সদ্য সংবাদ

 অমিতাভ নাতনি নভ্যার ভাইরাল ছবি ঘিরে জল্পনা  সারাদেশে শীত থাকবে মাসজুড়ে  ১২ মাসের বেতন দিতে না পারলে পরিষদ বাতিল: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী  পঞ্চগড়ে গভীর রাতে শীতার্তদের পাশে জেলা প্রশাসক   কারাগারে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক অনলাইন প্রশিক্ষণ শুরু  বাগলী স্থল শুল্ক ষ্টেশনে মানববন্ধন  আড়াইহাজারে সোয়া ৫টন অবৈধ পলিথিন সহ গ্রেফতার ২   ভারতে টিকা নেয়ার পর ৪৪৭ জনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া  সিদ্ধিরগঞ্জে ভাবীকে পিটিয়ে রক্তাক্ত যখম করলেন দেবর  সাংবাদিকদের কল্যাণে সরকার কাজ করে যাচ্ছে -পিআইবি মহাপরিচালক   ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিন নেয়ার পর নরওয়ের ২৩ নাগরিকের মৃত্যু  সিরাজগঞ্জ বিএনপি বিজয়ী কাউন্সিলর প্রার্থী খুন   নির্বাচনে কে জিতবে, নির্ধারণ হয় প্রধানমন্ত্রীর বাসা থেকে   এ নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক বলা যায় না : মাহবুব তালুকদার  রাজউকের প্রস্তাব বাস্তবসম্মত নয়, নাসিকের চিঠি   মঞ্জু হত্যা মামলা থেকে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি এরশাদকে অব্যাহতি  নারায়ণগঞ্জ বধ্যভূমিতে ১৩৯ শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনে ডিসি  বাইডেনের শপথ গ্রহণে গাইবেন লেডি গাগা ও জেনিফার লোপেজ  পুতুলে ভরে অভিনব কায়দায় ইয়াবা বিক্রি  ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে দৃশ্যমান

মুরগির চামড়া দিয়ে জুতা বানিয়ে রাতারাতি বিখ্যাত

 Sun, Jun 28, 2020 11:38 PM
মুরগির চামড়া দিয়ে জুতা বানিয়ে রাতারাতি বিখ্যাত

এশিয়া খবর ডেস্ক:: বিভিন্ন প্রাণীর চামড়া দিয়ে নানা ধরণের পণ্য তৈরি করা হয়।

 জুতা, কাপড়, বেল্ট, ব্যাগসহ বিভিন্ন নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস তৈরি হয়। তবে মুরগির চামড়া দিয়ে জুতো কেউ বানায়নি আজ পর্যন্ত।

এবার এই কাজ করে রাতারাতি খ্যাতি পেয়েছে ইন্দোনেশিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান। হিরকা নামের এই ব্র্যান্ডের জুতো তৈরিতে ব্যবহৃত হয় মুরগির পায়ের চামড়া।

প্রতিষ্ঠানটির উদ্যোক্তা জানিয়েছেন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনার উদ্দেশ্য থেকেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দেখতে সাধারণ চামড়ার জুতো মনে হলেও, প্রচলিত কাঁচামালে তৈরি নয় এ জুতো। দর্শনীয় এবং আরামদায়ক এসব জুতো তৈরি হয়েছে মুরগির পায়ের চামড়া থেকে। ফেলে দেওয়া মুরগির পা সংগ্রহ করার পর এগুলোর চামড়া প্রক্রিয়াজাত করা হয়। তারপর তৈরি করা হয় বিভিন্ন ডিজাইনের জুতো। ইন্দোনেশিয়ায় তরুণ উদ্যোক্তা নুরমান ফারিয়েকা রামধানির হাত ধরে ২০১৭ সালে যাত্রা শুরু হয় জুতো প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান হিরকা।

মূলত বর্জ্যকে কাজে লাগানোর ভাবনা থেকেই নেওয়া হয় এমন অভিনব উদ্যোগ। এক জোড়া জুতো তৈরিতে প্রয়োজন ৪৫টি মুরগির পা। বিক্রি হয় ৩৫ ডলার থেকে ১৪০ ডলারের মধ্যে।

নুরমান ফারিয়েকা বলেন, ‘প্রতিদিন হাজার হাজার মুরগির পা ফেলে দেওয়া হয়। সেগুলো কাজে লাগানোর চেষ্টা করি।’ পুবের কলম

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন