সদ্য সংবাদ

 কিশোরীকে গণধর্ষণের মামলায় ডিবির এএসআই গ্রেপ্তার  আওয়ামী লীগ চায় না ভোটাররা কেন্দ্রে আসুক : বিএনপি  সাকিবের নিষেধাজ্ঞায় কষ্ট পেয়েছিলাম  র‌্যাবের শীর্ষ কমান্ডারদের উপর নিষেধাজ্ঞা জারির জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটরদের আহ্বান  সু চিকে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বলল যুক্তরাষ্ট্র  ইরফান সেলিমের মামলা তদন্ত করবে ডিবি   বাপ-বেটার সম্পদের তথ্য সংগ্রহ করছে দুদক   ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের অল্প সুদে ঋণ দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর  বৈদেশিক মুদ্রা বিএনপি নেতা আজাদের ভাই গ্রেফতার  ভুয়া পুলিশ ডিবির সোর্স আনোয়ার এখন থানার ওসির ক্যাশিয়ার!  মহানবী (সা.)-কে ব্যঙ্গ : ফ্রান্সের ওপর খেপেছেন বিশ্বনেতারা  সেই দুই বোনকে এখনই বাবার বাসায় প্রবেশ নিশ্চিতের নির্দেশ  নতুন প্রেমে পড়েছেন স্টার জলসার ‘পাখি’   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে ‘কবরে’ পাঠান: ডা. জাফরুল্লাহ  এ রাষ্ট্র প্রজার, নাগরিকের নয়   এ বাসা থেকেই ঢাকার সিসি ক্যামেরা নিয়ন্ত্রণ!  অবৈধ অস্ত্র ও মাদক রাখায় ইরফান সেলিমের ১ বছরের জেল   দেশে এক ব্যক্তির শাসন প্রতিষ্ঠা করেছে: ফখরুল   ঢাকার দুই সিটির ময়লা বাণিজ্যে কাউন্সিলররা  জাতিকে বিভ্রান্ত করতে পারে এমন সংবাদ পরিবেশন নয়: প্রধানমন্ত্রী

লকডাউনে একসাথেই ছিলেন সুশান্ত-রিয়া, বেরিয়ে এলো গোপন তথ্য

 Fri, Jun 19, 2020 11:08 PM
 লকডাউনে একসাথেই ছিলেন সুশান্ত-রিয়া, বেরিয়ে এলো গোপন তথ্য

এশিয়া খবর ডেস্ক:: তদন্তে নয়া মোড়! ভারতের মুম্বাইয়ে পুলিশ স্টেশনে সুশান্ত সিংহ রাজপুতের প্রেমিকা

 রিয়া চক্রবর্তীকে বৃহস্পতিবার প্রায় আট ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ চালানোর পর পুলিশের হাতে উঠে এল চাঞ্চল্যকর কিছু তথ্য।

মুম্বাইয়ের পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, রিয়া তার বয়ানে স্বীকার করেছেন, সুশান্তের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল তার। তিনি আরো জানিয়েছেন, এ বছরের শেষের দিকে তাদের বিয়ের খবর, একেবারেই মিথ্যে নয়, সত্যি! সে জন্য চলছিল বাড়ি খোঁজাও। শুধু সম্পর্কেই নয়, লিভ-ইন রিলেশনে ছিলেন তারা। লকডাউনের একটা দীর্ঘ সময় সুশান্তের বান্দ্রার ফ্ল্যাটে একসঙ্গে থাকছিলেন রিয়া-সুশান্ত। কিন্তু সুশান্তের মৃত্যুর দিন কয়েক আগে আচমকাই তার সঙ্গে মনোমালিন্য হয় রিয়ার। রিয়া বেরিয়ে আসেন এবং আলাদা থাকতে শুরু করেন।

রিয়ার ফোন স্ক্যান করে পাওয়া গিয়েছে দু’জনের ব্যক্তিগত মুহূর্তের অসংখ্য ছবি, টেক্সট মেসেজ। মুম্বাই পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঝগড়া হওয়ার পরেও দু’জনের কথা হত। এমনকি মৃত্যুর আগের রাতে ঘুমোনোর আগে রিয়াকেই শেষ বার ফোন করেছিলেন সুশান্ত, জানা গেছে তা-ও।

তবে রিয়ার বয়ানে বারবারই উঠে এসেছে সুশান্তের আচরণগত পরিবর্তনের কথা। রিয়া পুলিশকে প্রমাণ দেখিয়েছেন, কীভাবে ব্যবহার বদলে যাচ্ছিল সুশান্তের। অবসাদ কাটানোর চিকিৎসাও চলছিল তার। রিয়া বারবার অনুরোধ করলেও ওষুধ খেতে চাইতেন না সুশান্ত। এর আগে একই কথা জানিয়েছিলেন রিয়ার ঘনিষ্ঠ বন্ধু, লেখিকা সুহৃতা সেনগুপ্তও।

তিনি বলেছিলেন, রিয়া এবং সুশান্তের দিদি অভিনেতাকে ওষুধ খাওয়ার জন্য অনুরোধ করে গেলেও, তা শোনেননি তিনি।

সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকেই সমানে উঠে আসছিল তার পরপর নতুন ছবি হাতে না থাকার প্রসঙ্গ। কিন্তু রিয়ার বয়ান বলছে, অভিনেতার হাতে কাজ ছিল না, এমনটা নয়। সুশান্তের সঙ্গে তার নিজেরই অন্তত দু’টি ছবি করার কথা ছিল। যা শেষ হতে হতে লেগে যেত পরের বছর। খুঁটিয়ে দেখা হচ্ছে রিয়া এবং সুশান্তের যাবতীয় হোয়াটস অ্যাপ চ্যাট, কলরেকর্ডও।
গতকাল সকাল সাড়ে এগারোটা নাগাদ সাদা পোশাকে, মুখে মাস্ক এবং হাতে গ্লাভস পরে মুম্বাইয়ের বান্দ্রা থানায় আসেন রিয়া। ক্লান্ত, বিধ্বস্ত রিয়ার থানা থেকে বেরতে দেখতে সন্ধে গড়িয়ে যায়।

খুব শীঘ্রই মুম্বাই পুলিশ ডাক পাঠাতে চলেছে মুম্বইয়ের প্রভাবশালী প্রযোজনা সংস্থা যশরাজ ফিল্মসকে। খতিয়ে দেখা হবে সুশান্তের সঙ্গে তাদের চুক্তিপত্র, প্রতিভাবান তারকার অপমৃত্যুর পর যা নিয়ে সমালোচনা হয়েছে বিস্তর।

অতীত বলছে, এক সাক্ষাৎকারে সুশান্ত জানিয়েছিলেন, ক্যারিয়ারের শুরুতে তিনি চুক্তিবদ্ধ ছিলেন যশরাজ ফিল্মসের সঙ্গে। চুক্তি অনুযায়ী তার ৩টি ছবি করার কথা ছিল এই ব্যানারের সঙ্গে। তার মধ্যে দু’টি ছবি ‘শুদ্ধ দেশি রোমান্স’ এবং ‘ব্যোমকেশ বক্সী’ বাস্তবায়িত হলেও তৃতীয় ছবি ‘পানি’ আক্ষরিক অর্থেই পানিতে ডুবেছিল।

অথচ এই ছবিকে টোপ হিসেবে ব্যবহার করে ১১ মাস অভিনেতাকে অন্য ছবিতে সই করতে দেননি আদিত্য চোপড়া! আবার এই চুক্তির কারণেই দুটো বড় ছবি হাতছাড়া হয়েছিল সুশান্তের। যার মধ্যে একটি সঞ্জয় লীলা বানশালীর ‘রামলীলা’, অন্যটি ‘বেফিকরে’।

সুশান্ত মারা গেছেন আজ পাঁচদিন। গত ১৪ জুন তার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছিল তার ঝুলন্ত দেহ। কিন্তু এই একটি মৃত্যুই যেন আচমকাই নাড়িয়ে দিয়েছে বলিউডের আজন্মলালিত স্বজনপোষণ প্রথাকে। সামনে এনে রেখে দিয়েছে বেশ কিছু আড়ালে থেকে যাওয়া সত্যিকে। আনন্দবাজার

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন