সদ্য সংবাদ

  ডিএমপির মিরপুর বিভাগে ১২ পুলিশ কর্মকর্তা বদলি   এমপির মামা শ্বশুর ‘জালাল মামা’তেই বিলীন সিদ্ধিরগঞ্জ আ’লীগ   স্কটিশ সুন্দরীর ‘টোপ’, সর্বস্বান্ত ব্যবসায়ী  পাবনার আমিনপুর থানার সেই বিতর্কিত ওসিকে অব্যাহতি, এলাকায় মিষ্টি বিতরণ  বকসিস না দেওয়ায় অক্সিজেন মাস্ক খুলে দেওয়ার অভিযোগ, শিশুর মৃত্যু  নারায়ণগঞ্জ পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের পর হত্যা  ভারতের বিরুদ্ধে সোচ্চার না হলে বাংলাদেশের মুক্তি নেই: ডা. জাফরুল্লাহ  গীতিকার ও সুরকার আলাউদ্দিন আলী আর নেই  হাসপাতালে ‘অভিযান’ চালানোর বিপক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী  ইসরাইলে নেতানিয়াহুর পদত্যাগ দাবিতে বড় বিক্ষোভ  আন্তর্জাতিক তদন্তের দাবি নাকচ লেবানন প্রেসিডেন্টের  ওসি প্রদীপের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন চান্দিনার ওসি আবুল ফয়সল   সিফাতের মুক্তির দাবিতে ডাকা মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিচার্জ, আহত ১০   ওসি প্রদীপ: ৩০ লাখ টাকা চাঁদা না দেয়ায় মাদক ব্যবসায়ী সাজিয়ে ক্রসফায়ার  করোনাকালে ও তেঁতুলিয়ার মহানন্দায় পাথর শ্রমিকদের কর্মচাঞ্চল্য  আড়াইহাজারে অটো চালকের লাশ উদ্ধার  মায়ের কারণেই বাবা দেশের জন্য কাজের সুযোগ পেয়েছেন : শেখ হাসিনা   কীভাবে পুলিশ সদস্যরা বিপথে যায়? গোয়েন্দা সংস্থাও ঘুষের টাকা পায়?   করোনা আক্রান্ত হয়ে আইসিইউতে সানাই   ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলীসহ ৭ পুলিশ চাকরি থেকে বরখাস্ত

নবীনগরে অগ্নিকান্ডে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

 Mon, Jul 13, 2020 9:50 PM
 নবীনগরে অগ্নিকান্ডে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধিঃ: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা সদরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনায়

 কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। রবিবার (১২ জুলাই) আনুমানিক রাত ০৮ টার দিকে বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সভাপতি মো. মনির হোসেনের ৩ তলা বিশিষ্ট বিল্ডিংয়ের নিচ তলায় মোহন হার্ডওয়্যার স্টোরে এ ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা প্রায় ১ ঘন্টা প্রাণপণ চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। জানা যায় পথচারীরা আগুনের ধোয়া দেখে আগুন লাগার ব্যাপারটি টের পায়। তখন দোকান বন্ধ ছিল মুহুর্তেই আগুন ধাও ধাও করে জ্বলতে থাকে। খবর পেয়ে প্রশাসনের লোকজন ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন এবং পাশ্ববর্তী মুরাদনগর উপজেলা হতে ফায়ার সার্ভিসের টিম আনার ব্যবস্থা করেন কিন্তু ফায়ার সার্ভিস পৌছানোর আগেই আগুন নিয়ন্ত্রনে চলে আসে। আগুন লাগার সূত্রপাত এখনো জানা যায়নি। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় নবীনগর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনটি এখনো চালু না হওয়ায় সাধারণ মানুষকে প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে ব্যাপক ব্যগ পোহাতে হয়েছে। নদীতে ড্রেজারের বালি তোলার শ্রমিকরা আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সহযোগিতে করেন। স্থানীয়রা অভিযোগ করেন আগুনের লেলিহান এতোটাই ভয়কংর ছিলো যে কেউ কোনভাবেই আগুনের সামনে যেতে পারছিলো না। ফায়ার সার্ভিস স্টেশনটি যদি চালু থাকতো তাহলে এতো ক্ষয়ক্ষতির ঘটনা ঘটত না। অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে নবীনগর পৌর মেয়র এডভোকেট শিব শংকর দাস ঘটনাস্থল পৌছে আগুন নিভানোর জন্য নদীতে থাকা ড্রেজারের ইঞ্জিনের মাধ্যমে পানির ব্যবস্থা করেন। তিনি নবীনগরের ফায়ার সার্ভিস স্টেশনটি মাননীয় সাংসদের সাথে আলোচনা করে দ্রুত চালুর ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন