সদ্য সংবাদ

 অমিতাভ নাতনি নভ্যার ভাইরাল ছবি ঘিরে জল্পনা  সারাদেশে শীত থাকবে মাসজুড়ে  ১২ মাসের বেতন দিতে না পারলে পরিষদ বাতিল: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী  পঞ্চগড়ে গভীর রাতে শীতার্তদের পাশে জেলা প্রশাসক   কারাগারে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক অনলাইন প্রশিক্ষণ শুরু  বাগলী স্থল শুল্ক ষ্টেশনে মানববন্ধন  আড়াইহাজারে সোয়া ৫টন অবৈধ পলিথিন সহ গ্রেফতার ২   ভারতে টিকা নেয়ার পর ৪৪৭ জনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া  সিদ্ধিরগঞ্জে ভাবীকে পিটিয়ে রক্তাক্ত যখম করলেন দেবর  সাংবাদিকদের কল্যাণে সরকার কাজ করে যাচ্ছে -পিআইবি মহাপরিচালক   ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিন নেয়ার পর নরওয়ের ২৩ নাগরিকের মৃত্যু  সিরাজগঞ্জ বিএনপি বিজয়ী কাউন্সিলর প্রার্থী খুন   নির্বাচনে কে জিতবে, নির্ধারণ হয় প্রধানমন্ত্রীর বাসা থেকে   এ নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক বলা যায় না : মাহবুব তালুকদার  রাজউকের প্রস্তাব বাস্তবসম্মত নয়, নাসিকের চিঠি   মঞ্জু হত্যা মামলা থেকে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি এরশাদকে অব্যাহতি  নারায়ণগঞ্জ বধ্যভূমিতে ১৩৯ শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনে ডিসি  বাইডেনের শপথ গ্রহণে গাইবেন লেডি গাগা ও জেনিফার লোপেজ  পুতুলে ভরে অভিনব কায়দায় ইয়াবা বিক্রি  ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে দৃশ্যমান

ক্যাসিনো হোতা এনু-রুপনের বিরুদ্ধে চার মামলায় চার্জশিট

 Thu, Jul 23, 2020 11:27 PM
 ক্যাসিনো হোতা এনু-রুপনের বিরুদ্ধে চার মামলায় চার্জশিট

এশিয়া খবর ডেস্ক:: অর্থ পাচারের চার মামলায় ক্যাসিনোকাণ্ডের অন্যতম হোতা,

 আলোচিত দুই ভাই ও আওয়ামী লীগ নেতা এনামুল হক এনু ও সাধারণ সম্পাদক রুপন ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দিয়েছে সিআইডি পুলিশ।

ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতের সংশ্লিষ্ট জিআর শাখায় বুধবার এ চার্জশিট জমা দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার আদালত সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, বুধবার বিকেলে গেন্ডারিয়া, ওয়ারী ও সূত্রাপার থানার মানি লন্ডারিং আইনের চার মামলায় তদন্ত শেষে তাদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেওয়া হয়। চারটি মামলায় বেশিরভাগই একই আসামি। চার মামলায় ৫১ আসামি হলেও তারা ১৮ জন। গেন্ডারিয়া থানার মামলায় ১৬ জন, সূত্রাপুরের দুটি মামলায় ১৫ ও ১০ জন করে এবং ওয়ারী থানার মামলায় ১১ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। আগামী রোববার অভিযোগপত্রগুলো যাচাই-বাছাই করে আদালতে উপস্থাপন করা হবে।

আসামিরা সংঘবদ্ধভাবে অপরাধীরা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত অর্থ পাচারের উদ্দেশ্যে নিজেদের কাছে রেখেছিল। আসামিরা এই অর্থ উপার্জনের কোনো বৈধ কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। তদন্তে গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক এনু ও সাধারণ সম্পাদক রুপন ছাড়াও ওয়ান্ডার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জয়  গোপাল সরকারের সম্পৃক্ততা পেয়েছে সিআইডি। তবে ক্লাবের সভাপতি ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট  মোল্লা আবু কাওছারের কোনো সংশ্লিষ্টতা  মেলেনি বলে দাবি করেছে সিআইডি।

জানা গেছে, এনু-রুপনের নামে ব্যাংকে ১৯ কোটি টাকা এবং পুরান ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ১২৮টি ফ্ল্যাটের খোঁজ মিলেছে। ক্যাসিনো ব্যবসার মাধ্যমে অবৈধ সম্পদের পাহাড় গড়েছেন এ দুই ভাই।

২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে এনু ও রুপনের পুরান ঢাকার বানিয়ানগরের বাসায় এবং তাদের দুই কর্মচারীর বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। সেখান থেকে কয়েকটি সিন্দুক ভর্তি পাঁচ কোটি টাকা এবং সাড়ে সাত কেজি স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় সূত্রাপুর ও গেন্ডারিয়া থানায় তাদের নামে ছয়টি মামলা করা হয়।

পরে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি এনু-রুপনের লালমোহন সাহা স্ট্রিটের বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। সেখান থেকে ২৬ কোটি ৫৫ লাখ ৬শ’ টাকা জব্দ করা হয়। আর পাঁচ কোটি ১৫ লাখ টাকার এফডিআরের কাগজ এবং এক কেজি স্বর্ণ জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় দুই ভাইয়ের নামে আরও দুটি মামলা হয়।

অন্যদিকে, দুদক এনু-রুপনের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে পৃথক দুটি মামলা করে। তাদের আয়ের বড় উৎস ছিল মতিঝিলের ওয়ান্ডার্স ক্লাবে ক্যাসিনো ব্যবসা। চলতি বছরের ১৩ জানুয়ারি কেরানীগঞ্জের একটি বাসা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন