ জন করোনা আক্রান্ত

 Mon, Jun 1, 2020 9:21 PM
 মুন্সিগঞ্জে ইউএনওসহ নতুন করে ২৪ জন করোনা আক্রান্ত

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি :: মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাবিরুল ইসলাম খানসহ জেলায়

নতুন করে আরও ২৪ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৭৩৩ জনে। এরমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২২৮ জন ও মৃত ২০ জন রয়েছেন। করোনা পরীক্ষার ফলাফলের অপেক্ষায় রয়েছেন আরও ৩৮৯ জন। সোমবার (১ জুন) দুপুর আড়াইটার দিকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন মুন্সিগঞ্জ সিভিল সার্জন ডা. আবুল কালাম আজাদ। সিভিল সার্জন জানান, গত ২৯ ও ৩০ মে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব প্রিভেন্টিভ অ্যান্ড সোশ্যাল মেডিসিনে (নিপসম) পাঠানো নমুনার মধ্যে ১৯৬ জনের ফল এসেছে। সেখানে ২৪ জনের করোনা পজিটিভ হওয়ার কথা জানানো হয়। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে , মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলায় ৫ জন, সিরাজদিখান উপজেলায় ৫ জন , লৌহজং উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তাসহ ৫ জন ও শ্রীনগর উপজেলায় ৯ জন রয়েছেন। এর মধ্যে সদর উপজেলার  মালপাড়ার এলাকার পুরুষ (৪৫), সরদার পাড়া এলাকার পুরুষ (৪৮), মিরকাদিম এলাকার পুরুষ (৩৭), কোটগাঁও এলাকার নারী (২১), ইদ্রাকপুর এলাকার পুরুষ (৪৮)।
সিরাজদিখান উপজেলায় বাতির ভোগ এলাকার শিশু (৬), নিমতলা মৃত নারী সাধনা (৫৫), নারী (৫০), নারী চিকিৎসক (৩০), সেগুনাশুর এলাকায় নারী (২৫)। লৌহজং উপজেলায় ইউএনও মো. কাবিরুল ইসলাম খান (৩৫), উপজেলার এক নারী (২০), পুরুষ (৩৮), লৌহজং থানা পুলিশ পুরুষ (৪০) ও (৩৮)।
শ্রীনগর উপজেলায় বালাসুর এলাকার পুরুষ (২৯) , নারী (২৮) ও শিশু (৬) , আলামিন বাজার এলাকার পুরুষ (৪৯), দক্ষিণ পাইকসার এলাকার পুরুষ (৩১), কবতুর খোলা এলাকার পুরুষ (৬৫), দক্ষিণ উম পাড়া এলাকার পুরুষ (৬৫), দেলভোগ এলাকার পুরুষ
(২৩),  শিশু (৮) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সিভিল সার্জন ডা. আবুল কালাম আজাদ বলেন, স্বাস্থ্য বিভাগ আগের মতো স্বাভাবিক রূপে ফিরে এসেছে। আগের নিয়ম অনুযায়ী এখন থেকে স্বাস্থ্য বিভাগের কার্যক্রম চলবে। তবে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়ে চলছে । ইতোমধ্যে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগে চিকিৎসক ও নার্সসহ বিভিন্ন পর্যায় ৯৩ জন কর্মী আক্রান্ত হয়েছেন। করোনার মধ্যেই আমাদের থাকা লাগবে। তাই ব্যক্তি উদ্যোগে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে পারলে সংক্রমণ রোধ করা সম্ভব । জেলার সর্বত্রই করোনা ছড়িয়ে পড়েছে এসময় মাস্ক ছাড়া বাড়ি থেকে বের হওয়া যাবে না । সকল ধরনের ভিড় এড়িয়ে চলতে হবে । আশার কথা হচ্ছে যারা পূর্বে আক্রান্ত হয়েছিলেন তারা সুস্থ হয়ে বাড়িতে ফিরতে শুরু করেছেন। বাকিদেরও অবস্থা ভালো আছে। জেলা সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানাযায়, সোমবার ১৫৪ জনসহ জেলার মোট ৪ হাজার ৫২২ জনের নমুনা এ পাঠানো হয়। ইতোমধ্যে ৪ হাজার ১৩৩ জনের নমুনার ফল পাওয়া গেছে।
এ পর্যন্ত সদর উপজেলায় ৩৫৫ জন, টঙ্গিবাড়ী উপজেলায় ৪৩ জন, সিরাজদিখান উপজেলায় ১০৪ জন, শ্রীনগর উপজেলায় ৭৪ জন, লৌহজং উপজেলায় ৭৪ জন এবং গজারিয়া উপজেলায় ৮৩ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেছে। এর মধ্যে সদরে একজন স্বাস্থকর্মীসহ ১৩ জন, টংগিবাড়ীতে তিনজন ও শ্রীনগর উপজেলায় একজন ও লৌহজং উপজেলায় তিনজন করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যায়।
এদিকে, নতুন করে সদর উপজেলায় ১১ জন, টংগিবাড়ী উপজেলায় একজন ও গজারিয়া উপজেলায় তিনজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এ নিয়ে জেলায় ২২৮ জন করোনামুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরলেন। এর মধ্যে মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলায় ৯৩ জন, সিরাজদিখান উপজেলায় ৪৬ জন, শ্রীনগর উপজেলায় ৩৯ জন, টংগিবাড়ী উপজেলায় ২২ জন, লৌহজং উপজেলা ১০ জন ও গজারিয়া উপজেলায় ১৮ জন রয়েছেন।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন