সদ্য সংবাদ

  চাঁদপুরের ডিবির ওসি রনজিত বড়ুয়ার বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান   আড়াইহাজারে বন্ধুকে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় স্বীকারোক্তি  ইসরায়েল-আমিরাতের ‘ঐতিহাসিক মিলন’ ঘটালেন ট্রাম্প   দুর্নীতি-দুঃশাসনে দিশেহারা জনগণ : মান্না   বাসায় জুম মিটিং করলে আপ্যায়ন ব্যয় লাগবে কেন: পরিকল্পনামন্ত্রী  শোক দিবসের পরিবেশ যেন বিনষ্ট না হয়: ওবায়দুল কাদের   মহেশখালীতে ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে করা মামলা খারিজ, তদন্তে দেয়া হয়েছে সিআইডিকে   ব্যক্তির অপকর্মের দায় পুলিশ বহন করবে না: পুলিশ অ্যাসোসিয়েশন  মাঝ নদীতে ধাক্কাধাক্কি, ২ লঞ্চের রুট পারমিট স্থগিত   যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে সংঘর্ষে ৩ কিশোর নিহত  এসপি জানতেন ওসি প্রদীপের ‘জলসা ঘরে’ চলত ভ’য়ংকর সব অপরাধ!  এবার রাজশাহী রেঞ্জ এসপির বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীর চাঁদাবাজির মামলা  আড়াইহাজারে মার্কেটের ছাদে যুবকের গলাকাটা লাশ  সুশাসনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় টিআইবির নয় দফা  নির্বাচনে দলীয় টিকেট নিশ্চিত করেছেন ইলহান ওমর   ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায়, পাঁচ পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা   ওসি শিশিরের অপকর্ম তদন্তে পুলিশ হেডকোয়াটার্সের টিম বরিশালে   বাড়ার পর এবার স্বর্ণের দাম কমল   সিফাতের ভাষ্য: বাংলাদেশ কাম ডাউন, কাম ডাউন, এরপর গুলি..   মেজর সিনহা হত্যা মামলা: ১৬ আগস্ট গণশুনানি করবে তদন্ত কমিটি

‘এক ব্যক্তি কোম্পানি’ খোলার সুযোগ পাচ্ছেন নতুন আইনে

মন্ত্রিসভায় আইনের খসড়া অনুমোদন

 Mon, Jul 20, 2020 11:59 PM
‘এক ব্যক্তি কোম্পানি’ খোলার সুযোগ পাচ্ছেন নতুন আইনে

এশিয়া খবর ডেস্ক:: দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য এবং বিনিয়োগকে আরো এগিয়ে নিতে

‘এক ব্যক্তি কোম্পানি’ খোলার সুযোগ রেখে কোম্পানি (দ্বিতীয় সংশোধন) আইন,২০২০ এর খসড়ার চুড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠকে এই অনুমোদন দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গণভবন থেকে সচিবালয়ে বৈঠকরত মন্ত্রিসভার সদস্য এবং সচিবদের সঙ্গে যোগ দেন। পরে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

তিনি বলেন, প্রস্তাবিত আইনের সংজ্ঞা অনুযায়ী, ‘এক ব্যক্তির কোম্পানি’ হল সেই কোম্পানি, যার বোর্ডে সদস্য থাকবেন কেবল একজন।

পরিচালক এবং প্রধান ব্যক্তি একজন থাকেন বলে এ ধরনের কোম্পানি পর্ষদ সভা করা ও সিদ্ধান্ত গ্রহণের প্রক্রিয়ায় নিয়মের ছাড় পাবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘এক ব্যক্তির কোম্পানি- এটা আমাদের পারসেপশনে ছিল না। এটা আমাদের কাছে বিভিন্ন দিক থেকে প্রস্তাব এসেছে যে এক ব্যক্তিকে কোম্পানি হিসেবে নিবন্ধন করা হলে অনেক বিনিয়োগ আসবে।’

সে কারণে এক ব্যক্তির কোম্পানির নিবন্ধন, পরিচালনা ও বিধি-বিধান সংশোধিত আইনে অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এ ধরনের কোম্পানির শেয়ার হস্তান্তরের ক্ষেত্রে হস্তান্তরকারীর ব্যক্তিগত উপস্থিতি এবং কমিশনের মাধ্যমে হস্তান্তর দলিলে স্বাক্ষরের বিষয়টি নিশ্চিত করার কথা বলা হয়েছে প্রস্তাবিত আইনে।’

তিনি আরো বলেন,‘কোম্পানি উঠে গেলে পাওনাদারদের ঋণ পরিশোধে অগ্রাধিকার দিতে হবে। আমরা দেখেছি যখন কোম্পানি উঠে যায় তখন পাওনাদাররা ঘোরে।’
কোম্পনি আইন সংশোধন করে অনলাইনের মাধ্যমে নিবন্ধনের বিধান রাখা হচ্ছে বলেও মন্ত্রিপরিষদ সচিব উল্লেখ করেন।

খন্দকার আনোয়ার বলেন, বর্তমান আইনে ১৪ দিনের নোটিসে বোর্ড মিটিং করার বিধান ছিল, সেটাকে এখন ২১ দিন করা হচ্ছে।

‘এক ব্যক্তির কোম্পানি খোলার সুযোগ এবং ২১ দিনে বোর্ড মিটিংয়ের ব্যবস্থা রাখায় বিশ্ব ব্যাংকের ব্যবসায় পরিবেশের সূচকে আমাদের পয়েন্ট বেড়ে যাবে.’বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, ২০১৮ সালের ২৬ নভেম্বর কোম্পানি আইন সংশোধন প্রস্তাবের নীতিগত অনুমোদন দিয়েছিল মন্ত্রিসভা। এখন এই আইন সংশোধনীর প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় চূড়ান্ত অনুমোদন পাওয়া তা পাসের জন্য সংসদে তোলা হবে।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন